৭ ভাদ্র  ১৪২৬  রবিবার ২৫ আগস্ট ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ৫০ বছর পার। সূর্যের দেবতা অ্যাপোলোর পর এবার চাঁদের দেবী পাড়ি দেবেন চাঁদে।
১৯৬৯ সালের এই জুলাই মাসেই প্রথম অভিযাত্রী চন্দ্রপৃষ্ঠে নেমেছিল নাসার অ্যাপোলো ১১। চাঁদে হেঁটেছিলেন দু’জন পুরুষ। নীল আর্মস্ট্রং আর এডউইন অলড্রিন। আর এবার, এই প্রথম, চন্দ্রপৃষ্ঠে হাঁটবেন এক মহিলা। তাঁর সঙ্গী হবেন আর এক পুরুষও। আর চাঁদে প্রথম মহিলা অভিযাত্রী নিয়ে অবতরণকারী এই অভিযানেরই নামকরণ করা হয়েছে গ্রিক পুরাণের চাঁদের দেবী আর্তেমিসের নামে।

[ আরও পড়ুন: কাশ্মীর ইস্যুতে মধ্যস্থতা চান মোদি! ইমরানের সঙ্গে বৈঠকে চাঞ্চল্যকর দাবি ট্রাম্পের]

অ্যাপোলো আর আর্তেমিস দুই যমজ ভাইবোন। দু’জনেই গ্রিক দেবতা জিউসের সন্তান। তবে অ্যাপোলো সূর্য, আলো, জ্ঞানের দেবতা। আর আর্তেমিস চাঁদ, বন্যপ্রাণীর দেবী। চাঁদে প্রথম মহিলা অভিযাত্রীকে যাওয়ার এই অভিযানের নাম তাই দেওয়া হয়েছে তাঁরই নামে। ২০২৪ সালে চাঁদে প্রথম মহিলা অভিযাত্রীকে পৌঁছে দেওয়ার নাসার পরিকল্পনার কথা দীর্ঘদিন ধরেই শোনা যাচ্ছিল। এমনকী বিভিন্ন অসমর্থিত সূত্রে সেই মহিলা মহাকাশচারীর বাড়ি, পরিবার, বয়স সংক্রান্ত তথ্যও ঘোরা ফেরা করছিল বিভিন্ন মাধ্যমে। যদিও নাসার তরফে এতদিন এব্যাপারে কিছু জানানো হয়নি। এই প্রথম স্পষ্ট করে আর্তিমিস ৩ অভিযানের ঘোষণা করল নাসা। তারা জানিয়েছে, এই আর্তিমিস ৩ অভিযান তাদের মঙ্গলে মানব অভিযাত্রী পাঠানোর পথ দেখাবে। এই অভিযানে প্রথম কোনও মানব অভিযাত্রী নামবেন চাঁদের দক্ষিণ মেরুতে। যেখানে ইসরোর চন্দ্রযান ২ নামবে তারই কাছাকাছি কোনও এলাকায়।

নাসা সূত্রে খবর, চাঁদের দক্ষিণ মেরুর শ্যকলেটন ক্র‌্যাটারে নামতে পারে আর্তিমিস ৩ অভিযানের অবতরণ যন্ত্র। আর এই যন্ত্রটি হল ক্যাপস্যুলের মতো। যার নাম ওরিয়ন। উল্লেখ্য শেষবার চন্দ্রপৃষ্ঠে হেঁটেছিলেন অ্যাপোলো ১৭—র অভিযাত্রী জিন কারনান।

[ আরও পড়ুন: নীলাভ জলের আকর্ষণে লুকিয়ে বিষ, স্পেনের সমুদ্রে নেমে অসুস্থ অনেকে ]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং