BREAKING NEWS

২৩  শ্রাবণ  ১৪২৯  মঙ্গলবার ৯ আগস্ট ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

জন্মাষ্টমীর দিনই পাকিস্তানের মন্দিরে দুষ্কৃতীদের হামলা, ভাঙা হল কৃষ্ণমূর্তি!

Published by: Suparna Majumder |    Posted: August 31, 2021 9:15 am|    Updated: August 31, 2021 12:15 pm

Lord Krishna Temple allegedly vandalised in Pakistan's Sindh on Janmashtami | Sangbad Pratidin

ছবি - প্রতীকী

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ফের পাকিস্তানে হিন্দু মন্দির ভাঙার অভিযোগ উঠল। এর আগে সিদ্ধি বিনায়ক মন্দির (Siddhivinayak Temple) ভাঙাকে কেন্দ্র করে বিতর্কের সৃষ্টি হয়েছিল। এবার কৃষ্ণ মন্দির (Lord Krishna Temple) ভাঙার অভিযোগ উঠল। তাও আবার জন্মাষ্টমীর (Janmashtami 2021) দিনে।

Lord Krishna Temple allegedly vandalised in Pakistan's Sindh on Janmashtami

টুইটারে একটি ভিডিও আপলোড করে খবরটি জানান প্রবাসী পাকিস্তানি রাহাত জন অস্টিন (Rahat John Austin)। সমাজকর্মী রাহাত পাকিস্তানের সংখ্যালঘু খ্রিস্টান সম্প্রদায়ের। এখন থাকেন দক্ষিণ কোরিয়ায়। টুইটারে তিনি জানান, পাকিস্তানের (Pakistan) সিন্ধ এলাকায় খিপ্র নামের একটি স্থানে ওই কৃষ্ণ মন্দির ছিল। জন্মাষ্টমীর দিন তা ভেঙে দেওয়া হয়েছে। শুধু তাই নয়, কৃষ্ণ মূর্তিও ভাঙা হয়েছে বলেও টুইটারে অভিযোগ করেন রাহাত।

Rahat John Austin tweet

[আরও পড়ুন: ডেডলাইন শেষের আগেই Afghanistan ছাড়ল মার্কিন সেনা, ‘পূর্ণ স্বাধীনতা’ দেখছে Taliban]

একাধিক টুইট করেছেন রাহাত। তাতে তিনি ক্ষোভ প্রকাশ করে জানান, একদিকে ইসলামের বিরুদ্ধে বিদ্রোহ করার ভুয়ো অভিযোগে হেনস্তা করা হয়, অন্যদিকে অমুসলিম দেবতার অসম্মান করেও পার পেয়ে যায় কিছু মানুষ। যে ভিডিও রাহাত শেয়ার করেছেন, তাতে একাধিক দুষ্কৃতীকে ঘটনাস্থলে দেখা যাচ্ছে। অভিযোগ, দলবেঁধে মন্দিরে তাণ্ডব চালিয়েছে দুষ্কৃতীরা। একটি টুইটে রাহাত আবার জানান, তাঁর কিছু বন্ধু দাবি করেছেন, ওই জায়গাটি শুধুমাত্র হিন্দুদের অস্থায়ী প্রার্থনার স্থান ছিল। কিন্তু রাহাতের দাবি, যে ভিডিও তিনি আপলোড করেছেন, তাতে রিপোর্টার পরিষ্কার মন্দির শব্দটি উচ্চারণ করেছেন।

Lord Krishna Temple allegedly vandalised in Pakistan's Sindh on Janmashtami

কিছুদিন আগেই পাকিস্তানের পাঞ্জাব প্রদেশের সাদিকাবাদ জেলার ভঙ্গ শরিফ গ্রামের সিদ্ধি বিনায়ক মন্দিরের ভিতরে হামলা চালায় দুষ্কৃতীরা। এক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমের সূত্রে জানা যায়, এক সোশ্যাল মিডিয়ার উসকানিমূলক পোস্ট থেকে উত্তেজিত হয়ে লোহার রড, লাঠি, পাথর হাতে দুষ্কৃতীরা দল বেঁধে চড়াও হয় ওই মন্দিরে। ঘটনার নিন্দায় সরব হয়েছিল পাকিস্তানের সুপ্রিম কোর্ট (Pakistan Supreme Court)। চাপে পড়ে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে পদক্ষেপের পাশাপাশি মন্দিরটি দ্রুত মেরামতির প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান (Imran Khan)। সেইমতো পাঞ্জাব প্রদেশের ক্ষতিগ্রস্ত মন্দিরটি ফের সারিয়ে স্থানীয় হিন্দুদের হাতে তুলে দেয় স্থানীয় প্রশাসন।

[আরও পড়ুন: সঞ্চালকের মাথায় ঠেকানো বন্দুক, খবরের চ্যানেলে নিজেদের ‘স্তুতি’ শোনাতে বাধ্য করল তালিবান]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে