BREAKING NEWS

০৯  আষাঢ়  ১৪২৯  শনিবার ২৫ জুন ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

করোনায় বিপর্যস্ত মার্কিন মুলুক, জনতাকে আশ্বস্ত করতে টিকা নেবেন ৪ প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট

Published by: Monishankar Choudhury |    Posted: December 7, 2020 1:40 pm|    Updated: December 7, 2020 1:40 pm

Four former US Presidents to take corona vaccine | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদন ডিজিটাল ডেস্ক: ভারতের মতো উন্নয়নশীল দেশে করোনার গ্রাফ স্বস্তি দিলেও উদ্বেগ বাড়ছে আমেরিকায়। প্রতিদিন বাড়ছে মৃতের সংখ্যা। এহেন পরিস্থিতিতে দেশবাসীকে আশ্বস্ত করতে করোনা ভ্যাকসিন (Corona Vaccine) নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন আমেরিকার চার প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট।

[আরও পড়ুন: কৃষকদের প্রতি সুবিচারের দাবিতে উত্তাল লন্ডনের রাজপথ, বেজায় অস্বস্তিতে মোদি সরকার]

আমেরিকায় ভ্যাকসিন আসার কথা জানা গেলেও আশা-আশঙ্কার দোলাচলে ভুগছেন আম-জনতা। তাঁরা মনে করছেন, ভ্যাকসিনে করোনা ঠিক হলেও, পার্শ্ব প্রতিক্রিয়ায় স্বাস্থ্যের প্রচণ্ড ক্ষতি হতে পারে। তাই জনগণের আতঙ্ক দূর করতে এবার আসরে নেমেছেন চার প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট- জিমি কার্টার, জর্জ বুশ, বিল ক্লিটন ও বারাক ওবামা। প্রকাশ্যেই প্রতিষেধক নিতে প্রস্তুত তাঁরা। এমনকী হবু প্রেসিডেন্ট বিডেনও জানিয়েছেন, পূর্বসূরিদের পথে তিনিও রয়েছেন। এখনও করোনা ভাইরাসের প্রতিষেধক বাজারে আসেনি। তবে তা শীঘ্রই সাধারণের হাতে চলে আসবে বলে জল্পনা। প্রাক্তন জীবিত মার্কিন প্রেসিডেন্টদের মধ্যে সবথেকে প্রবীণ ৯৬ বছরের জিমি কার্টার। পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ায় কোনও ভয় না পেয়ে এত বয়সেও কার্টার ও তাঁর স্ত্রী প্রতিষেধক নিতে চেয়েছেন। প্রাক্তন চার প্রেসিডেন্টের উদ্দেশ্য একটাই। মানুষ যাতে বিনা দ্বিধায় প্রতিষেধক গ্রহণ করে করোনার সঙ্গে লড়াই সফল করতে পারেন।

এদিকে, আমেরিকায় পরিস্থিতি কতটা ভয়াবহ তা স্পষ্ট করে মার্কিন ফুড অ্যান্ড ড্রাগ অ্যাডমিনিষ্ট্রেশনের প্রকরণ কমিশনার তথা ফাইজারের বোর্ড সদস্য স্কট গটলিয়েব জানিয়েছেন, আগামী জানুয়ারি মাসের শেষের দিকে আমেরিকায় করোনায় মৃতের সংখ্যা চার লক্ষ ছাড়িয়ে যেতে পারে। উল্লেখ্য, শুধু আমেরিকায় নয়, ইউরোপের বিভিন্ন দেশেও আছড়ে পড়েছে সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউ। কিন্তু ভারতে পরিস্থিতি অনেকটাই নিয়ন্ত্রণে। স্বাস্থ্যমন্ত্রকের তথ্য অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় ভারতে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ৩২ হাজার ৯৮১ জন। যা রবিবারের তুলনায় প্রায় ৪ হাজার কম। ফলে দেশে চিকিৎসাধীন করোনা রোগীর সংখ্যাও কমেছে। সরকারি নথি বলছে ভারতে এই মুহূর্তে চিকিৎসাধীন করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৩ লক্ষ ৯৬ হাজার ৭২৯ জন। তবে মোট করোনা সংক্রমিতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৯৬ লক্ষ ৭৭ হাজার ২০৩ জন। এই সংখ্যাটা নিসন্দেহে উদ্বেগ বাড়াবে। তবে এর পাশাপাশি সুস্থতার গ্রাফ রাখলে, দেশে করোনা সংক্রমণেক প্রকৃত ছবিটা পরিস্কার হয়ে যায়।

[আরও পড়ুন: ব্রিটেনে শুরু হচ্ছে করোনার টিকাকরণ, শীঘ্রই ভ্যাকসিন নিতে পারেন রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথ]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে