১৪ আশ্বিন  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ১ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

বিচারের নামে প্রহসন! কুলভূষণের মামলা সংক্রান্ত অর্ডিন্যান্সের সময়সীমা বাড়াল পাকিস্তান

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: September 15, 2020 6:06 pm|    Updated: September 15, 2020 6:09 pm

An Images

ফাইল ফোটো

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কুলভূষণ যাদবের মামলায় দেওয়া আন্তর্জাতিক ন্যায় আদালতের নির্দেশকেও ঘুরপথে অমান্য করছে পাকিস্তান! বিচারের নাম সেখানে প্রহসন চলছে বলেই দীর্ঘদিন ধরে অভিযোগ করছেন ভারতীয় কূটনৈতিকরা। মঙ্গলবার ফের তার প্রমাণ পাওয়া গেল। কুলভূষণ যাদবকে তারা সঠিক বিচার দেওয়ার চেষ্টা করছে অজুহাত দেখিয়ে এই সংক্রান্ত অর্ডিন্যান্সের সময়সীমা আরও চার মাস বাড়াল পাকিস্তানের সাংসদরা।

গত ৩ তারিখ ইসলামাবাদ হাই কোর্টের বিশেষ বেঞ্চে কুলভূষণ যাদব ( Kulbhushan Jadhav) -এর মামলার শুনানি হওয়ার কথা ছিল। সেদিন এই বিষয়ে সওয়াল করতে উঠে পাকিস্তান অ্যাটর্নি জেনারেল খালিদ জাভেদ খান জানান, দেশের আইন মোতাবেক কূলভূষণের হয়ে শুধুমাত্র পাকিস্তানি আইনজীবীরাই মামলা লড়তে পারবেন। ফলে ভারতীয় আইনজীবীর নিয়োগের প্রশ্ন উঠছে না। এরপরই ভারতকে পাকিস্তানি আইনজীবী নিয়োগের সুযোগ দিতে অক্টোবরের ৬ তারিখ পর্যন্ত মামলার শুনানি মুলতুবি করা হয়। এবার পাকিস্তানের জাতীয় সংসদে এই সংক্রান্ত অর্ডিন্যান্সের সময়সীমা বাড়িয়ে ইমরানের সরকার মামলাটিকে আরও পিছিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করল বলেই অভিযোগ।

[আরও পড়ুন: করোনার ভ্যাকসিন উৎপাদনে মুখ্য ভূমিকা পালন করবে ভারতই, আশাবাদী বিল গেটস ]

গত বছর আন্তর্জাতিক ন্যায় আদালতে (ICJ) কূলভূষণ মামলায় মুখ পুড়েছিল পাকিস্তানের। তারপরই এই মামলার বিচারের জন্য ইসলামাবাদ হাই কোর্টের প্রধান বিচারপতির নেতৃত্ব বিশেষ বেঞ্চ গঠন করা হয়। আগস্টের শুরুতেই ইসলামাবাদ হাই কোর্ট নির্দেশ দেয়, কূলভূষণের জন্য ভারতকে আইনজীবী নিয়োগের অনুমতি দিক ইমরান সরকার। তাতে রাজি হলেও প্রাক্তন ভারতীয় নৌসেনা আধিকারিকের জন্য পাকিস্তানি আইনজীবী নিয়োগ করতে হবে বলেই জানিয়েছে ইমরানের প্রশাসন।

২০১৬ সালের ৩ মার্চ কূলভূষণ যাদবকে গুপ্তচরবৃত্তির অভিযোগে বালুচিস্তানের মাসকেল এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করা হয় বলে দাবি পাকিস্তানের। এরপর নাশকতা ও পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রের অভিযোগ আনা হয় তাঁর বিরুদ্ধে। ২০১৭ সালের ১০ এপ্রিল পাকিস্তানের সামরিক আদালতে কূলভূষণকে ফাঁসির সাজা দেওয়া হয়।

[আরও পড়ুন: অবৈধ নির্মাণের অভিযোগ, জেরুজালেমে মসজিদ ভাঙার নির্দেশ ইজরায়েলের আদালতের]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement