BREAKING NEWS

১৫ অগ্রহায়ণ  ১৪২৭  বুধবার ২ ডিসেম্বর ২০২০ 

Advertisement

চোরাগাপ্তা হামলার বদলা? ‘সার্জিকাল স্ট্রাইকে’ আল কায়দার ৫০ জেহাদিকে খতম করল ফ্রান্স

Published by: Paramita Paul |    Posted: November 3, 2020 3:50 pm|    Updated: December 1, 2020 3:09 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: একের পর এক চোরাগোপ্তা জঙ্গি হামলায় জেরবার ফ্রান্স (France)। এবার পালটা জবাব দিল ম্যাঁক্রোর দেশ। ফ্রান্সের বিমানবাহিনীর ‘সার্জিকাল স্ট্রাইক’এ মধ্য মালিতে গুড়িয়ে গেল আল কায়দার একাধিক জঙ্গি ঘাঁটি। নিকেশ হল অন্তত ৫০ জেহাদি। সাম্প্রতিক অতীতে সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে এত বড় সাফল্য এর আগে পায়নি ফ্রান্স।

বুরকিনা ফাসো ও নাইজারের সীমান্ত এলাকায় জঙ্গিদের দমন করতে হিমশিম খাচ্ছে মালির (Mali) সরকার। গত ৩০ অক্টোবর সেই এলাকাতেই অভিযান চালায় বরখান বাহিনী। এ প্রসঙ্গে সোমবার ফরাসি প্রতিরক্ষামন্ত্রী ফ্লোরেন্স পার্লে জানিয়েছেন, অভিযানে ৫০ জনের বেশি আল-কায়দার জেহাদি খতম হয়েছে। অস্ত্রশস্ত্র ও অন্যান্য সামগ্রী বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে। অভিযানে প্রায় ৩০টি মোটর সাইকেল ধ্বংস হয়েছে।

[আরও পড়ুন : আরও চাপে চিন, এবার ভারত মহাসাগরে টহল দেবে জার্মান যুদ্ধজাহাজ]

ফরাসি প্রতিরক্ষামন্ত্রী জানিয়েছেন, তিনটি সীমান্তে প্রচুর মোটর সাইকেলের ভিড় দেখে অভিযান শুরু হয়। নজর এড়াতে জেহাদিরা গাছের আড়ালে লুকিয়ে পড়েছিল। তাদের অবস্থান বুঝতে দু’টি মিরাজ যুদ্ধবিমান ও একটি ড্রোন পাঠায় বাহিনী। অবস্থান বুঝতে পেরে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালায় তারা। তাতেই ৫০ জন জেহাদি খতম হয় বলে খবর।

সামরিক মুখপাত্র কর্নেল ফ্রেডারিক বারবে জানিয়েছেন, এই অভিযানে চার জঙ্গি ধরা পড়েছে। প্রচুর বিস্ফোরক ও একটি সুইসাইড ভেস্ট উদ্ধার হয়েছে। ওই জেহাদিরা সামরিক ঘাঁটিতে আক্রমণ করার ছক কষছিল বলেও তিনি দাবি করেছেন। তাঁদের কথায়, মালির অভিযানে আনসারুল ইসলাম গোষ্ঠী চরম ধাক্কা খেয়েছে। এই গোষ্ঠী আল কায়দার সঙ্গেও যুক্ত ছিল।

[আরও পড়ুন :এবার জঙ্গি হামলায় রক্তাক্ত ভিয়েনা, বন্দুকবাজের গুলিতে নিহত ২]

উল্লেখ্য, ২০১২ থেকেই মালিতে জেহাদি উপদ্রব চলছে। সেই উপদ্রবে লাগাম পরাতে ফ্রান্স-সহ একাধিক দেশের বাহিনী পালটা অভিযান চালাচ্ছে। এদিক গ্রেটার সাহারায় ইসলামিক স্টেস্টকে নিশানা করে ৩,০০০ সেনার সাহায্যে আরও একটি অভিযান চালাচ্ছে ফ্রান্স। তার ফলাফলও খু শীঘ্রই ঘোষণা করা হবে। প্রসঙ্গত, ইসলাম কট্টরপন্থা ও সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে কড়া অবস্থান নিয়েছে ফ্রান্স। 

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement