BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  সোমবার ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

সিওলে শুরু এনএসজি বৈঠক, চিনা প্রেসিডেন্ট সকাশে মোদি

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: June 23, 2016 7:13 pm|    Updated: June 23, 2016 7:13 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: তাসখন্দে যখন চিনা প্রেসিডেন্ট জি জিনপিংয়ের সঙ্গে বৈঠক শেষ করে উঠলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি, ততক্ষণে সিওলে শুরু হয়ে গিয়েছে নিউক্লিয়ার সাপ্লায়ার্স গ্রুপের বৈঠক৷ বিদেশমন্ত্রক সূত্রে খবর, চিনা প্রেসিডেন্টের কাছে বৃহস্পতিবার মোদি স্পষ্ট ভাষায় জানিয়ে দিয়েছেন, এনএসজি-তে ভারতের প্রবেশ নিয়ে সুষ্ঠু ও বিষয়ভিত্তিক মূল্যায়ণ করুক বেজিং৷ সিওলের বৈঠকেই আন্তর্জাতিক পরমাণু ক্লাবে ভারতের প্রবেশ নিশ্চিত হতে পারে৷

সাংহাই কো-অপারেশন অর্গানাইজেশন (এসসিও) গোষ্ঠীভুক্ত দেশগুলির বৈঠকে যোগ দিতে বৃহস্পতিবার তাসখন্দে পৌঁছেছেন মোদি৷ সেখানে উপস্থিত রয়েছেন চিনা প্রেসিডেণ্ট জি জিনপিং, রুশ প্রেসিডেন্ট পুতিন-সহ কাজাখস্তান, তাজিকিস্তান, উজবেকিস্তান, কিরঘিজস্তানের রাষ্ট্রপ্রধানরাও৷ এনএসজি-তে ভারতের অন্তর্ভুক্তি নিয়ে চিন যাতে কোনও ‘টেকনিক্যাল’ কারণ দেখিয়ে বাগড়া না দেয় সেজন্য জিনপিংয়ের সঙ্গে আজ একান্তে কথা বলেন মোদি৷ সেই বৈঠকেই এসসিও-তে ভারতের অন্তর্ভূক্তিকে চিন সমর্থন করায় প্রধানমন্ত্রী আজ প্রেসিডেন্ট জিনপিংকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেছেন৷ আজ সাংবাদিক বৈঠক করে এ কথা জানিয়েছেন বিদেশমন্ত্রকের মুখপাত্র বিকাশ স্বরূপ৷

যদিও চিন এখনও তাদের অবস্থানে অনড়৷ ভারত পরমাণু নিরস্ত্রীকরণ বা এনপিটি চুক্তিতে সই করেনি, তাই নিয়ম মেনেই এনএসজি-তে ভারতকে সদস্য করা যাবে না বলে চিন মনে করে৷ কিন্তু ভারতের পক্ষে একের পর এক দেশের সমর্থন এখন কোণঠাসা করে ফেলেছে বেজিংকে৷ চিনের মাথাব্যথা বাড়িয়ে ফ্রান্সও ঘোষণা করেছে, তারা এনএসজি-তে ভারতের সদস্যপদের দাবিকে সমর্থন করছে৷ আজ সিওলে এএসজি সদস্যভুক্ত ৪৮টি দেশের বৈঠকে চিন প্রবলভাবে ভারতের পাশাপাশি পাকিস্তানকেও সদস্য করার জন্য মরিয়া চেষ্টা চালায়৷ চিনের দাবি, এনপিটি-তে সই না করে ভারত যদি সদস্য হতে পারে তাহলে আরেক পরমাণু শক্তিধর দেশ পাকিস্তানকে কেন সদস্য করা হবে না? দক্ষিণ এশিয়ায় শক্তির ভারসাম্য রাখতে ভারতের সঙ্গে পাকিস্তানকেও করা হোক৷ যদিও চিনা দাবি এদিন তেমন গুরুত্ব পায়নি৷

ভারতের তরফে নিউক্লিয়ার সাপ্লায়ার্স গ্রুপের বৈঠকে যোগ দিতে বুধবার বিকেলে সিওলে পৌঁছে গিয়েছেন বিদেশসচিব৷ গত সোমবার থেকে সিওলে কার্যত ঘাঁটি গেড়ে বসে রয়েছেন বিদেশমন্ত্রকের ‘নিরস্ত্রীকরণ ও আন্তর্জাতিক নিরাপত্তা’ বিভাগের দায়িত্বপ্রাপ্ত সচিব আমনদীপ গিল৷ প্রতিনিধিদলের নেতা হিসাবে তিনি এনএসজি-তে ভারতের অন্তর্ভুক্তির দাবিতে জোরালো সওয়াল করছেন৷ কারণ, ভারত চায় সিওলের বৈঠকেই একটা হেস্তনেস্ত হোক৷ আমনদীপের চেষ্টাকে আরও জোরালোভাবে তুলে ধরতে ময়দানে নেমে পড়েছেন জয়শঙ্কর৷ ভারতের সদস্যপদের বিরোধিতা করছে যে দেশগুলি (তুরস্ক, দক্ষিণ আফ্রিকা, আয়ারল্যান্ড, নিউজিল্যান্ড) তাদের প্রতিনিধিদলের সদস্যদের বোঝানোর কাজ শুরু করেছেন তিনি৷ বিকাশ স্বরূপ আজ বলেন, “এনএসজি-তে প্রবেশ করতে আমাদের ধৈর্য ধরতে হবে, বুঝতে হবে প্রক্রিয়াটি জটিল৷”

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement