BREAKING NEWS

১ আশ্বিন  ১৪২৭  শুক্রবার ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

যৌনদাসী বানানোর ছক, পাকিস্তানে ফের হিন্দু নাবালিকাকে জোর করে ধর্মান্তকরণ

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: May 14, 2020 3:06 pm|    Updated: May 14, 2020 3:06 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: করোনাতঙ্কের মধ্যে দিন কাটাচ্ছেন বিশ্ববাসী। বিভিন্ন দেশে চলা মৃত্যু মিছিলের মাঝেই এই মারণ ভাইরাসের প্রতিষেধক খোঁজার চেষ্টা চালাচ্ছেন গবেষকরা। আর এই সবের মাঝেই পাকিস্তানের মাটিতে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে হিন্দুদের উপর অত্যাচারের ঘটনা। তাঁদের রেশন না দেওয়ার পাশাপাশি বাড়ির মেয়েদের জোর করে তুলে নিয়ে গিয়ে জোর করে ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করানোর ঘটনাও বৃদ্ধি পেয়েছে। সম্প্রতি এই ধরনের ঘটনার একটি ভিডিও পোস্ট করেন পাকিস্তানের এক সাংবাদিক ও সমাজসেবী রাহাত অস্টিন।

ভিডিওটি পোস্ট করে এই বিষয়ে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রীকে ব্যবস্থা নেওয়া অনুরোধ জানিয়েছেন তিনি। তাঁর অভিযোগ, সারা বিশ্ব করোনার বিরুদ্ধে যুদ্ধ ব্যস্ত থাকলেও পাকিস্তানে হিন্দুদের উপর অত্যাচারের ঘটনা আরও বেড়ে গিয়েছে। জোর করে তাঁদের মেয়েদের ধর্মান্তকরণ করে বিয়ে করা হচ্ছে। সম্প্রতি সিন্ধুপ্রদেশের ঘোটকী এলাকায় কবিতা কুমারী নামে ১৩ বছরের এক হিন্দু নাবালিকাকে অপহরণের পর জোর করে ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করতে বাধ্য করে মিঞাঁ মিঠু নামে এক কুখ্যাত ধর্মীয় নেতা।

[আরও পড়ুন: জঙ্গিদের বোমায় ছিন্নভিন্ন সদ্যোজাত শিশুরা, ক্ষোভে ফুঁসছে আফগানিস্তান ]

ভিডিওটিতে দেখা যাচ্ছে, কবিতা কুমারী নামে ওই নাবালিকা একটি চেয়ার বসে রয়েছে আর সামনের চেয়ারে বসে তাকে ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করাচ্ছে ওই মৌলবাদী নেতা। জানা গিয়েছে, হিন্দু যুবতী, কিশোরী ও নাবালিকাদের অপহরণের পর জোর করে ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করতে বাধ্য করে মিঞাঁ মিঠু। তারপর তাদের যৌনদাসী হিসেবে ব্যবহার করার জন্য বিভিন্ন জঙ্গি সংগঠনের হাতে তুলে দেয়। নিজের বিকৃত যৌনবাসনা মেটানোর জন্য অনেক মেয়েকে নিজের বাড়িতেও আটকে রাখে সে। স্থানীয় হিন্দুদের অভিযোগ, এখনও পর্যন্ত এক হাজারের বেশি হিন্দু মেয়ের জীবন নষ্ট করেছে এই শয়তান।

[আরও পড়ুন: ‘এ বিপদ হয়তো কোনওদিন যাওয়ার নয়’, করোনা নিয়ে ফের সতর্কবার্তা WHO’র]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement