BREAKING NEWS

২৬ বৈশাখ  ১৪২৮  সোমবার ১০ মে ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

কথা রাখল রাশিয়া, ভারতে এসে পৌঁছল রুশ টিকা স্পুটনিক ভি

Published by: Biswadip Dey |    Posted: May 1, 2021 5:17 pm|    Updated: May 1, 2021 5:20 pm

Sputnik-V

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: করোনা ভাইরাসের (Coronavirus) আতঙ্কে ত্রস্ত দেশ। এই মারণ রোগের নির্দিষ্ট কোনও দাওয়াই না থাকায় ভ্যাকসিন হাতিয়ার করেই লড়াই চালাচ্ছে ভারত। এবার সেই লড়াইয়ে পাশে দাঁড়াল বন্ধু রাশিয়া। পূর্ব প্রতিশ্রুতি মেনে আজ, শনিবারই দেশে এসে পৌঁছল রুশ (Russia) করোনা টিকা (COVID-19) স্পুটনিক ভি (Sputnik V)-এর ডোজ।

কয়েক দিন আগে সংবাদ সংস্থা রয়টার্সকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে সারা বিশ্বে ওই টিকা বাজারজাত করার দায়িত্বে থাকা সংস্থা ‘Russian Direct Investment Fund’-এর প্রধান কিরিল দিমিত্রিয়েভ জানান, মে মাসের ১ তারিখ ভ্যাকসিনের প্রথম ডোজ ভারতে পৌঁছে যাবে। তিনি বলেন, “করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে আমরা ভারতের পাশে আছি। আমরা আশা করছি রাশিয়ার জোগান দেওয়া সরঞ্জমে ভারত এই মহামারীর মোকাবিলায় আরও দ্রুত কাজ করতে পারবে।” অবশেষে আজই হায়দরাবাদে প্রথম দফার স্পুটনিক ভি এসে পৌঁছেছে।

[আরও পড়ুন: অস্ট্রেলিয়ার পরে এবার ফ্রান্স, ফের দেশের করোনা পরিস্থিতির জন্য আন্তর্জাতিক কাঠগড়ায় মোদি]

২০২০ সালে বিশ্বে করোনা টিকা হিসেবে প্রথম ছাড়পত্র পায় স্পুটনিক ভি। ইতিমধ্যে পাঁচটি শীর্ষ ভারতীয় টিকা প্রস্তুতকারী সংগঠর সঙ্গে চুক্তি করেছে রুশ সংস্থাটি। চুক্তি মতে প্রতিবছর তৈরি হবে ৮৫ কোটি ডোজ। প্রসঙ্গত, গত জানুয়িরাতে দেশে টিকাকরণ শুরু হয়েছে। কোভ্যাক্সিন ও কোভিশিল্ড আপাতত এই দু’টি টিকাই দেওয়া হচ্ছে দেশবাসীকে। এবার সেই তালিকায় যুক্ত হল স্পুটনিক ভি-ও।

আমেরিকার (America) মডার্না এবং ফাইজারের তৈরি টিকার পরেই বিশ্বে সব থেকে বেশি কার্যকর রুশ স্পুটনিক ভি। ভারতে স্পুটনিক ভি তৈরি করে ‘ডক্টর রেড্ডিস’। তারা জানিয়েছে এদেশে স্পুটনিক ভি মানব শরীরের করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে ৯১.৬ শতাংশ কার্যকর। গত এপ্রিলে ভারতের বাজারে ব্যবহারের জন্য স্পুটনিক ভি চূড়ান্ত ছাড়পত্র পায়। তারপর থেকেই শুরু হয়েছিল প্রতীক্ষা। অবশেষে শনিবার তা শেষ হল।

উল্লেখ্য, এর আগে গত বুধবার অক্সিজেন কনসেনট্রেটর থেকে শুরু করে ভেন্টিলেটর, কোভিড যুদ্ধের নানা সরঞ্জামই সরবরাহ করেছিল রাশিয়া। দু’টি বিমানে ওই সব সামগ্রী দিল্লি বিমানবন্দরে এসে পৌঁছয় ওইদিন সকালে।

[আরও পড়ুন: করোনা যুদ্ধে ভারতের পাশে জাপান, অক্সিজেনের ঘাটতি মেটাতে মদত টোকিওর]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement