১ আশ্বিন  ১৪২৫  মঙ্গলবার ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৮  |  পুজোর বাকি আর ২৮ দিন

মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও রাশিয়ায় মহারণ ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সুকুমার সরকার, ঢাকা: কাঠমান্ডু বিমান দুর্ঘটনায় নয়া মোড়। ভুল রানওয়েতে অবতরণ করায় দুর্ঘটনার কবলে পড়ে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স-এর যাত্রীবাহী বিমান ফ্লাইট ২১১। এমনটাই দাবি করেছে ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের কর্তৃপক্ষ। তাঁদের দাবি, ফ্লাইট ২১১-কে রানওয়ের দক্ষিণ দিক থেকে অবতরণ করতে বলা হলেও পাইলট উত্তর দিক থেকে অবতরণ করেন। যার ফলে এই দুর্ঘটনাটি ঘটে। যদিও এই দাবি নস্যাৎ করেছে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স। তাদের পালটা অভিযোগ, কন্ট্রোল টাওয়ার থেকে পাইলটকে ভুল নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল।

[কোনও সমস্যা নেই, অভিশপ্ত বিমানের শেষ বার্তায় রহস্য আরও গভীরে]

জানা গিয়েছে, ফ্লাইট ২১১-এর ‘ব্ল্যাক বক্স’ উদ্ধার হয়েছে। তদন্তকারীরা মনে করছেন এর মাধ্যমেই জানা যাবে বিমানটি দুর্ঘটনাগ্রস্ত হওয়ার আসল কারণ। ইউএস বাংলা এয়ারলাইন্সের সিইও ইমরান আফিফের দাবি, দুর্ঘটনায় বিমানের পাইলটের কোনও গাফিলতি ছিল না। কাঠমান্ডুর কন্ট্রোল টাওয়ার থেকেই চালকদের বিভ্রান্তিকর তথ্য দেওয়া হয়েছিল।

সোমবার, কাঠমান্ডু বিমানবন্দরে অবতরণ করার সময় দুর্ঘটনার কবলে পড়ে বাংলাদেশের একটি যাত্রীবাহী বিমান। ওই ঘটনায় মৃত্যু হয় অন্তত ৫০ জন যাত্রীর। ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের বিমানটির দুর্ঘটনার জন্য কাঠমান্ডুর এয়ার ট্রাফিক কন্ট্রোলকেই দায়ী করছে বিমানসংস্থাটি। তবে পালটা পাইলটদের বিরুদ্ধেই গাফিলতির অভিযোগ জানিয়েছে ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের কতৃপক্ষ। ইতিমধ্যে, বিমান দুর্ঘটনায় হতাহতদের স্বজনদের নিয়ে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের একটি বিশেষ ফ্লাইট নেপালের রাজধানী কাঠমান্ডু পৌঁছেছে। মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১০টায় ত্রিভুবন বিমানবন্দরে বিমানটি অবতরণ করে। বাংলাদেশ অসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষের মুখপাত্র একেএম রেজাউল করিম এই তথ্য জানান। এদিন সকালেই ইউএস-বাংলার সাত আধিকারিককে নিয়ে বিমানটি ঢাকার শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে উড়ান ভরে।

[OMG! পাখি সেজে গাছে উঠে এ কী করলেন যুবক?]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং