×

২ চৈত্র  ১৪২৫  সোমবার ১৮ মার্চ ২০১৯ 

BREAKING NEWS

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার
নিউজলেটার

২ চৈত্র  ১৪২৫  সোমবার ১৮ মার্চ ২০১৯ 

BREAKING NEWS

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: গত ২৬ ফেব্রুয়ারি পাক ভূমিতে ঢুকে এয়ারস্ট্রাইক চালায় ভারতীয় বায়ুসেনা৷ বালাকোট, মুজফ্ফরাবাদ ও চাকোতিতে গুঁড়িয়ে দেওয়া হয় তিনটি জঙ্গি প্রশিক্ষণ শিবির৷ নয়াদিল্লির দাবি করে সঠিক লক্ষ্যে আঘাত আনতে সক্ষম হয়েছে সেনা৷ এবং সন্ত্রাসদমন অভিযানে খতম হয়েছে একাধিক জইশ জঙ্গি৷ স্বভাবসিদ্ধ ভঙ্গিতে প্রথম থেকেই ভারতের এই দাবি উড়িয়ে এসেছে পাকিস্তান৷ তবে এবার সম্ভবত তাদের সমস্ত জারিজুরি ও মিথ্যা আন্তর্জাতিক মহলে ফাঁস হতে চলেছে৷ কারণ সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রকাশ্যে এসেছে এমন একটি ভিডিও, যেখানে এক পাক সেনা আধিকারিক নিজের মুখে ২০০ জঙ্গির মৃত্যুর কথা স্বীকার করতে দেখা গিয়েছে৷

[বালাকোট থেকে জঙ্গিদের মৃতদেহ সরিয়েছে পাক সেনা, দাবি সমাজকর্মীর ]

টুইটারে ছড়িয়ে পড়া সেই ভিডিওটিতে দেখা গিয়েছে পাক সেনার এক আধিকারিক সাধারণ নাগরিকদের সঙ্গে বসে রয়েছেন৷ তাঁদের একাধিক বিষয়ে বোঝানোর চেষ্টা করছেন৷ তাঁর কোলে রয়েছে একটি শিশু৷ এবং শিশুটিকে কোলে নিয়ে ওই সেনা আধিকারিক বলছেন, ‘খুব কম মানুষই এই সুযোগ পায়৷ যারা জেহাদের পক্ষে, তাঁরাই আল্লাহ-র থেকে একাজের সুযোগ পায়৷ গতকাল ২০০ জন গিয়েছিল৷ তাঁরা শহিদের মর্যাদা পেয়েছে৷’ বিশেষজ্ঞদের মতে, ওই পাক সেনা আধিকারিকের কথায় ব্যবহৃত ‘শহিদ’ শব্দটি এক্ষেত্রে উল্লেখযোগ্য৷ ‘শহিদ’-এর মর্যাদা তাঁরাই পায়, যাঁরা শত্রুর সঙ্গে লড়াইয়ে মৃত্যুবরণ করেন৷ ওই আধিকারিকের কথা এটাই প্রমাণ করে যে, সেদিন বালাকোটের জাব্বা এলাকায় ২০০ জনের মৃত্যু হয়েছে৷ এবং সম্ভবত সেই কারণেই ওই সন্দেহজনক মাদ্রাসার ধারে কাছে কোনও বিদেশি সংবাদমাধ্যমকে যেতে দিচ্ছে না পাক সেনা৷

[শিশুকে ভুলে বিমানবন্দরে ফেলে রেখেই চলে গেলেন মা!]

উল্লেখ্য, ১৪ ফেব্রুয়ারি জম্মু-কাশ্মীরের পুলওয়ামায় ভয়াবহ নাশকতা চালায় পাক মদতপুষ্ট জইশ জঙ্গি৷ এর বদলা নিতেই গত ২৬ নভেম্বর পাক ভূমিকে ঢুকে এয়ার সার্জিক্যাল স্ট্রাইক চালায় ভারতীয় বায়ুসেনা৷ খাইবার পাখতুনখোয়ার বালাকোট-সহ মুজফ্ফরাবাদ ও চাকোতির তিনটি জঙ্গি প্রশিক্ষণ শিবির নষ্ট করে দেয় ভারত৷ বায়ুসেনা জানায়, সন্ত্রাসদমন অভিযানে জইশের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে৷ খতম হয়েছে অনেক জঙ্গি৷ প্রথম সার্জিক্যাল স্ট্রাইকের কথা অস্বীকার করলেও, এই এয়ারস্ট্রাইকের কথা স্বীকার করে পাকিস্তান৷ তবে ইমরান সরকার জানায়, ভারতীয় বায়ুসেনার তাঁদের বনভূমিতে গোলাবর্ষণ করেছে৷ কোনও মানুষের ক্ষতি না হলেও, এই হামলার নষ্ট হয়েছে কয়েক ডজন পাইন গাছ এবং মারা গিয়েছে কয়েকটি কাক৷ যার সত্যতা ঘিরে তৈরি হয়েছে তীব্র জল্পনা৷

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং