Advertisement
Advertisement
Israeli PM Netanyahu

গাজায় হামলার ঝাঁজ কমাতে চলেছে ইজরায়েল? নেতানিয়াহুর মন্তব্যে বড় ইঙ্গিত

হামাস নিধনে গোটা গাজা ভূখণ্ড গুঁড়িয়ে দিচ্ছে ইজরায়েল।

Intense fighting in Gaza is coming to end said Israeli PM Netanyahu
Published by: Suchinta Pal Chowdhury
  • Posted:June 24, 2024 8:14 pm
  • Updated:June 24, 2024 8:15 pm

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: আট মাস পেরিয়ে গিয়েছে। কিন্তু গাজায় রক্তের বন্যা থামেনি। গোটা গাজা ভূখণ্ডজুড়ে শুধু ধবংসের ছবি। স্বজনহারা কান্না, হাহাকার চারদিকে। প্রায় প্রতিদিনই ইজরায়েলি সেনার অভিযানে প্রাণ হারাচ্ছে সাধারণ মানুষ। রক্তক্ষয়ী এই সংঘাত থামানো নিয়ে ক্রমাগত ইজরায়েলের উপর চাপ বাড়াচ্ছে আন্তর্জাতিক মহল। এই পরিস্থিতিতে, ইজরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেঞ্জামিন নেতানিয়াহু জানিয়েছেন, গাজায় লড়াইয়ের তীব্রতা কমতে চলেছে। যুদ্ধ থামানো নিয়ে কী বললেন তিনি?  

হামাস নিধনে গত আট মাস ধরে গোটা গাজা ভূখণ্ড গুঁড়িয়ে দিচ্ছে তেল আভিভ। আন্তর্জাতিক আদালতের নির্দেশ, আমেরিকার হুঁশিয়ারি, বিভিন্ন দেশের হাজারো চাপ টলাতে পারছে না নেতানিয়াহুকে। নিজের সিদ্ধান্তেই অনড় তিনি। লক্ষ্য একটাই, হামাস জঙ্গিদের সমূলে নিধন। কিন্তু দিন দিন যেভাবে গাজায় মৃত্যুমিছিল তা নিয়ে ক্ষোভের সঞ্চার হচ্ছে ইজরায়েলের অন্দরে। রয়টার্স সূত্রে খবর, এর মাঝেই রবিবার ইজরায়েলের এক সংবাদমাধ্যমের সাক্ষাৎকারে প্রধানমন্ত্রী নেতানিয়াহু জানান, “আগামিদিনে গাজায় লড়াইয়ের তীব্রতা কমবে। কিন্তু এই যুদ্ধের অবসান হবে না। যতদিন না প্যালেস্তিনীয় ভূখণ্ড থেকে জঙ্গি সংগঠনটির নাম মুছে দেওয়া হচ্ছে ততদিন এই লড়াই চলবে।”

Advertisement

[আরও পড়ুন: পাকিস্তানে চরম নির্যাতনের শিকার সংখ্যালঘুরা, সংসদে মানল শাহবাজ সরকার

গাজার পাশাপাশি উত্তপ্ত হয়ে রয়েছে লেবানন সীমান্তও। সেখান থেকে ইজরায়েলে হামলা চালাচ্ছে ইরানের মদতপুষ্ট হেজবোল্লা। সশস্ত্র সংগঠনটিকে পালটা দিচ্ছে ইজরায়েলি ফৌজও। এই প্রসঙ্গেও সাক্ষাৎকারে কথা বলেন নেতানিয়াহু। তিনি জানান, “উত্তরে লেবানন সীমান্তে আমরা আরও সেনা মোতায়েন করব। ওখানে লড়াই চলছে হেজবোল্লার চলছে।”   

Advertisement

এদিকে, ইজরায়েলের অভিযানের ফলে গাজায় তীব্র হয়েছে ওষুধের সংকট। যা নিয়ে আশঙ্কা প্রকাশ করেছে বিভিন্ন আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংস্থাগুলো। গাজায় জারি রয়েছে মৃত্যুমিছিল। হাসপাতালগুলো উপচে পড়ছে মৃতদেহের ভিড়ে। আহতের সংখ্যাও দিন দিন বেড়েই চলেছে। ফলে সবকিছু সামাল দিকে হিমশিম খেতে হচ্ছে স্বাস্থ্যকেন্দ্রগুলোকে। এর মাঝেই এপ্রিল মাস থেকে দেখা দিয়েছে ওষুধের আকাল।

উল্লেখ্য, গত ৭ অক্টোবর ইজরায়েলর বুকে বেনজির হামলা চালায় প্যালেস্টাইনের জঙ্গি সংগঠন হামাস। যার বদলা নিতে গাজায় যুদ্ধ ঘোষণা করে দেন নেতানিয়াহু। তার পর থেকে জারি রয়েছে এই রক্তক্ষয়ী লড়াই। এই আট মাসে বহু হামাস নেতাকে খতম করেছে ইজরায়েলি ফৌজ। গুঁড়িয়ে দেওয়া হয়েছে জেহাদিদের ডেরা। কিন্তু এর মাঝেই ইজরায়েলি সেনার মুখপাত্র রিয়ার অ্যাডমিরাল ড্যানিয়েল হাগারি ইজরায়েলের এক সংবাদমাধ্যমে জানান, “হামাস একটা আদর্শ। আমরা কখনও আদর্শকে মুছে ফেলতে পারব না। তবে ইজরায়েলি প্রতিরক্ষা বাহিনী নিজেদের লক্ষ্যে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।” তাঁর এই বক্তব্যের পরই প্রতিক্রিয়া দেয় ইজরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেঞ্জামিন নেতানিয়াহুর কার্যালয়। সাফ জানিয়ে দেওয়া হয়েছে, হামাসের পরাজয় না হওয়া পর্যন্ত গাজায় লড়াই চলবে।

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ