BREAKING NEWS

১৩ ফাল্গুন  ১৪২৭  শুক্রবার ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

এখনও করোনা টিকার বরাত দেয়নি পাকিস্তান, প্রশ্নের মুখে ইমরান খানের সরকার

Published by: Monishankar Choudhury |    Posted: January 16, 2021 3:11 pm|    Updated: January 16, 2021 3:11 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: টিকার বলে বলীয়ান হয়ে বিশ্বজুড়ে শুরু হয়েছে করোনার বিরুদ্ধে লড়াই। শনিবার থেকে ভারতেও শুরু হয়েছে টিকাকরণ। চলতি মাসেই সেরামের টিকা পৌঁছে যাবে বাংলাদেশেও। এহেন পরিস্থিতিতে এখনও প্রতিষেধক কিনতে কোনও বরাত দেয়নি পাকিস্তান (Pakistan)। ফলে রীতিমতো প্রশ্নের মুখে পড়েছে ইমরান খানের সরকার।

[আরও পড়ুন: করোনার ভ্যাকসিন নেওয়ার পরে ২৩ জনের মৃত্যু! টিকাকরণ নিয়ে আতঙ্কে নরওয়ে]

সংবাদ সংস্থা এএনআই সূত্রে খবর, এখনও পর্যন্ত ইসলামাবাদের ভ্যাকসিন তৈরির প্রস্তাব গ্রহণ করেনি কোনও টিকা প্রস্তুতকারী সংস্থা। প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের সরকারও টিকা কেনার জন্য বরাত দেয়নি। এই খবরের সত্যতা স্বীকার করেছেন ইমরান খানের স্বাস্থ্য বিষয়ক উপদেষ্টা ড. ফয়জল খান। এই প্রসঙ্গে তিনি বলেন, “ফ্রন্টলাইন করোনা যোদ্ধাদের জন্য দ্রুত ভ্যাকসিন আনার চেষ্টা করছি আমরা। তবে এখনও পর্যন্ত টিকা কেনার জন্য কাউকে বরাত দেওয়া হয়নি।” পাকিস্তানি সংবাদমাধ্যম সূত্রে খবর, চিনা সরকারি সংস্থা সিনোফার্মের থেকে করোনা টিকা কেনার বিষয়ে আলোচনা চলছে। করাচিতে টিকটির প্রথম দফার ট্রায়াল শেষ হলে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবে ইমরান প্রশাসন। প্রসঙ্গত, এপর্যন্ত পাকিস্তানে প্রায় ৫ লক্ষ মানুষ করণী আক্রান্ত হয়েছেন। এর মধ্যে মৃত্যু হয়েছে ১০ হাজার ৮৬৩ জনের। জানা গিয়েছে কোভ্যাক্স প্রকল্পের আওতায় অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকা কেনার পরিকল্পনা করছে ইসলামাবাদ।

এদিকে, বাংলাদেশ ও পড়শি ভারতে টিকাকরণ শুরু হওয়ার পরও প্রশাসন কোনও ব্যবস্থা না করায় রীতিমতো পাক নাগরিকদের একাংশ। অনেকেই মনে করছেন, চিন থেকে সস্তায় টিকা কেনার জন্যই অপেক্ষা করছে পাকিস্তান। প্রশ্ন উঠছে, প্রায় ভেঙে পড়া অর্থনীতি সত্বেও হাতিয়ার কিনছে ইসলামাবাদ। তাহলে টিকা ক্রয়ে সরকারের গাফিলতি কেন। উল্লেখ্য, বিশ্বজুড়ে টিকাকরণ শুরু হওয়ার মধ্যেই নরওয়ে (Norway) থেকে যা খবর পাওয়া যাচ্ছে তা উদ্বেগজনক। সেখানে এখনও পর্যন্ত ভ্যাকসিন (COVID vaccine) নেওয়ার পরে ২৩ জনের মৃত্যুর কথা জানা গিয়েছে। মৃতদের সকলেরই বয়স আশির উপরে। সেই সঙ্গে আরও অনেকেই অসুস্থ হয়ে পড়েছেন টিকাকরণের পরেই। নরওয়ে জুড়ে এখন তাই ভ্যাকসিন আতঙ্ক। যদিও সেখানে বিতর্ক ঘনিয়েছে ফাইজার ভ্যাকসিনকে (Pfizer vaccine) কেন্দ্র করে। ভারতে দেওয়া হচ্ছে সেরাম ইন্সটিটিউটের কোভিশিল্ড ও ভারত বায়োটেকের কোভ্যাকসিন।

[আরও পড়ুন: ‘মৃত্যুর মুখ থেকে ফিরে এসেছি’, ক্যাপিটল আতঙ্কের বিবরণ দিলেন পুলিশকর্মী]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement