৮ ফাল্গুন  ১৪২৬  শুক্রবার ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২০ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ‘টাইটানিক’-এর শেষ দৃশ্য। সমুদ্রের জলে ডুবে মৃত্যু হয়েছিল লিওনার্দো ‘জ‌্যাক’ ডি ক্যাপ্রিওর। তবে এবার বাস্তবে তিনি ডুবলেন না। বরং তিনিই ভগবানের দূতের মতো ডুবন্ত এক ব্যক্তির প্রাণ বাঁচালেন।

দিন কয়েক আগের কথা। বর্ষশেষের ছুটি কাটাতে সেন্ট বার্টস শহরের বুকে ক‌্যারিবিয়ান সমুদ্র সৈকতে গিয়েছিলেন লিও। সমুদ্রতটে প্রেমিকা ক‌্যামিলা ম‌্যারোন ও বন্ধুদের সঙ্গে সমুদ্রস্নান করছিলেন তিনি। সে সময়েই জাহাজ থেকে সমুদ্রের জলে পড়ে যাওয়া ভিক্টর নামে এক পর্যটককে উদ্ধার করে তাঁর প্রাণ বাঁচান হলিউডের জনপ্রিয় অভিনেতা লিওনার্দো ডি ক্যাপ্রিও।

জানা গিয়েছে, লিওরা যখন স্নান করছিলেন তখন ওই সমুদ্রতটের কাছ দিয়ে একটি বিলাসবহুল জাহাজ যাচ্ছিল। ভিক্টর মদ‌্যপ অবস্থায় টাল সামলাতে না পেরে জাহাজের ডেক থেকে একেবারে সমুদ্রে পড়ে যান। জাহাজের ক‌্যাপ্টেন সঙ্গে সঙ্গে সাইরেন বাজিয়ে সবাইকে সতর্ক করে দেন তৎক্ষণাৎ। সমুদ্র সৈকতে থাকা কেউ যেন ডুবন্ত ভিক্টরকে উদ্ধার করেন, সেই আর্জিও জানান তিনি। ক‌্যাপ্টেনের কথা শোনামাত্রই দ্রুত জাহাজের কাছে সাঁতরে চলে যান লিওনার্দো। তাঁর সঙ্গে উদ্ধারকার্যে নামেন অন‌্য বন্ধুরাও। 

[আরও পড়ুন: ধর্ষণে অভিযুক্ত আশারামা বাপুর সঙ্গে নানা পাটেকরকে তুলনা, ফের বিস্ফোরক তনুশ্রী ]

দীর্ঘক্ষণ খোঁজাখুঁজি করেও ভিক্টরকে দেখতে পাননি কেউ। শেষে সূর্য ডোবার ঠিক আগে সাবা আইল‌্যান্ডের কাছে ভিক্টরকে দেখতে পান লিও। সেই সময়ই একটি বিশাল ঢেউ আর একটু হলেই মদ‌্যপ, প্রায় সংজ্ঞাহীন ভিক্টরের উপর আছড়ে পড়ছিল। কিন্তু লিও দ্রুত সেখানে সাঁতরে পৌঁছে ভিক্টরকে আঁকড়ে ধরে তাঁকে বাঁচান। প্রত‌্যক্ষদর্শীদের কথায়, লিওনার্দো বিশ্ববিখ‌্যাত হলিউডের তারকা হওয়া সত্ত্বেও একজন সাধারণ মানুষকে প্রাণে বাঁচাতে কিছু না ভেবেই ঝাঁপিয়ে পড়েন। ঠিক যে মুহূর্তে ভিক্টর ডুবে যাচ্ছিলেন তখনই লিও গিয়ে তাঁকে উদ্ধার করেন। প্রায় ১১ ঘণ্টা ধরে লিও অজ্ঞাত পরিচয়ের এক ব‌্যক্তির জন‌্য নিজেদের প্রাণের ঝুঁকি নিয়ে যেভাবে খুঁজে বের করলেন, তা দেখে তাঁদের কুর্নিশ জানায় সমুদ্র সৈকতে উপস্থিক পর্যটকরা।

[আরও পড়ুন: বিজেপি বয়কট করলেও ‘ছপাক’-এ দরাজ কংগ্রেস, মধ্যপ্রদেশে করমুক্ত দীপিকার ছবি ]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং