BREAKING NEWS

১০ অগ্রহায়ণ  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ২৬ নভেম্বর ২০২০ 

Advertisement

নবরাত্রিতেও অমানবিক পাকিস্তান, সিন্ধু প্রদেশে ভাঙা হল দেবী হিংলাজের মূর্তি

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: October 26, 2020 4:18 pm|    Updated: October 26, 2020 4:21 pm

An Images

ফাইল ফটো

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: নবরাত্রি (Navratri) উপলক্ষে বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে যখন আদ্যাশক্তির আরাধনায় মেতে উঠেছেন মানুষ। তখনই বিকৃত মানসিকতার পরিচয় দিচ্ছে পাকিস্তানের মৌলবাদীরা। সেখানে বসবাসকারী হিন্দুদের বিশ্বাসে আঘাত হানতে দেবীর মূর্তি ভাঙচুর করছে। অষ্টমীর দিনও সিন্ধু প্রদেশের একটি মন্দিরে ঢুকে সেখানে থাকা দেবী হিংলাজের মূর্তি ভাঙচুর করে একদল দুষ্কৃতী। বিষয়টি জানাজানি হওয়ার পর স্থানীয় হিন্দুদের মধ্যে উত্তেজনা তৈরি হয়েছে। পুলিশ ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দিলেও এখনও পর্যন্ত কেউ গ্রেপ্তার হয়নি।

সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যম সূত্রে জানা গিয়েছে, গত শুক্রবার অষ্টমী তিথি উপলক্ষে সিন্ধুপ্রদেশের থারপারকার জেলার নাগরপারকার (Nagarparkar) এলাকার মোয়া গ্রামে অবস্থিত হিংলাজ দেবীর মন্দিরে জড়ো হয়েছিলেন স্থানীয় মানুষজন। পুজোর পর আচমকা সেখানে একদল দুষ্কৃতী হাজির হয়ে মন্দিরে ভাঙচুর চালাতে থাকে। দেবী হিংলাজ (Hinglaj) ও তার বাহনের মুন্ডু ধারালো অস্ত্র দিয়ে কেটে মাটিতে ফেলে দেয়। এই ঘটনার পরেই পাকিস্তানের একজন সাংবাদিক নায়লা ইনায়েত টুইট করেন, নাগরপারকারের একটি হিন্দু মন্দিরে নবরাত্রির প্রার্থনার পরেই হামলা চালানো হয়। মন্দির ও দেবীর মূর্তি ভাঙচুর করা হয়েছে।

[আরও পড়ুন: শূ্ন্যে ভেসেও ভোটদান! মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে মহাকাশ স্টেশন থেকে ভোট দিলেন নভোচর ]

বিষয়টি নিয়ে উত্তেজনা তৈরি হতে সিন্ধু পুলিশের পক্ষ থেকে দ্রুত অপরাধীদের গ্রেপ্তার করার আশ্বাস দেওয়া হয়। জানানো হয়, এই ঘটনায় জড়িত দুষ্কৃতীদের বিষয়ে কিছু খবর পাওয়া গিয়েছে। খুব তাড়াতাড়ি দোষীদের গ্রেপ্তার করা হবে। সিন্ধুপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রীর বিশেষ সহকারী পুঞ্জো ভিলও এই ঘটনার তীব্র নিন্দা করে প্রশাসন সবরকমের ব্যবস্থা নেবে বলে প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন। যদিও ঘটনার পর তিনদিন কেটে গেলেও এখনও পর্যন্ত কাউকে গ্রেপ্তার করা হয়নি।

[আরও পড়ুন: ফ্রান্সের স্কুলে মহম্মদের ব্যঙ্গচিত্র, ফরাসি খাবার বয়কট আরব সংস্থাগুলির]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement