২২ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  বৃহস্পতিবার ৯ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

ছবিতে গাজাকে কাশ্মীর বানিয়ে রাষ্ট্রসংঘে জালিয়াতি পাকিস্তানের

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: September 24, 2017 11:05 am|    Updated: September 24, 2017 12:17 pm

Pakistan exposed at UN, uses Gaza War pic to defame India

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক:  রাষ্ট্রসংঘে সন্ত্রাসবাদ ইস্যুতে ভারতের বেনজির আক্রমণের মুখে পড়ে দিশেহারা পাকিস্তান। পরিস্থিতি এমনই যে, গাজায় ইজরায়েলের বিমান হানায় আহত এক কিশোরীর ছবি দেখিয়ে, সেটি ভারতের বলে দাবি করে বসলেন রাষ্ট্রসংঘে পাকিস্তানের স্থায়ী প্রতিনিধি মালিহা লোধি!  স্থায়ী প্রতিনিধির অপদার্থতায় আন্তর্জাতিক মঞ্চে মুখ পুড়ল পাকিস্তানের।

[‘বিজ্ঞানী বানাচ্ছে ভারত, পাকিস্তানের সৃষ্টি লস্কর’]

রবিবার রাষ্ট্রসংঘের সাধারণ সভায় পাকিস্তানের দু’মুখো নীতির পর্দা ফাঁস করে দিয়েছেন বিদেশমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ। পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ভারতের বিদেশমন্ত্রী রণংদেহি মেজাজে সরগরম আন্তর্জাতিক মহল। ভারতের এই বেনজির আক্রমণে পালটা জবাব যে পাকিস্তান দেবে, তা প্রত্যাশিতই ছিল। আর সেটা করতে গিয়েই বড়সড় ভুল করে বসলেন রাষ্ট্রসংঘে পাকিস্তানের স্থায়ী প্রতিনিধি মালীহা লোধি। রাষ্ট্রসংঘে সাধারণ সভায়  ভারতকে দক্ষিণ এশিয়ার সন্ত্রাসের ভূমি বলে পালটা তোপ দাগেন তিনি। এমনকী, কেন্দ্রের শাসকদলের বিরুদ্ধে গো-রক্ষার নামে মুসলমানদের উপর আক্রমণের অভিযোগও তোলেন। নিজের অভিযোগের সত্যতা প্রমাণ করতে আহত এক কিশোরীর ছবি  দেখান রাষ্ট্রসংঘের পাকিস্তানের স্থায়ী প্রতিনিধি মালীহা লোধি। আর তাতেই ঘটে বিপত্তি।

[সুষমার কথা ধার করেই ভারতকে ‘মিনমিনে’ জবাব পাকিস্তানের]

একাধিক ভারতীয় সংবাদমাধ্যমের দাবি রাষ্ট্রসংঘে পাকিস্তানের প্রতিনিধি যার ছবিটি দেখিয়েছেন, তার নাম আওয়া আবু জুম। ২০১৪ সালে গাজায় ইজরায়েলের বিমান আহত হয়েছিল সে। অথচ পাকিস্তান দাবি করে, ভারতে মুসলিমদের উপর ‘হামলা’য় নাকি আহত হয়েছে ওই কিশোরী। কিন্তু, রাষ্ট্রসংঘের মতো একটি আন্তর্জাতিক মঞ্চে কীভাবে এত বড় করে ভুল বসলেন পাকিস্তানের স্থায়ী প্রতিনিধি মালীহা লোধি?  ইসলামবাদের তরফে কোনও সদুত্তর মেলেনি। তবে কূটনৈতিক মহলের একাংশের মতে, হিজবুল কমান্ডার বুরহান ওয়ানির মৃত্যুর পর থেকে উত্তপ্ত কাশ্মীর। উপত্যকায় সেনাবাহিনীর প্যালেট গানের আঘাতে আহত হয়েছেন বহু বিক্ষোভকারী। সম্ভবত সেই ঘটনার সঙ্গে গাজার ঘটনাটিকে গুলিয়ে ফেলেছিলেন রাষ্ট্রসংঘে পাকিস্তানের স্থানীয় প্রতিনিধি।তবে কারণ যাই হোক না কেন, খোদ স্থায়ী প্রতিনিধি অপদার্থতায় রাষ্ট্রসংঘে যে ফের একবার পাকিস্তানের মুখ পুড়ল, তা স্পষ্ট। তবে সচেতনভাবে পাকিস্তান এই কাজ করেছে নাকি ভুলবশত এই কাণ্ড তা নিয়ে আন্তর্জাতিক দুনিয়ার কৌতুহল বাড়ছে।

[দুর্গাপুজোর খরচ কমিয়ে রোহিঙ্গাদের সাহায্যের উদ্যোগ বাংলাদেশি হিন্দুদের]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে