BREAKING NEWS

৭ আশ্বিন  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

ভারত বিরোধিতার পুরস্কার! কাশ্মীরের বিচ্ছিন্নতাবাদী নেতাকে দেশের সর্বোচ্চ সম্মান দিল পাকিস্তান

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: July 28, 2020 2:46 pm|    Updated: July 28, 2020 2:56 pm

An Images

সৈয়দ আলি শাহ গিলানি (ফাইল ফটো)

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: দীর্ঘদিন ধরে ভারত সরকারের বিরোধিতা করার পুরস্কার পেলেন কাশ্মীরের বিচ্ছিন্নতাবাদী নেতা সৈয়দ আলি শাহ গিলানি (Syed Ali Shah Geelani) ! ভূস্বর্গ থেকে ৩৭০ ধারা প্রত্যাহারের বর্ষপূর্তির আগে তাঁকে দেশের সর্বোচ্চ সম্মান ‘নিশান-ই-পাকিস্তান’ অ্যাওয়ার্ড দিল পাকিস্তানের সরকার। মঙ্গলবার তাঁকে ওই সম্মান দেওয়ার কথা ঘোষণা করল ইসলামাবাদ।

ভারতীয় গোয়েন্দাদের থেকে পাওয়া খবর অনুযায়ী, আগামী ৫ আগস্ট কাশ্মীর থেকে ৩৭০ ধারা প্রত্যাহারের বর্ষপূর্তি হচ্ছে। ওইদিনটিতে ভারতের মানুষ যখন রাম মন্দিরের ভূমিপুজোর সাক্ষী থাকবে ঠিক তখনই কাশ্মীরিদের পাশে থাকার বার্তা দিয়ে পাকিস্তান কালা দিবস (black day) পালন করার প্রস্তুতি নিচ্ছে। গুপ্তচর সংস্থা আইএসআই (ISI) -এর প্রত্যক্ষ মদতে বিশ্বব্যাপী ভারতের বদনাম করার চেষ্টা করছে। কীভাবে গত এক বছরে কাশ্মীরে মানবাধিকার লঙ্ঘনের ঘটনা ঘটেছে তা আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমের মাধ্যমে তুলে ধরার পরিকল্পনা করছে। তারই অঙ্গ হিসেবে কাশ্মীরের যে সমস্ত বিচ্ছিন্নতাবাদী নেতা ও আন্তর্জাতিক সংস্থা ভারতের বিরোধিতা করে আসছে তাদের সম্মান  জানানোর পরিকল্পনা নিয়েছে।

[আরও পড়ুন: ‘করোনাই বিশ্বের সবচেয়ে ভয়ংকর জরুরি অবস্থা’, উদ্বেগ বাড়িয়ে ঘোষণা WHO’র ]

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, ১৯৯০ সাল থেকে কাশ্মীরের বিচ্ছিন্নতাবাদী আন্দোলনের নেতৃত্ব দিয়ে আসছিলেন অল ইন্ডিয়া হুরিয়ত কনফারেন্সের প্রধান সৈয়দ আলি শাহ গিলানি। তবে ২০১৯ সালের আগস্ট মাস থেকে গৃহবন্দি অবস্থায় থাকার জেরে তা কিছুটা লাগাম পড়ে। এর মাঝেই গত মাসে আচমকা কনফারেন্সের সঙ্গে সব সম্পর্ক ত্যাগ করছেন বলে জানান। বিশেষজ্ঞদের মতে হুরিয়ত নেতাদের অনেকে কেন্দ্রীয় সরকারের ঘনিষ্ঠ হয়ে পড়ার কারণেই এই সিদ্ধান্ত নেন তিনি। মঙ্গলবার তারই পুরস্কার দিন পাকিস্তান।

[আরও পড়ুন: পাকিস্তানের মতো শক্তিশালী ভাই হয়ে ওঠো, আফগানিস্তান ও নেপালকে বার্তা চিনের]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement