২২  শ্রাবণ  ১৪২৯  সোমবার ৮ আগস্ট ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

পয়গম্বরকে ‘অসম্মান’! ভেঙে ফেলা হল স্যামসংয়ের বিলবোর্ড, অগ্নিগর্ভ পাকিস্তানের করাচি

Published by: Sulaya Singha |    Posted: July 2, 2022 9:34 am|    Updated: July 2, 2022 9:43 am

Protesters vandalised Samsung billboards in Pakistan for insulting Prophet | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: পয়গম্বরকে ‘অপমান’ করার অভিযোগ তুলে এবার উত্তাল হয়ে উঠল পাকিস্তানের করাচি। অভিযোগ তোলা হল মোবাইল প্রস্তুতকারক সংস্থা স্যামসংয়ের বিরুদ্ধে। যার জেরে ভেঙে ফেলা হয় এই সংস্থার বিলবোর্ড। ঘটনায় এখনও পর্যন্ত ওই কোম্পানির ২৭ জন কর্মীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

পাকিস্তানি সংবাদমাধ্যমের খবর অনুযায়ী, করাচির এক নামী শপিং মলের বাইরে স্যামসংয়ের (Samsung) একটি ওয়াই-ফাই ডিভাইস লাগানো হয়েছিল। অভিযোগ, সেই ডিভাইস থেকে হজরত মহম্মদকে নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য ভেসে আসে। আর তাতেই ক্ষোভের আগুন জ্বলে ওঠে করাচিতে (Karachi)। প্রতিবাদে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন বহু মানুষ। শুরু হয় ভাঙচুর। ভেঙে দেওয়া হয় বিলবোর্ডও। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে নামে বিশাল পুলিশবাহিনী।

[আরও পড়ুন: ‘রাষ্ট্রপতি ভোটে দ্রৌপদী মুর্মুর জয়ের সম্ভাবনা বেশি’, মমতার মন্তব্যে জল্পনা]

বিক্ষোভের ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়তে উত্তেজনা আরও চরমে ওঠে। অশান্তি রুখতে শপিং মল থেকে দ্রুত ওই ওয়াই-ফাই ডিভাইসটি সরিয়ে ফেলে পুলিশ। ড্যামেজ কন্ট্রোলে নামে স্যামসং পাকিস্তানও। টুইট করে এই বিতর্কে নিজেদের অবস্থান স্পষ্ট করে তারা। একটি বিবৃতি দিয়ে জানায়, ধর্মীয় ভাবাবেগে আঘাত করা তাদের উদ্দেশ্য নয়। এক্ষেত্রে সবসময়ই নিরপেক্ষ থাকে তারা। কোম্পানির তরফে আরও বলা হয়, “প্রতিটি ধর্মকেই আমরা সমান ভাবে সম্মান করি। একইভাবে ইসলাম ধর্মকেও সম্মান করি।” সেই সঙ্গে নিশ্চিত করা হয়, এমন ঘটনা কীভাবে ঘটল, তার পূর্ণাঙ্গ তদন্ত করা হবে।

এই ঘটনায় ইতিমধ্যেই মোবাইল কোম্পানিটির অন্তত ২৭ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। পাশাপাশি সাইবার অপরাধ দমন শাখার গোয়েন্দারা খতিয়ে দেখছেন, ওই ডিভাইসটি ইনস্টল করার জন্য কে বা কারা দায়ী।

[আরও পড়ুন: ‘জোর করে সাঁতারের ক্লাসে নিয়ে না আসলেই হত’, আক্ষেপ হাওড়ায় সুইমিং পুলে ডুবে মৃত শিশুর মায়ের]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে