৭ শ্রাবণ  ১৪২৬  মঙ্গলবার ২৩ জুলাই ২০১৯ 

Menu Logo বিলেতে বিশ্বযুদ্ধ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মুখে শান্তির কথা বললেও, এখনও সন্ত্রাসবাদের পক্ষেই রয়েছে পাকিস্তান৷ সূত্রের খবর, ভারতের উদ্যোগে জইশ, হিজবুল, লস্করের বিরুদ্ধে যেভাবে সরব হয়েছে আন্তর্জাতিক মহল, তাতে যথেষ্ট চাপে পড়েছে রাওয়ালপিণ্ডি৷ এবং সেই চাপ কমাতে এবার নয়া ষড়যন্ত্র করছে আইএসআই৷ ভারতীয় গোয়েন্দারা জানাচ্ছেন, ভারতে নাশকতার লক্ষ্যে এবার আটটি ছোট সন্ত্রাসবাদী সংগঠনকে মদত দিচ্ছে পাক গুপ্তচর সংস্থা৷ আর্থিক সাহায্যের পাশাপাশি, এই সংগঠনগুলির জঙ্গিদের প্রশিক্ষণেরও ব্যবস্থা করছে আইএসআই৷

[ আরও পড়ুন: সাদা গাড়ি চড়ে এসে আততায়ীর গুলি, পাকিস্তানে ফের খুন সাংবাদিক ]

গোয়েন্দা সূত্রে খবর, সিপাহ-ই-সাহাবা, জইশ-উল-আদল, লস্কর-ই-ওমর, আল-বদর, লস্কর-ই-জাঙ্গভি, তেহরিক-ই-মুজাহিদিন ও আল-উমর-মুজাহিদিনের মতো- আটটি জঙ্গি সংগঠনকে সাহায্য করছে পাক গুপ্তচর সংস্থা৷ এর কারণ হিসাবে ব্যাখ্যাও দিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা৷ তাঁদের মতে যেভাবে লস্কর, জইশ ও হিজবুলের বিরুদ্ধে আন্তর্জাতিক মহলে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে সরব হয়েছে ভারত, তাতে কার্যত নাজেহাল আইএসআই৷ এই পরিস্থিতিতে যেকোনও উপায়ে ভারতকে পালটা চাপে ফেলতে চাইছিল তারা৷ সেজন্যই এই আটটি ছোট সন্ত্রাসবাদী সংগঠনকে এবার ভারতবিরোধী লড়াইয়ে সাহায্য করার কৌশল নিয়েছে পাক গুপ্তচর সংস্থা৷ হিজবুল, লস্কর ও জইশের মতোই এই সংগঠনগুলির জঙ্গিদেরও প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করছে রাওয়ালপিণ্ডি৷ সংগঠনগুলিকে তারা দিচ্ছে আর্থিক সাহায্যও৷

[ আরও পড়ুন: অফ শোল্ডার পোশাক পরা মহিলাকে বিমানে উঠতে বাধা, কাঠগড়ায় আমেরিকান এয়ারলাইন্স ]

প্রসঙ্গত, আমেরিকা, ফ্রান্স, ইংল্যান্ড-সহ অন্যান্যদের সহায়তায় চলতি বছরই জঙ্গি মাসুদ আজহারকে আন্তর্জাতিক জঙ্গির তকমা দিয়েছে রাষ্ট্রসংঘ৷ দীর্ঘ টালবাহানার পর যে প্রস্তাবকে সমর্থন করেছে পাকিস্তানের সব ঋতুর বন্ধু চিনও৷ এছাড়া গত বছরের জুন মাসেই পাকিস্তানকে ‘ধূসর তালিকাভুক্ত’ করেছিল এফএটিএফ। সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে পাকিস্তানকে ইতিমধ্যেই চরম হুঁশিয়ারি দিয়েছে ‘দ্য ফিনান্সিয়াল অ্যাকশন টাস্ক ফোর্স’ (এফএটিএফ)। ইমরান প্রশাসন ও পাক সেনাকে নির্দিষ্ট সময়সীমা বেঁধে দিয়ে এফএটিএফ-এর কড়া বার্তা, আগামী চার মাসের মধ্যে রাষ্ট্রপুঞ্জের নির্ধারিত জঙ্গিদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে হবে ইসলামাবাদ ও রাওয়ালপিণ্ডিকে। না হলে কালো তালিকাভুক্ত করা হবে পাকিস্তানকে।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং