১০ অগ্রহায়ণ  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ২৬ নভেম্বর ২০২০ 

Advertisement

‘ইসলামকে ভীষণ সম্মান করি আমরা’, চাপে ভোলবদল ফ্রান্সের বিদেশমন্ত্রীর!

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: November 9, 2020 3:07 pm|    Updated: November 9, 2020 3:12 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: স্কুলের পড়ুয়াদের হজরত মহম্মদের বিতর্কিত কার্টুন দেখানোর জন্য ফ্রান্সের এক শিক্ষককে নৃংশসভাবে হত্যা করে এক জেহাদি। এরপরই এই ঘটনার নিন্দা করতে গিয়ে ইসলাম ধর্ম সম্পর্কে বিতর্কিত মন্তব্য করেন ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁ। যার জেরে আরব দেশগুলি-সহ প্রায় গোটা মুসলিম বিশ্বেই ফ্রান্সে উৎপাদিত হওয়া পণ্য বয়কটের ডাক ওঠে। ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁর সমালোচনা করার পাশাপাশি ফ্রান্সের নাগরিকদের বিরুদ্ধেও ক্ষোভ প্রকাশ করতে থাকেন অনেকে। পরিস্থিতি জটিল হচ্ছে দেখে এবার সেই ক্ষোভ প্রশমন করার কাজ শুরু করলেন ফ্রান্সের বিদেশমন্ত্রী লি দ্রিয়ান (Le Drian)। মিশর সফরে গিয়ে তাঁরা ইসলাম (Islam) ধর্মকে খুব সম্মান করেন বলেও উল্লেখ করলেন।

রবিবার মিশর সফরে কায়রো গিয়ে প্রথমে সেদেশের প্রেসিডেন্ট আবদেল ফাতাহ আল-সিসি (Abdel Fattah al-Sisi) ও বিদেশমন্ত্রী সামে শৌকরি (Sameh Shoukry)’র সঙ্গে দেখা করেন ফ্রান্সের বিদেশমন্ত্রী লি দ্রিয়ান। তারপর ইসলাম ধর্মের ভূয়সী প্রশংসা করে তিনি বলেন, ‘আমাদের প্রেসিডেন্টের মন্তব্যের ভুল ব্যাখ্যা করে যেভাবে ফ্রান্স বিরোধী হাওয়া উঠেছে তা অনভিপ্রেত। আমাদের প্রথম নীতি হল, ইসলামের প্রতি সর্বোচ্চ সম্মান প্রদর্শন। পাশাপাশি আমি একথাও বলতে চাই যে ফ্রান্সের সমাজের পুরো অংশজুড়ে মুসলিমরা রয়েছেন। এখন আমাদের সন্ত্রাসবাদী হামলার হুমকি দেওয়া হচ্ছে। ধর্মান্ধতার পরিবেশ তৈরি করে নাশকতার চেষ্টা চলছে। তবে এটা শুধু আমাদের নয় সর্বত্রই একই পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে। তাই এই লড়াইটা সবার একসঙ্গে লড়া উচিত।’

[আরও পড়ুন: প্রাণীদেহ থেকে খামারের কর্মীদের সংক্রমণ? আতঙ্কে দেড় কোটি মিঙ্ক হত্যার সিদ্ধান্ত ডেনমার্কের]

মিশরে গিয়ে সুন্নি মুসলিম সম্প্রদায়ের সর্বোচ্চ সংস্থা হিসেবে খ্যাত হাজার বছরের পুরনো আল আজহা মসজিদেও গিয়েছিলেন লি দ্রিয়ান। সেখানে গিয়ে ওই মসজিদের প্রধান, ইমাম শেখ আহমেদ আল তায়েবের সঙ্গে দেখা করেন তিনি। সেখানে গিয়ে ফরাসি প্রেসিডেন্টের বক্তব্যের ভুল ব্যাখ্যা হচ্ছে বলে উল্লেখ করেন। পাশাপাশি ফ্রান্সের ফের কোনও সন্ত্রাসবাদী হামলা হলে তাঁরা ছেড়ে কথা বলবেন না বলেও উল্লেখ করেন। শেখ আহমেদ আল তায়েবও তাঁকে জানান, ইসলামে সন্ত্রাসের কোনও স্থান নেই। আর জঙ্গিদেরকে তাঁরা মুসলিম বলে মনে করেন না।

[আরও পড়ুন: জেলে যাওয়ার ভয়ে হোয়াইট হাউস ছাড়তে নারাজ ডোনাল্ড ট্রাম্প? উসকে উঠছে জল্পনা]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement