BREAKING NEWS

৭ আশ্বিন  ১৪২৭  শুক্রবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

বেজে গেল যুদ্ধের দামামা, আমেরিকার পর ইজরায়েলি মিসাইলের নিশানায় সিরিয়া

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: January 10, 2018 10:08 am|    Updated: January 10, 2018 10:08 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সিরিয়ার দিকে একের পর এক ৫৯টি টোমাহক মিসাইল ছুড়েছিল মার্কিন সেনা। আর এবার ফের একবার বিদেশি মিসাইলের নিশানায় সিরিয়া। তবে এবার আর আমেরিকা নয়, ‘হামলা’ চালিয়েছে ইজরায়েল। এমনটাই দাবি সিরীয় সেনার।

[মধুচন্দ্রিমা শেষ, এবার আমেরিকার সঙ্গে সম্পর্ক না রাখার সিদ্ধান্ত পাকিস্তানের]

মঙ্গলবার সিরিয়ার রাজধানী দামাস্কাসে হামলা চালিয়েছে ইজরায়েল, দাবি সিরিয়ার সরকারি বাহিনীর। ইজরায়েলি সেনা গ্রাউন্ড টু গ্রাউন্ড মিসাইল, যুদ্ধবিমান সহযোগে হানা দেয়। একের পর বোমা আছড়ে পড়ে দামাস্কাসের মাটিতে। যদিও ইজরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেনজামিন নেতানিয়াহু হামলার সত্যতা স্বীকার করেননি। তিনি অবশ্য এই দাবি উড়িয়েও দেননি। সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে তিনি জানান, লেবাননে হিজবুল্লাহকে শক্তিশালী হতে দেবে না ইজরায়েল। তার জন্য কোনও ‘অ্যাকশন’ দরকার হলে পিছপা হবে না ইজরায়েল। এই হিজবুল্লাহকেই আবার সমর্থন দেওয়ার অভিযোগ রয়েছে সিরিয়ার বাশার আল-আসাদ সরকারের বিরুদ্ধে।

[আমেরিকায় কর্মরত ভারতীয়দের জন্য সুখবর, পরিবর্তন নয়  H-1B ভিসায়]

সিরীয় সরকার সূত্রে এক বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, দামাস্কাসের কাছে ইজরায়েলি যুদ্ধবিমান থেকে মিসাইল হামলা চালানো হয়েছে। পালটা সিরিয়ার সেনাও মিসাইল ছুড়লে একটি ইজরায়েলি যুদ্ধবিমান ক্ষতিগ্রস্ত হয়। শুধু মিসাইল হামলা নয়, ইজরায়েলি সেনা গ্রাউন্ড টু গ্রাউন্ড মিসাইলও ছোড়ে বলে অভিযোগ। ইজরায়েল অধিকৃত গোলান হাইটস থেকে এই হামলা চলে। যদিও টার্গেটে আঘাত করার আগেই ওই মিসাইলগুলি ধ্বংস করে ফেলেছে তাদের সেনা, দাবি সিরিয়ার। তবে এই হামলা খুব একটা অপ্রত্যাশিত ছিল না সিরিয়ার কাছে। ইজরায়েল বেশ কিছুদিন ধরেই বাশার সরকারকে সতর্ক করে যাচ্ছিল সিরিয়াতে হিজবুল্লাহর অবাধ বিচরণের উপর। সিরিয়ার গৃহযুদ্ধে আসাদের সঙ্গে ঘনিষ্ঠভাবে কাজ করে চলেছে হিজবুল্লাহ, বারবার এই দাবি করে এসেছে ইজরায়েল। তবে ইজরায়েলের এই পদক্ষেপকে আগ্রাসী বলে মন্তব্য করেছে সিরিয়া। ভবিষ্যতে ফলাফলের জন্য ইজরায়েলকে প্রস্তুত থাকতে হবে বলে সতর্ক করে দিয়েছে বাশার সরকার।

[হাড়হিম করা শীতেও বাঙালির পাতে মিলবে খাস পদ্মার ইলিশ]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement