BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  রবিবার ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

সেলফি তুলে বিপাকে, দেশ ছাড়তে বাধ্য হলেন সেরা সুন্দরী

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: December 16, 2017 3:31 pm|    Updated: September 19, 2019 12:12 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: শত্রুতা কোন পর্যায়ে গেলে নিজের দেশের সেরা সুন্দরীকেও দেশছাড়া করা হয়, এবার তার প্রমাণ রাখল ইরাক। ‘শত্রু’ দেশ ইজরায়েলের সেরা সুন্দরী অ্যাডার গ্যান্ডেলসম্যানের সঙ্গে কেন এক ফটোতে সেদেশের মডেল? এই প্রশ্ন তুলেই সপরিবারে দেশ ছাড়তে বাধ্য করা হল সম্প্রতি মিস ইরাক খ্যাতি প্রাপ্ত সারা ইডানকে। শুনতে অবাক লাগলেও এমনটাই ঘটেছে যুদ্ধবিধ্বস্ত ইরাকে। যারপরই তৈরি হয়েছে নয়া বিতর্ক।

[রাম-সীতার ‘ডিভোর্স’ কি মেনে নেবে সেন্সর? চিন্তায় পরিচালক রঞ্জন]

সম্প্রতি জেরুজালেমকে ইজরায়েলের রাজধানীর স্বীকৃতি দিয়েছিল আমেরিকা। যার পর থেকেই মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের উপর ক্ষোভ উগড়ে দেয় বিশ্বের বহু দেশ। যদিও রাষ্ট্রপুঞ্জ ট্রাম্পের সেই ঘোষণা রদ করে দেয়। এদিকে, সিরিয়া, লিবিয়া, ইরাক-সহ বিভিন্ন দেশের সঙ্গেই ইজরায়েলের সম্পর্ক খারাপ। আর তারই রেশ এসে পড়ল সারার ছবিতে। সম্প্রতি টোকিওতে অনুষ্ঠিত মিস ইউনিভার্স প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়েছিলেন সারা এবং অ্যাডার। সেখানেই এক ফ্রেমে সেলফি তুলেছিলেন দুই মডেল। এরপর নিজের ইনস্টাগ্রামে সেই ছবি পোস্ট করেন সারা। সঙ্গে লেখেন, ‘ভালবাসা এবং শান্তি মিস ইরাক এবং মিস ইজরায়েলের তরফ থেকে।’ কিন্তু সোশ্যাল মিডিয়ায় সেই ছবি পোস্ট করতেই গোটা দেশের কাছে কার্যত ‘ভিলেন’ বনে যান সারা। একের পর খারাপ মন্তব্য আসতে থাকে। এমনকী সারাকে খুনের হুমকিও দেওয়া হয়। এরপরই সপরিবারে ইরাক ছাড়তে বাধ্য হন সারা।

israel

[জারি গ্রেপ্তারি পরোয়ানা, বিপাকে বিগ বস-এর এই প্রতিযোগী]

তবে যে পোস্ট নিয়ে এত তোলপাড় হল, সেই ফটো এখনও নিজের প্রোফাইল থেকে তোলেননি সারা। পাশাপাশি অ্যাডারকে জানিয়েছেন, এই ছবি তোলার জন্য তিনি বিন্দুমাত্রও লজ্জিত নন। সেই সঙ্গে একটি পোস্টে লেখেন, ‘দুই দেশের মধ্যে শান্তি এবং ভালবাসার সম্পর্ক স্থাপন করতেই ছবিটি পোস্ট করা হয়েছে।’ সেইসঙ্গে তিনি আরও যোগ করেছেন, ‘ছবি তোলার অর্থ এই নয় যে, তিনি ইজারায়েল সরকারকে সমর্থন করছেন। এই ছবিটি দেখে যাঁরা দুঃখ পেয়েছেন, তাঁদের কাছে আমি ক্ষমা চাইছি।’ এদিকে, যাঁর সঙ্গে ছবি তোলা নিয়ে এত ঝামেলা সেই অ্যাডার জানিয়েছেন, মিস ইরাক সারার সঙ্গে প্রতিযোগিতার পর থেকেই দুর্দান্ত সম্পর্ক তাঁর। দু’জনের মধ্যে অনেক ব্যাপারেই কথা হয়।

[রাম-সীতার ‘ডিভোর্স’ কি মেনে নেবে সেন্সর? চিন্তায় পরিচালক রঞ্জন]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement