১০ অগ্রহায়ণ  ১৪২৯  রবিবার ২৭ নভেম্বর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

সৌদিতে শাহবাজ শরিফের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ দেখানোর অভিযোগ, এফআইআর দায়ের ইমরানের বিরুদ্ধে

Published by: Biswadip Dey |    Posted: May 1, 2022 3:29 pm|    Updated: May 1, 2022 3:29 pm

Pakistan's Punjab police have booked Imran Khan and 150 others। Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মাত্র কয়েকদিন আগেই ক্ষমতা হারিয়েছেন তিনি। সরে গিয়েছেন পাক প্রধানমন্ত্রীর মসনদ থেকে। আর তারপরই পুলিশের জালে পড়তে হল ইমরান খানকে। পাকিস্তানের (Pakistan) পঞ্জাব প্রদেশের পুলিশ মামলা দায়ের করেছে ইমরান (Imran Khan) ও তাঁর ক্যাবিনেটের কয়েকজন সদস্য-সহ ১৫০ জনের বিরুদ্ধে। অভিযোগ, নতুন পাক প্রধানমন্ত্রী শাহবাজ শরিফ সৌদি আরবের মসজিদ-ই-নবিতে গিয়েছিলেন।

ইতিমধ্যেই সোশ্যাল মিডিয়ায় নানা ভিডিও ক্লিপ ছড়িয়ে পড়েছে। তাতে দেখা যাচ্ছে, শাহবাজ শরিফ ও তাঁর সফরসঙ্গীরা মদিনায় নবীর মসজিদের কাছে পৌঁছতেই তাঁর উদ্দেশে ইমরানের সমর্থকরা জোট বেঁধে স্লোগান দিচ্ছেন। তাঁদের ‘চোর’, ‘গদ্দার’ বলে গালাগালি করতে দেখা যায়। গত বৃহস্পতিবার এই ঘটনা ঘটে। এই স্লোগান কাণ্ডে ৫ পাকিস্তানিতে গ্রেফতার করে মদিনা পুলিশ।

[আরও পড়ুন: দেশের আদালতগুলিতে ঝুলে ৪ কোটি মামলা, ফের সরব প্রধান বিচারপতি]

এরপরই শনিবার রাতে পঞ্জাব পুলিশ এফআইআর দায়ের করে ইমরানের বিরুদ্ধে। তেহরিক-ই-ইনসাফের প্রধান ছাড়াও গত সরকারের প্রাক্তন মন্ত্রী ফাওয়াদ চৌধুরী, শেখ রশিদ, প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টা শাহবাজ গুল-সহ আরও ১৫০ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। এছাড়াও তালিকায় রয়েছেন ন্যাশনাল অ্যাসেম্বলির প্রাক্তন ডেপুটি স্পিকার কাসিম সোরি এবং ইমরান-ঘনিষ্ঠ লন্ডনের বাসিন্দা অনিল মুসররাত ও সাহেবজাদা জাহাঙ্গির। ইতিমধ্যেই পুলিশ জানিয়েছে, যাঁদের নাম এফআইআরে রয়েছে তাঁদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

তবে ইমরান খান এই সব অভিযোগ উড়িয়ে দিয়েছেন। তিনি স্পষ্ট জানিয়েছেন, এই ঘটনায় তিনি কোনও ভাবেই জড়িত নন। একটি সাক্ষাৎকারে তাঁকে বলতে শোনা গিয়েছে, তিনি কল্পনাও করতে পারেন না মদিনায় নবীর মসজিদের মতো পবিত্র স্থানে গিয়ে কারও বিরুদ্ধে স্লোগান দেওয়ার কথা।

[আরও পড়ুন: চুরির চেষ্টার ‘শাস্তি’, গাছে উলটো করে ঝুলিয়ে বেধড়ক মার যুবককে, ভাইরাল ভিডিও]

এদিকে পাকিস্তানের গদি হারানোর বেদনা এখনও ভুলতে পারেননি ইমরান। নিজের গদি হারানোর জন্য পরোক্ষে সেনাকেই দায়ী করছেন তিনি। নাম না করে সেনাপ্রধান বাজওয়াকে টার্গেট করে সম্প্রতি প্রাক্তন পাক প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, “ক্ষমতাবান কিছু ব্যক্তির ক্ষমতার অপব্যবহারের কারণেই এ ভাবে গদি থেকে সরে যেতে হল আমাকে।” বাজওয়ার পাশাপাশি বর্তমান ক্ষমতাসীন জোট সরকারকে ক্রমাগত আক্রমণ করে চলেছেন প্রাক্তন পাক প্রধানমন্ত্রী।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে