×

৪ ফাল্গুন  ১৪২৫  রবিবার ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: শিওরে লোকসভা নির্বাচন। শীঘ্রই ঘোষিত হবে নির্বাচনের দিনক্ষণ ও আচরণবিধি৷ আরও জোরদারে হবে দেশের নিরাপত্তা৷ কিন্তু তার আগেই চাঞ্চল্যকর রিপোর্ট পেশ করলেন মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থার প্রধান ড্যান কোটস। তিনি জানিয়েছেন, লোকসভা নির্বাচনের আগে ভারতের সাম্প্রদায়িক সম্প্রতি নষ্ট করার এবং নাশকতা ছড়ানোর ছক কষছে পাক মদতপুষ্ট জঙ্গিরা৷ একই ভাবে প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের আগে আফগানিস্তানেও হামলার ষড়যন্ত্র করছে তালিবান-সহ অন্য পাক জঙ্গি সংগঠনগুলি৷

[বিদেশি মুদ্রা পাচারের অভিযোগ, রাহাত ফতে আলি খানকে শোকজ ইডির]

প্রকাশিত রিপোর্টে ২০১৯-এ বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তের সম্ভাব্য অশান্তির তালিকা উল্লেখ করা হয়েছে৷ যাতে ভারতের নামও উল্লেখ করেছেন ড্যান কোটস। তিনি জানিয়েছেন, মোদি সরকারের প্রথম দফা সাম্প্রদায়িক উত্তেজনার মধ্যেই কেটেছে। বিজেপি নেতৃত্বাধীন বেশ কয়েকটি রাজ্যে হিন্দুত্ববাদের জিগির তুলে অল্পবিস্তর হিংসাও ছড়িয়েছে। এই সাম্প্রদায়িক দাঙ্গার আবহে ভারতের সংখ্যালঘু মুসলিমদের মধ্যে ইসলামি জঙ্গি গোষ্ঠীগুলি প্রভাব বিস্তার করার সুযোগ পেয়েছে। এই সম্ভাবনা আগামী মে মাসের মধ্যে আরও বাড়তে পারে। পাশাপাশি রিপোর্টে সতর্ক করা হয়েছে ভারত-পাকিস্তানের মধ্যেকার দ্বিপাক্ষীক সম্পর্ক নিয়েও। দুই দেশের নিয়ন্ত্রণরেখা বরাবর জঙ্গি কার্যকলাপ ক্রমেই বাড়ছে। যা ভারতের লোকসভা নির্বাচনের আগে আরও বাড়বে বলেও মার্কিন ওই গোয়েন্দা রিপোর্টে বলা হয়েছে।

[নজির পাকিস্তানে, প্রথম হিন্দু মহিলা বিচারক পদে সুমন]

২০১৯-এ আফগানিস্তানেও হতে চলেছে রাষ্ট্রপতি নির্বাচন। মার্কিন গোয়েন্দা রিপোর্টে বলাহয়েছে, ওই নির্বাচনের আগে সে দেশেও অস্থিরতা তৈরি করতে চাইছে তালিবান-সহ অন্যান্য পাক জঙ্গি গোষ্ঠীগুলি। জানা গিয়েছে, ইতিমধ্যে এই রিপোর্ট মার্কিন সেনেটের গোয়েন্দা সংক্রান্ত সিলেক্ট কমিটির কাছে জমা দিয়েছেন ড্যান কোটস। রিপোর্টে পাকিস্তানের সমালোচনা করে কোটস বলেছেন, সন্ত্রাসবাদ নিমূলে যথাযথ পদক্ষেপ নেয়নি পাকিস্তান৷ বরং জঙ্গি সংগঠনগুলিকে ভারত ও আফগানিস্তানের বিরুদ্ধে ব্যবহার করছে তারা। জঙ্গিগোষ্ঠীগুলির জন্য নিশ্চিন্তের বসবাস স্থলে পরিণত হয়েছে পাকিস্তান৷ তাদের জন্য যে জঙ্গি সংগঠনগুলি বিপজ্জনক, কেবল তাদের বিরুদ্ধেই ব্যবস্থা নিচ্ছে ইসলামাবাদ।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং