৪ মাঘ  ১৪২৫  শনিবার ১৯ জানুয়ারি ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও ফিরে দেখা ২০১৮ ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিন ডিজিটাল ডেস্ক: শাক দিয়ে কি আর মাছ ঢাকা যায়? আর এ তো খোদ রাজ পরিবারের দুই জায়ের লড়াই। আটকানোর অনেক চেষ্টা করলেও শেষমেশ বেরিয়েই পড়ল রাজ পরিবারের কোন্দল। ব্রিটেনের রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের দুই নাতবউ ডাচেস অফ কেমব্রিজ কেট মিডলটন আর ডাচেস অফ সাসেক্স মেগান মর্কেলের ঝগড়ায় ঘুম ছুটেছে রাজ পরিবারের।

[‘সার্জিক্যাল স্ট্রাইক মনগড়া কল্পনা’, মোদির দাবি উড়িয়ে বিবৃতি পাকিস্তানের ]

সম্প্রতি একটি সাক্ষাৎকারে মেগান সম্পর্কে কেট বলেছেন, “মেগান তাঁর সাহায্য নিয়েই রাজকীয় মর্যাদার সিঁড়িতে সফলভাবে চড়েছিলেন। আর এখন তাঁর প্রতি ডাচেস অফ সাসেক্স-এর যে আচরণ, তাতে স্পষ্ট যে, রাজপরিবারের ঘনিষ্ঠ হওয়ার জন্য মেগান তাঁকে ব্যবহার করেছিলেন।” ডাচেস অফ কেমব্রিজের অভিযোগের জবাবে মেগান বলেছেন, “বিয়ের পর কেট তাঁর সঙ্গে যেমন ব্যবহার করেছেন, তাতে তাঁর মনে হয়েছে, কেট তাঁকে অবজ্ঞা করছেন।”বাকিংহামের এই দুই বউরানির মধ্যে যে সদ্ভাব নেই, তা এতদিনে শুধু ব্রিটেন কেন, গোটা বিশ্ব জেনে গিয়েছে। ছোট রাজপুত্র হ্যারির সঙ্গে মেগানের বিয়ের কিছুদিন পর থেকেই শুরু হয় ব্যাপারটা। সেই ইস্তক কেট আর মেগানকে একসঙ্গে একফ্রেমে বন্দি করতে কালঘাম ছুটে গিয়েছে ছবি শিকারিদের। তা-ও দু’জনের মনোমালিন্য পর্দার আড়ালেই রাখার চেষ্টা করছিল রাজ পরিবার। কিন্তু, সেই আড়াল সরিয়ে এবার সর্বসমক্ষেই ঝগড়া জুড়লেন বাকিংহাম রাজ প্রাসাদের দুই বহুরানির। এ বলে ওর দোষ, ও বলে এর!

[অর্থ না পেলে ফাঁস হবে ৯/১১-র গোপন নথি, হুমকি হ্যাকারদের]

মেগান মর্কেলের অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার সময় থেকেই দু’জনের ঝগড়ার বিষয়টি সামনে আসতে শুরু করে। সন্তানসম্ভবা মেগান কেনসিংটন প্যালেস ছেড়ে হ্যারির সঙ্গে উইন্ডসর দুর্গের ফ্রগমোর কটেজে সংসার পাতার সিদ্ধান্ত নেন, তখনই নিশ্চিত হয়ে যান সকলে। তবে গোলমালটা পেকেছিল তার অনেক আগে থেকেই।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং