BREAKING NEWS

৪ আশ্বিন  ১৪২৭  সোমবার ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

ইওরোপীয় ইউনিয়নের সঙ্গে ব্রিটেনের ঐতিহাসিক বিচ্ছেদ

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: June 24, 2016 12:19 pm|    Updated: June 24, 2016 12:31 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ইওরোপীয় ইউনিয়ন ছাড়ার পক্ষে ভোট দিলেন ব্রিটেনের অধিকাংশ মানুষ। যার ফলে ২৮ দেশের ইওরোপীয় ইউনিয়নের (ইইউ) সঙ্গে ব্রিটেনের ৪৩ বছরের বন্ধন ছিন্ন হল। এই গণভোটকে ব্রিটেনের রাজনৈতিক ইতিহাসের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ও জটিল সিদ্ধান্ত বলে জানিয়েছে বিবিসি। ভোটের চূড়ান্ত ফলাফল, ইইউ থেকে বেরিয়ে যাওয়ার পক্ষে ৫১.৯ শতাংশ ও বিপক্ষে ৪৮.১ শতাংশ। রয়টার্স সূত্রে খবর, ‘ব্রেক্সিট’-এর পক্ষে ভোট দিয়েছেন ১৭,৪১০,৭৪২ জন। ইউরোপীয় ইউনিয়ন থেকে যাওয়ার পক্ষে ভোট পড়েছে ৪৮ শতাংশ।

‘ব্রেক্সিট’-এর অর্থ, ব্রিটেনের এক্সিট অর্থাত্‍ ইউরোপীয় ইউনিয়ন থেকে বের হয়ে আসা৷ বৃহস্পতিবারে ওই ইস্যুতে ৪০ হাজার কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ শুরু হয়। ইংল্যান্ড, স্কটল্যান্ড, উত্তর আয়ারল্যান্ড এবং ওয়েলসে একই সঙ্গে ভোট নেওয়া শুরু হয়। ইইউ-তে থাকা এবং বেরিয়ে যাওয়া নিয়ে প্রচার উঠেছিল তুঙ্গে। প্রথম থেকেই ডেভিড ক্যামেরন ইইউ-তে থাকার পক্ষে ছিলেন। জনগণকে তিনি ইইউ-তে থেকে যাওয়ার পক্ষে ভোট দেওয়ার জন্য আহ্বান জানিয়েছেন। তাঁর বক্তব্য, ‘‘ইইউ থেকে বেরিয়ে যাওয়ার পক্ষে ভোট দিলে তা হবে একটি বিরাট ভুল।’’ আবার ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যমের দাবি, রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথ ইউরোপীয় ইউনিয়ন ছেড়ে বেরিয়ে আসার পক্ষে৷

বৃহস্পতিবার থেকে শুরু হয়েছিল ভোটগ্রহণ| সকাল থেকেই বিভিন্ন বুথে ছিল লম্বা লাইন৷ ভোটদানের পেন্সিলে কারচুপি করার আশঙ্কায় ভোটারদের বাড়ি থেকে কলম আনার আহ্বান জানিয়েছিলেন ব্রেক্সিট-পন্থীরা৷ তাঁদের আশঙ্কা ছিল, গুপ্তচর সংস্থা এমআইফাইভ বা অন্য কোনও সরকারি এজেন্সি প্রধানমন্ত্রী ডেভিড ক্যামেরনের নির্দেশে কারচুপি করতে পারে৷ কিন্তু ক্যামেরনের আবেদনেও কাজ হল না। ইউরোপীয় ইউনিয়ন থেকে বেড়িয়ে যাওয়ার পক্ষেই মত দিলেন ব্রিটেনের অধিকাংশ মানুষ। লন্ডনের প্রাক্তন মেয়র বরিস জনসন বলেছেন, বৃহস্পতিবার ব্রিটেনের ‘স্বাধীনতা দিবস’৷

ব্রিটেনের এই গণভোটের ফলাফলের প্রভাব পড়তে শুরু করল বিশ্বের অর্থনৈতিক বাজারে। ১৯৮৫ পর ডলারের তুলনায় পাউন্ডের দাম সবচেয়ে কম। বাজার খোলার আগে ডলারের তুলনায় টাকার দামে পতন। ডলারের দাম এখন ৬৮.১২ টাকা। ভারতীয় শেয়ার বাজারেও বড়সড় ধস। ৯০০ পয়েন্টেরও বেশি নেমেছে সেনসেক্স। নিফটি পড়ল ৩১০ পয়েন্ট। ব্রেক্সিট-এর জন্য ভারতে কী প্রভাব পড়ে, তার উপর কড়া নজর রাখছে কেন্দ্রীয় সরকার।

সব মিলিয়ে ব্রিটেন এমন এক সন্ধিক্ষণে দাঁড়িয়ে, যেখান থেকে বিশ্বায়নের এক নতুন অধ্যায় শুরু হতে পারে। ব্রিটিশদের দেখানো রাস্তায় হেঁটে ইউরোপীয় ইউনিয়ন ছাড়তে পারে অন্যান্য দেশও। আন্তর্জাতিক অর্থনীতিতেও ব্যাপক পরিবর্তন আসতে পারে। ব্রিটেনই প্রথম যুক্তরাজ্য যারা ইউরোপীয় ইউনিয়ন ছেড়ে চলে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়ার হিম্মত দেখাল।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement