BREAKING NEWS

২ আশ্বিন  ১৪২৭  শনিবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

খারিজ নীরব মোদির জামিনের আবেদন, জেলেই থাকছেন ‘হীরক রাজা’

Published by: Tanujit Das |    Posted: April 26, 2019 5:37 pm|    Updated: April 26, 2019 5:37 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: চাপ বাড়ল নীরব মোদির৷ পলাতক এই হীরে ব্যবসায়ীর জামিনের আবেদন খারিজ করল ব্রিটেনের আদালত৷ পিএনবি ব্যাংক প্রতারণা কাণ্ডে এই  ব্যবসায়ীকে জেল হেফাজতে রাখার নির্দেশ দিয়েছেন চিফ ম্যাজিস্ট্রেট এমা আরবিথনট৷ আগামী ২৪ মে পর্যন্ত জেল হেফাজতে রাখা হবে তাঁকে৷ তারপর হবে পরবর্তী শুনানি৷

[ আরও পড়ুন: কলম্বোর আত্মঘাতী জঙ্গিই মূলচক্রী, দেহ শনাক্ত করে রিপোর্ট গোয়েন্দা দপ্তরের ]

জানা গিয়েছে, এদিন ওয়ান্ডসওর্থ প্রিজন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে আদালতের সঙ্গে যুক্ত হন নীরব মোদি৷ নিজের পরিচয় দেওয়া ছাড়া গোটা সওয়াল-জবাব পর্বে আর একটাও কথা বলেননি তিনি৷ প্রতারণার ছাড়াও নীরবের বিরুদ্ধে আরও কয়েকটি অভিযোগ উঠেছে৷ এক প্রত্যক্ষদর্শীকে খুনের হুমকি দেওয়ার পাশাপাশি, আরও এক সাক্ষীকে ২০ লক্ষ টাকা ঘুষ দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে তাঁর বিরুদ্ধে৷ পাশাপাশি, নীরবের অন্য দেশে পালিয়ে যাওয়ার বিষয়েও আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন আইনজীবী মহল৷ এর আগেও তাঁর জামিনের আবেদন খারিজ করেছে লন্ডনের আদালত। এই নিয়ে তৃতীয়বার আবেদন খারিজ হল৷

[ আরও পড়ুন: আমেরিকা-ইরান দ্বৈরথে বাড়ছে তেলের দাম, উদ্বিগ্ন ভারত ]

প্রসঙ্গত, ২০১৮ সালের আগস্ট মাসে পাঞ্জাব ন্যাশনাল ব্যাংকে ১৪ হাজার কোটি টাকা কেলেঙ্কারি মামলায় নীরব মোদির প্রত্যর্পণের জন্য ব্রিটিশ সরকারকে অনুরোধ করে এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট। নীরবকে লন্ডনে দেখা যাওয়ার পরেই তাঁকে দেশে ফেরাতে সচেষ্ট হয় ভারত। হীরে ব্যবসায়ী নীরবকে ভারতে প্রত্যর্পণ করার বিষয়টি আদালতে পাঠান ব্রিটিশ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সাজিদ জাভিদ। নীরব এবং তাঁর আত্মীয় মেহুল চোকসির বিরুদ্ধে পাঞ্জাব ন্যাশনাল ব্যাংকের মুম্বইয়ের ব্র্যাডি হাউস শাখা থেকে থেকে প্রায় ১৪ হাজার কোটি টাকার জালিয়াতি করার অভিযোগ উঠেছে। ওই মামলার তদন্ত শুরু হওয়ার আগেই দেশ ছাড়েন দু’জনে। এই মামলায় এখনও নীরব মোদির এক হাজার ৮৭৩ কোটি টাকার সম্পত্তি বাজেয়াপ্তও করেছে ইডি।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement