BREAKING NEWS

০৯  আষাঢ়  ১৪২৯  শনিবার ২৫ জুন ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

সৌদিতে সেনা অভ্যুত্থানের জল্পনা! কিং সলমনের প্রাসাদে চলল ব্যাপক গোলাগুলি

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: April 22, 2018 3:30 pm|    Updated: November 1, 2018 2:47 pm

Fears of a coup are sparked in Saudi Arabia after heavy gunfire erupts near Royal Palace

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: তুরস্কের পথে হেঁটে সৌদি আরবের সেনাও কি বিদ্রোহের ডাক দিয়েছে? শনিবার রাতে সৌদি রাজা কিং সলমনের রাজপ্রাসাদ থেকে প্রবল গোলাগুলির শব্দ ভেসে আসাকে কেন্দ্র করে ব্যাপক জল্পনা ছড়াল সোশ্যাল মিডিয়ায়৷ কয়েকটি মার্কিন মিডিয়া গোলাগুলিকে কেন্দ্র করে রাজপ্রাসাদ চত্বরে ব্যাপক উত্তেজনার ভিডিও পোস্ট করে৷ তবে শেষ পর্যন্ত সেনা বিদ্রোহের জল্পনায় জল ঢেলে দিয়েছে রিয়াধ৷ আনুষ্ঠানিকভাবে সৌদি প্রশাসন সূত্রে জানানো হয়েছে, রাজা সলমনের প্রাসাদের বাইরে একটি ড্রোন সন্দেহজনকভাবে উড়ছিল৷ সেটিকেই গুলি করে নামিয়েছে সেনা৷

[১১৭ বছর বয়সে ইতি জীবনের যাত্রায়, প্রয়াত বিশ্বের প্রবীণতমা]

সৌদিতে সব সংবাদমাধ্যমই রাজপরিবার নিয়ন্ত্রিত৷ সুতরাং তাদের বিবৃতি ছাড়া আসলে ঠিক কী হয়েছিল জানার উপায় নেই৷ কয়েকজন অত্যুৎসাহী রাতেই টুইটারে সেনা বিদ্রোহ করেছে বলে একের পর এক গোলাগুলি চলছে এমন ভিডিও পোস্ট করতে থাকলেও, রিয়াধের রাজপ্রাসাদের নিরাপত্তারক্ষীরা সেই জল্পনাকে পাত্তা দিতে নারাজ৷ শেষ পর্যন্ত ওয়াল স্ট্রিট সংবাদমাধ্যমে এক সাংবাদিক সৌদি আরব থেকেই টুইট করে বিদ্রোহের জল্পনায় জল ঢেলে দিয়ে বলেন, ‘রাজার প্রাসাদের বাইরে একটি উড়ন্ত ড্রোনকে লক্ষ্য করে মাঝরাতে আচমকাই রণক্ষেত্র হয়ে ওঠে প্রাসাদ চত্বর৷ সেটি গুলি করে নামানো হলে দেখা যায় সেটি একটি খেলনা ড্রোন৷ তবে সৌদি সেনা কোনওরকম ঝুঁকি নিতে নারাজ৷ প্রাসাদের চারপাশে নিরাপত্তাবেষ্টনী আরও কয়েকগুণ মজবুত করা হয়েছে৷’ মার্গারিটা স্ট্যানকাটির এই টুইটের পর ক্যু-এর জল্পনা থামে৷ তবে ড্রোনটি কি উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে সৌদির রাজা সলমনকে হত্যার জন্য কেউ পাঠিয়েছিল কি না, সেটা তিনি নিজেও এখনও জানেন না বলে টুইট করেন ওই সাংবাদিক৷

[ট্রাম্পকে স্বস্তি দিয়ে পারমাণবিক অস্ত্র নামিয়ে রাখছেন কিম, খুশি নয় জাপান]

সৌদি প্রশাসন নিয়ন্ত্রিত সংবাদ সংস্থা জানিয়েছে, একটি ড্রোনকে গুলি করে নামানো হয়৷ সেই গোলাগুলি চালানোর ভিডিওই কেউ কেউ টুইট করেছেন৷ রাজা সম্পূর্ণ অক্ষত রয়েছেন৷ রিয়াধ পুলিশের একটি সূত্র জানাচ্ছে, খোজামা জেলার কাছে ড্রোনটি প্রথম দেখতে পাওয়া যায়৷ পরে সেটি গুলি করে নামানো হয়৷ ড্রোনটি কে বা কারা পাঠিয়েছিল, কেনই বা পাঠিয়েছিল, পুলিশ এই সব তদন্ত করে দেখছে৷ তবে ড্রোনটি রাজপ্রাসাদের বাইরে দেখতে পাওয়া মাত্রই কিং সলমনকে তাঁর ব্যক্তিগত নিউক্লিয়ার হামলা রোধক বাঙ্কারের ভিতর নিয়ে যাওয়া হয়৷ গোপন ঘাঁটি থেকে ছুটে আসে রাজার ব্যক্তিগত সেনা ও নিরাপত্তারক্ষী৷ রাজাকে খানিকক্ষণ পরে বিশেষ গাড়িতে করে অন্যত্র সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়৷ যে রাজপ্রাসাদে গোলাগুলি চলেছে সেই ঔজা প্যালেসে রাজা সলমন শেষ পর্যন্ত ছিলেন না বলে টুইট করেছে আল জাজিরা সংবাদমাধ্যম৷ গোলাগুলি চলাকালীন একের পর ভ্রান্ত টুইটে ভেসে উঠতে থাকে মাইক্রো ব্লগিং সাইটে৷ মার্কিন কয়েকটি সংবাদমাধ্যমের সাংবাদিকের টুইট ওই জল্পনা আরও উসকে দেন৷ একজন লেখেন, ‘ক্রাউন প্রিন্স মহম্মদ বিন সলমনের উপর হামলার অসমর্থিত সূত্রে খবর পাওয়া গিয়েছে৷ রাজাকে বাঙ্কারে নিয়ে যাওয়া হয়েছে৷’ আর একজন একধাপ এগিয়ে লেখেন, ‘রিয়াধের রাজপ্রাসাদে সেনা বিদ্রোহ ঘোষণা করেছে৷ একটি সংবাদ সংস্থা টুইট করে জানায়, রয়্যাল সৌদি ল্যান্ড ফোর্স লেফটেন্যান্ট জেনারেল আল্লুকাস নেপিলিস এই বিদ্রোহের নেতৃত্ব দিচ্ছেন ও কিং সলমনকে হটাতে চাইছেন৷ তবে শেষ পর্যন্ত এই সব ধারনা ভ্রান্ত বলে প্রমাণিত হয়৷ কারণ, রিয়াধে কোনও জরুরি অবস্থা ঘোষণা করা হয়নি৷ ফোন, মোবাইল ও সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সাইটগুলিও সচল ছিল সর্বক্ষণ৷

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে