১৩  আষাঢ়  ১৪২৯  বুধবার ২৯ জুন ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

পাক ভিডিওয় ভিন্দরানওয়ালে, কর্তারপুর করিডর নিয়ে চক্রান্ত ইসলামাবাদের

Published by: Monishankar Choudhury |    Posted: November 6, 2019 10:53 am|    Updated: November 6, 2019 10:55 am

Pakistan releases Kartarpur corridor video featuring Khalistani terrorists

ফাইল ফটো

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ‘জিজিয়া’ করের পর এবার প্রোমোশনাল ভিডিওয় খলিস্তানি জঙ্গি নেতার ছবি। কর্তারপুর করিডর নিয়ে কিছুতেই থামছে না পাকিস্তানের উসকানি। মঙ্গলবার শিখ পুণ্যার্থীদের জন্য তৈরি ওই পথের একটি প্রোমোশনাল ভিডিওয় প্রকাশ করে পাক সরকার। সেখানে স্থান পায় খলিস্তানি জঙ্গি নেতা ভিন্দরানওয়ালে-সহ তিন শিখ সন্ত্রাসবাদীর ছবি।

ভিডিওটি প্রকাশ পেতেই শুরু হয় বিতর্ক। কর্তারপুর করিডরের আড়ালে শিখ বিচ্ছিন্নতাবাদীদের উসকে দিচ্ছে পাকিস্তান, তা সাফ হয়ে যায়। ইতিমধ্যেই সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে গিয়েছে ওই ভিডিও। সেখানে পাকিস্তানের বেশ কয়েকটি গুরুদ্বারের ছবি দেখানো হয়েছে। খানিকক্ষণ চলার পর ভিডিওটিতে দেখা যাচ্ছে নিহত খলিস্তানি জঙ্গিনেতা জারনেল সিং ভিন্দরানওয়ালে, অমরিক সিং খালসা ও শাহবেগ সিংয়ের ছবি। উল্লেখ্য, ১৯৮৪ সালে স্বর্ণমন্দিরকে জঙ্গি মুক্ত করতে ভারতীয় সেনা ‘অপারেশন ব্লু স্টার’ চালায়। ওই অভিযানেই নিকেশ হয় ওই তিন জঙ্গি। তবে পাকিস্তানের এহেন পদক্ষেপ নতুন কিছু নয়। এর আগেও বহুবার খলিস্তানি নেতাদের সঙ্গে বৈঠক করেছেন পাক রাজনীতিবিদরা। বিশ্লেষকরা মনে করছেন, কাশ্মীর নিয়ে চলা টানাপোড়েনে খলিস্তানি বিচ্ছিন্নতবাদ উসকে নয়াদিল্লিকে বেকায়দায় ফেলতে চাইছে ইসলামাবাদ।

কর্তারপুর করিডর নিয়ে পাকিস্তানের অভিসন্ধি যে মোটেও ভাল নয়, তা আগেই স্পষ্ট করে দিয়েছিলেন পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী ক্যাপ্টেন অমরিন্দর সিং। তিনি সাফ বলেছিলেন যে শিখদের প্রতি পাকিস্তানের আকস্মিক ভালবাসা ষড়যন্ত্রের ইঙ্গিত বহন করছে। কর্তারপুর করিডরের মাধ্যমে ভারতে বিচ্ছিন্নতবাদ উসকে দেওয়ার চেষ্টা চালাবে পাক গুপ্তচর সংস্থা আইএসআই বলেও মনে করেন তিনি। উল্লেখ্য, আগামী ৮ নভেম্বর ভারতের দিকে কর্তারপুর করিডরের উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। পাঞ্জাবের গুরুদাসপুর জেলার ডেরা বাবা নানক থেকে পাকিস্তান সীমান্ত পর্যন্ত এই করিডরটির জন্য শিখ পুণ্যার্থীদের পক্ষে লাহোরে অবস্থিত গুরুদ্বার দরবার সাহিব কর্তারপুরে পৌঁছনো সুবিধাজনক হয়ে যাবে। জীবনের শেষ ১৮ বছর এই কর্তারপুরেই কাটিয়েছিলেন গুরু নানক।

দেখুন ভিডিও: 

[আরও পড়ুন: চিনা পণ্যের আগ্রাসন আটকাতে মুক্ত বাণিজ্য চুক্তিতে না ভারতের]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে