BREAKING NEWS

০৯ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৯  বুধবার ২৫ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

এই কাজটা করেই নেটদুনিয়ায় খোরাক হলেন মাইক পেন্স

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: July 11, 2017 8:46 am|    Updated: July 11, 2017 8:46 am

Internet Explodes After Mike Pence Touches Flight Hardware Labeled 'DO NOT TOUCH'

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: তাঁর একাধিক পদক্ষেপ এবং মন্তব্যে দুনিয়া জুড়ে সমালোচনার শিকার মার্কিন প্রেসিডেন্ট। তবে তাঁর ডেপুটি বরাবর বিতর্কহীন। একেবারে শান্তশিষ্ট, মাথা ঠান্ডা। ডোনাল্ড ট্রাম্প যখনই কাদায় পড়েছেন, তুলে আনার দায়িত্ব নিয়েছেন তাঁর ডেপুটি। এহেন ভদ্রলোক গোল বাঁধিয়ে বসলেন। নাসার স্পেস সেন্টারে গিয়েছিলেন মাইক পেন্স। সেখানে গুরুত্বপূর্ণ একটি জায়গা লেখা ছিল DO NOT TOUCH। ছবিতে দেখা যায় পেন্স আবেদনের তোয়াক্কা করেননি। নির্দ্বিধায় ওই স্পর্শকাতর জায়গায় হাত দেন। এই ছবি প্রকাশ্যে আসার পর নেট দুনিয়ায় নিন্দিত হয়েছেন মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্ট। এব্যাপারে নাসার বিবৃতিতে বিতর্কে আরও বেড়েছে। নাসা বিষয়টি সমর্থন করায় মহাকাশ গবেষণা কেন্দ্রের গোপনীয়তা নিয়ে অনেকে প্রশ্ন তুলেছেন।

[হুইস্কি থেকে জ্বালানি, টলবে না এই গাড়ি]

DO NOT TOUCH। এই একটি শব্দ এখন মাইক পেন্সের মাথাব্যথা। কারণ, ফ্লোরিডার নাসার কেনেডি স্পেস সেন্টারে গিয়ে তা যা কাণ্ড ঘটিয়েছেন তাতে স্পষ্ট লক্ষ্মণরেখা মানতে শেখেননি মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্ট। নাসার ওরিয়ন স্পেসক্র্যাফটের পাশে ছিলেন ডোনাল্ড ট্রাম্পের ডেপুটি। ওই জায়গায় লেখা ছিল স্পর্শ করবেন না। কোনও কারণে পেন্সের কৌতুহল মিটছিল না। নাসার গবেষক এবং বিজ্ঞানীদের মাঝেই তিনি ওই স্পর্শকাতর জায়গায় একাধিকবার হাত ছোঁয়ান। বেসরকারি সংবাদ সংস্থার ক্যামেরাপার্সন গোটা ঘটনা লেন্সবন্দি করেন। নেট দুনিয়ায় দ্রুত তা ভাইরাল হয়ে যায়। অনেকেই পেন্সের কাণ্ডজ্ঞান নিয়ে প্রশ্ন তোলেন। এরপর নাসা একটি বিবৃতি দেয়। আন্তর্জাতিক মহাকাশ গবেষণা কেন্দ্র জানায়, বড় কোনও ভুল করেননি পেন্স। মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্ট স্পেস সেন্টারে আসায় তারা কৃতজ্ঞ বলেও জানায় নাসা। ড্যামেজ কন্ট্রোলে নাসার এই বিবৃতি নিয়ে কম সমালোচনা হয়নি। কারও মতে, নাসার এই বক্তব্য দেখিয়ে দিল আম আদমি ও খাস আদমির ফারাক।

[আমেরিকাকে পরমাণু যুদ্ধের হুঁশিয়ারি উত্তর কোরিয়ার]

কিছু দিন আগে মাইক পেন্স জানিয়েছিলেন, স্ত্রী ছাড়া কারও সঙ্গে তিনি ডিনার করতে পছন্দ করেন না। পেন্সকে একহাত নিতে গিয়ে কেউ কেউ এই প্রসঙ্গও তুলেছেন। কারও বক্তব্য, স্ত্রী যেন পেন্সের কাছে মায়ের মতো। এই সূত্র ধরে তাদের টিপ্পনি নাসায় পেন্সের সঙ্গে স্ত্রী ছিলেন না। বকাঝকার কেউ নেই। এই সুযোগে মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্ট হাত দিয়ে ফেলেন। জল অনেকটা গড়াচ্ছে দেখে টুইট করে পেন্স জানান, তিনি ভুল করেছেন। তবে অজ্ঞতার দায় তাঁর একার নয়।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে