৪ আশ্বিন  ১৪২৬  রবিবার ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ইট ছুঁড়লে পাটকেল খেতে হবে। রীতিমতো হুমকির সুরেই ভারতকে সতর্ক করলেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। তবে এমন রণহুঙ্কার দিতে গিয়ে বালাকোট হামলার সত্যতা একরকম স্বীকার করে ফেললেন তিনি।

[আরও পড়ুন: অভিনন্দনকে ফিরতে বলেছিলেন যুদ্ধবিমান কন্ট্রোলার মিন্টি]

বুধবার ছিল পাকিস্তানের স্বাধীনতা দিবস। সেই উপলক্ষেই একটি বক্তৃতায় পড়শি দেশ ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির উদ্দেশে তিনি বলেন, “শুনে রাখুন, আপনারা কোনও আগ্রাসী পদক্ষেপ করলে ইটের বদলে পাটকেলটি খেতেই হবে। অধিকৃত কাশ্মীরে লকডাউন কৌশলগতভাবে বিরাট ভুল।” এরপরেই আবেগের বশে ইমরান বলে ফেলেন, “পুলওয়ামার পর ঠিক যে ভাবে বালাকোট হামলা চালিয়েছিল ভারত, এ বার তার থেকেও কিছু ভয়ানক ষড়যন্ত্র কষছে তারা।” অর্থাৎ পরোক্ষে বালাকোট হামলাকে ভয়ানক বলে স্বীকার করে নিলেন ইমরান। যা কিনা পাকিস্তানের গত কয়েক মাসের ঘোষিত অবস্থানের উলটো মেরুর কথা।

স্বাভাবিকভাবেই ইমরানের এহেন মন্তব্যে তোলপাড় সোশ্যাল মিডিয়া। পাকিস্তানের স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে বুধবার পাক অধিকৃত কাশ্মীরের অন্তর্গত তথাকথিত আজাদ কাশ্মীরের রাজধানী মুজফ্‌ফরাবাদে গিয়েছিলেন ইমরান খান। সেখানেই তিনি বলেন, ৩৭০ ধারা বাতিলের পর ন্যাশনাল সিকিউরিটি কমিটির যে দু’টি মিটিং তাঁরা করেছেন তাতে জানা গিয়েছে যে, ‘ভারত-অধিকৃত কাশ্মীর’ থেকে আন্তর্জাতিক মহলের নজর ঘোরাতেই এ বার ‘আজাদ-কাশ্মীরে’ হামলা চালানোর ছক কষেছে ভারত। তবে একই সঙ্গে তাঁর হুঁশিয়ারি, “পাকিস্তানের সেনাবাহিনী প্রস্তুত। গোটা দেশই সেনাবাহিনীর কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে লড়বে।’’

বিশ্লেষকদের মতে, আসলে ইমরান আন্তর্জাতিক মহলে এটাই তুলে ধরতে চাইছেন যে, কাশ্মীরের বাসিন্দাদের উপর অত্যাচার চালাচ্ছে মোদি সরকার। গোটা বিশ্বের সঙ্গে ইচ্ছাকৃতভাবে তাদের যোগাযোগ-বিচ্ছিন্ন করে রাখছে। ইমরান বলেছেন তিনি কাশ্মীরিদের ‘মুখপাত্র’ হিসেবে আন্তর্জাতিক মঞ্চে বারবার এই দমনপীড়নের কথা তুলে ধরবেন। আসলে কাশ্মীর থেকে ৩৭০ প্রত্যাহারের পর মোদি সরকার যে এবার পাক অধিকৃত কাশ্মীরও উদ্ধারের চেষ্টা করবে সে ব্যাপারে নিশ্চিত পাকিস্তান। আর ভারত যদি সে চেষ্টা করে তবে তা যে বেশ তীব্রই হবে তা বুঝতে পারছেন ইমরান। তাই বক্তৃতার শেষে তিনি বলেছেন, ‘মোদি, আপনি যদি মনে করেন আইন পাস করিয়ে কাশ্মীরকে হারাবেন ভুল ভাবছেন। আপনাকে উচিত শিক্ষা দেওয়ার সময় এসে গিয়েছে।” কাশ্মীর নিয়ে ভারতের পদেক্ষেপের বিষয়ে আলোচনার জন্য রাষ্ট্রসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের বিশেষ অধিবেশন ডাকতে অনুরোধও জানিয়েছে পাকিস্তান। সেই মর্মে আজ নিরাপত্তা পরিষদে কাশ্মীর ইস্যু নিয়ে আলোচনা হওয়ার কথা।

[আরও পড়ুন: রাতের অন্ধকারে মার্কিন সীমান্তে উড়ল রুশ আণবিক অস্ত্রবাহী যুদ্ধবিমান]

 

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং