BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  সোমবার ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

ফের প্রাণিজগতে করোনার হানা, এবার মালিকের থেকে সংক্রমিত পোষ্য বিড়াল

Published by: Sulaya Singha |    Posted: July 28, 2020 10:01 am|    Updated: July 28, 2020 10:05 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: শুধু মনুষ্য নয়, প্রাণিজগতেও যে করোনা থাবা বসাতে সক্ষম, সে প্রমাণ ইতিমধ্যেই মিলেছে। তবে এতদিন ব্রিটেনে এমন কোনও ‘অঘটন’ ঘটেনি। এবার ঘটল। সোমবার ব্রিটেনের স্বাস্থ্য আধিকারিক জানালেন, এই প্রথম সে দেশে আক্রান্ত হয়েছে একটি পোষ্য বিড়াল।

সারেতে একাধিক টেস্টের পর নিশ্চিত হওয়া গিয়েছে যে একটি বিড়ালের শরীরে ঢুকেছে করোনা ভাইরাস (Coronavirus)। স্বাভাবিকভাবেই এমন ঘটনায় ছড়িয়েছে তীব্র চাঞ্চল্য। সবচেয়ে বড় প্রশ্ন হল, প্রাণীদের থেকেও এই রোগ ছড়াতে পারে কি না। কারণ তেমনটা হলে যে ভাইরাসটি নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যাবে, তা বলাই বাহুল্য। যদিও এখনও পর্যন্ত জীবজন্তুর শরীর থেকে মানুষের মধ্যে সংক্রমণের কোনও প্রমাণ মেলেনি। কিন্তু কীভাবে আক্রান্ত হল বিড়ালটি? পশু চিকিৎসকের মতে, করোনা আক্রান্ত মালিকের শরীর থেকেই তার দেহে প্রবেশ করেছে জীবাণু। যদিও পরিবেশ মন্ত্রকের তরফে আশ্বস্ত করা হয়েছে, ব্রিটেনে প্রথমবার কোনও প্রাণী আক্রান্ত হলেও ভয়ের কিছু নেই। কারণ এই রোগ পশুদের থেকে ছড়ানোর কোনও প্রমাণ পাওয়া যায়নি।

[আরও পড়ুন: ৩০ হাজার মানুষের উপর টেস্ট, বছর শেষেই বাজারে করোনা ভ্যাকসিন, দাবি মার্কিন সংস্থার]

প্রধান ভেটেনরি আধিকারিক ক্রিস্টিন জানান, শরীরে কোনও জীবাণু বাসা বেঁধেছে সন্দেহ করায় বিড়ালটির পরীক্ষা করা হয়। নিশ্চিত হতে করোনা টেস্টও হয়। তখনই রিপোর্ট পজিটিভ আসে। তবে এর থেকে যে মানুষের দেহে সংক্রমণ ছড়াতে পারে, তেমনটা বলা যাবে না। তাই আতঙ্কিত হওয়ার মতো কোনও কারণ নেই।

উল্লেখ্য, এর আগে নিউ ইয়র্কে দুটি পোষ্য বিড়ালের শরীরে করোনা ভাইরাসের হদিশ পাওয়া গিয়েছিল। তারও আগে সেখানকারই ব্রঙ্কস চিড়িয়াখানার (Bronx Zoo) একটি বাঘের শরীরে থাবা বসিয়েছিল কোভিড-১৯। উপসর্গ দেখা দিয়েছিল অন্য প্রাণীর মধ্যেও। আবার সম্প্রতি একটি গবেষণায় জানা গিয়েছে, একটি বিড়ালের থেকে অন্য বিড়াল সংক্রমিত হতে পারে। যদিও তাদের শরীরে কোনও উপসর্গ থাকবে না। এমন গবেষণা মহাবিপদের ইঙ্গিত দিলেও এখনও এমন কোনও সম্ভাবনা বাস্তবায়িত হয়নি।

[আরও পড়ুন: ‘করোনায় মরতে না চাইলে কম খেয়ে ওজন কমান’, দেশবাসীকে পরামর্শ ব্রিটেনের মন্ত্রীর]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement