৯ আশ্বিন  ১৪২৭  রবিবার ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

ফের সার্জিক্যাল স্ট্রাইকের ভয়! মাসুদ আজহারকে রাওয়ালপিন্ডির গোপন ডেরায় সরাল পাকিস্তান

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: March 9, 2020 3:07 pm|    Updated: March 9, 2020 3:09 pm

An Images

ফাইল ফটো

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: তালিবানের সঙ্গে চুক্তি করার পর আমেরিকাকে ‘ল্যাজকাটা শিয়াল’ (wolf whose tail was cut) বলে কটাক্ষ করেছিল। তারপর থেকেই কুখ্যাত জঙ্গি সংগঠন জইশ-ই-মহম্মদ প্রধান মাসুদ আজহারের নিরাপত্তা নিয়ে চিন্তিত হয়ে পড়েছিল পাকিস্তান। কয়েক বছর আগে অ্যাবোটাবাদের নিরাপদ আশ্রয়ে থাকা আল কায়দা প্রধান ওসামা বিন লাদেনকে সার্জিক্যাল স্ট্রাইক করে খতম করেছিল আমেরিকা। ফের সেই ঘটনাই মাসুদ আজহারের সঙ্গে ঘটতে পারে বলে আশঙ্কা হয় ইমরান খানের সরকারের। তড়িঘড়ি তাই জইশ প্রধানকে বাহাওয়ালপুরের বিলাসবহুল প্রাসাদ থেকে রাওয়ালপিন্ডির একটি নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নিয়ে গিয়েছে ইসলামাবাদ। এমনটাই জানা গেল ভারতের গোয়েন্দা সংস্থাগুলি সূত্রে।

গোয়েন্দা সূত্রে আরও জানা গিয়েছে, গত বছরের আগস্ট মাসে কাশ্মীর থেকে ৩৭০ ধারা প্রত্যাহারের পরেই ভারতে নাশকতা চালাতে মরিয়া হয়ে ওঠে পাকিস্তান। ইমরান খান থেকে শুরু করে ছোট-বড় সব রাজনৈতিক নেতাই ভারতে হামলা চালানোর পক্ষে সওয়াল করে। এমনকী পাকিস্তানের সংসদে ভারতের সঙ্গে যুদ্ধ শুরু করারও দাবি ওঠে। যদিও সেই সাহস দেখাতে পারেনি তারা। বাগযুদ্ধ ও জঙ্গি অনুপ্রবেশের চেষ্টার মধ্যে সীমাবদ্ধ ছিল। তবে আফগানিস্তান ও পাক অধিকৃত কাশ্মীরের যুব সম্প্রদায়কে ভুল বুঝিয়ে জঙ্গি কার্যকলাপে নামানোর চেষ্টা করছে। এরজন্য পাক অধিকৃত কাশ্মীরের বিভিন্ন জায়গায় প্রশিক্ষণ শিবিরও খুলেছে।

[আরও পড়ুন: উত্তর কোরিয়ায় করোনা আতঙ্কের মাঝেই ফের মিসাইল ছুঁড়ল কিমের ফৌজ ]

তবে আমেরিকার বিরুদ্ধে মাসুদের আলটপকা মন্তব্যের পরেই ভয় পেয়ে যায় ইসলামাবাদ। মাসুদকে রক্ষা করার জন্য তৎপর হয়ে ওঠে ISI ও পাকিস্তানের সেনাবাহিনী। তারপরই মাসুদ আজহার ও তার ভাই মৌলনা রউফ আসগরকে বাহাওয়ালপুরের প্রাসাদ থেকে সরিয়ে রাওয়ালপিন্ডির নিরাপদ আশ্রয়ে পাঠিয়ে দেয়। তার ব্যক্তিগত নিরাপত্তার জন্য এই সিদ্ধান্ত নিয়ে বাধ্য হয়েছে পাকিস্তান। তার সঙ্গে জইশের আরও কয়েকজন জঙ্গিকেও রাখা হয়েছে।

[আরও পড়ুন: চিন থেকেই শুরু ফিরে আসার লড়াই, করোনাকে হারিয়ে জীবনযুদ্ধে জয়ী শতায়ু বৃদ্ধ]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement