Advertisement
Advertisement
Maldives

লালফৌজকেও চায় না মালদ্বীপ, ভারতের ‘ক্ষোভ প্রশমনে’ মন্তব্য নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্টের

বেজিং ঘনিষ্টতার কথা উড়িয়ে দিলেন মালদ্বীপের প্রেসিডেন্ট।

Now Maldives Leader Says, Chinese Troops Won't Replace Indian Soldiers | Sangbad Pratidin
Published by: Kishore Ghosh
  • Posted:November 15, 2023 3:02 pm
  • Updated:November 15, 2023 3:43 pm

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মালদ্বীপ (Maldives) ছাড়তে হবে ভারতীয় সেনাকে (Indian Army)। কারণ স্বাধীন দেশ হিসেবে পরিচিত হতে চায় মালদ্বীপ। আগেই জানিয়েছিলেন সে দেশের নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট মহম্মদ মুইজু (Mohamed Muizzu)। এবার জানিয়ে দিলেন, ভারতীয় সেনার বিকল্প হিসেবে নিজভূমে চিনা সেনাকেও চান না তাঁরা।

এক সাক্ষাৎকারে মহম্মদ মুইজুর সাফ কথা, “ভৌগলিক এবং রাজনৈতিক প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জড়িয়ে পড়ার জন্য মালদ্বীপ খুবই ছোট।” ভারত মহাসাগরে মালদ্বীপের অবস্থান আন্তর্জাতিক প্রেক্ষিতে গুরুত্বপূর্ণ, সে কথা অস্বীকার না করলেও এই বিষয়ে মউজুর মন্তব্য, “আমি এই বিষয়ে মালদ্বীপের পররাষ্ট্র নীতিকে জড়াতে আগ্রহী নই।”

Advertisement

 

Advertisement

[আরও পড়ুন: ছটের ভিড়ে দিল্লি স্টেশনে বন্ধ প্ল্যাটফর্ম টিকিট বিক্রি, কোন পথে শিয়ালদহ-হাওড়া?]

উল্লেখ্য, সেপ্টেম্বরে মুইজুর নির্বাচনী সাফল্যের অন্যতম কারণ ভারত বিরোধিতা। তিনি প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন, ভোটে জিতলে দেশ থেকে সরানো হবে ভারতীয় সেনাকে। চলতি মাসের শুরুতে প্রেসিডেন্টের কুরসিতে বসেও জানিয়েছিলেন, “আইন মেনে মালদ্বীপ থেকে সমস্ত বিদেশি সেনা সরিয়ে দেওয়া হবে। সামরিক বাহিনীগুলি চায় না তাদের ফেরত পাঠানো হোক। কিন্তু মালদ্বীপের জনগণ সিদ্ধান্ত নিয়েছে।” এর পর গত ২৭ অক্টোবর দেশ ভারতীয় সেনাকে সরানোর কথা বলেন নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট।

 

[আরও পড়ুন: পাখির চোখ জনজাতি ভোট, ঝাড়খণ্ড সফরে ‘ভগবান’ বিরসার সামনে নতমস্তকে নমো]

এদিন জানালেন, চিন বা অন্য কোনও দেশকেও বিকল্প হিসেবে চায় না মালদ্বীপ। উড়িয়ে দেন বেজিং ঘনিষ্টতার কথাও। জানিয়ে দেন, তিনি কেবল মালদ্বীপেরই পক্ষে। বলেন, “আমরা সমস্ত দেশ, ভারত, চিন এবং অন্যান্য সমস্ত দেশের সঙ্গে একসঙ্গে কাজ করতে চাই।”

 

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ