৮ মাঘ  ১৪২৮  শনিবার ২২ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

ডেডলাইন ২০৩০, বিশ্ববাসীকে প্লাস্টিক বর্জনের আহ্বান রাষ্ট্রসংঘের

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: March 16, 2019 5:13 pm|    Updated: March 16, 2019 5:13 pm

Reduce use of plastic:UN suggests at environmental summit

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: আর মাত্র ১০ বছর৷ এই সময়ের মধ্যেই প্লাস্টিকশূন্য করার চ্যালেঞ্জ জানাল রাষ্ট্রসংঘ৷ বিভিন্ন দেশের কাছে রাষ্ট্রসংঘের পরিবেশ সংক্রান্ত বিভাগের ৫ দিন ব্যপী সম্মেলন থেকে এই আরজি রাখা হয়েছে৷ ২০৩০ সালের মধ্যে প্লাস্টিকের ব্যবহার ন্যূনতম করতে হবে৷ রাষ্ট্রসংঘের সভাপতি সিম কিসলাম স্পষ্ট বার্তা দিয়েছেন, কোনও তথ্য-পরিসংখ্যান বা আলোচনা নয়, প্লাস্টিক বর্জন নিয়ে সরাসরি পদক্ষেপ চাইছেন তাঁরা৷

ক্রাইস্টচার্চের আক্রান্ত মুসলিমদের পাশে দাঁড়াল শিখ সম্প্রদায়

রাষ্ট্রসংঘের সব সদস্য দেশগুলিকে নিয়ে পরিবেশ সংক্রান্ত ৫ দিনের সম্মেলন হয়ে গেল নাইরোবিতে৷ সেখানে পরিবেশের ক্ষতিকারক সামগ্রী নিয়ে আলোচনা হয়৷ দূষণের অন্যতম কারণ হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে প্লাস্টিককে৷ দ্রুত প্লাস্টিক বর্জনে উন্নত বিশ্বের দেশগুলিকে কড়া পদক্ষেপ নেওয়ার আবেদন জানানো হয়েছে৷ তবে রাষ্ট্রসংঘের তরফে এও জানানো হয়েছে, সব দেশে প্লাস্টিক বাতিল করতে একইরকম ব্যবস্থা নেবে, এমনটা ভেবে নেওয়া খুব সঙ্গত নয়৷ কারণ, তা কোনওদিনই বাস্তবে সম্ভব নয়৷ প্রত্যেকে আলাদাভাবেই প্লাস্টিকের ব্যবহার কমাবেন৷ তাহলেই একদিন পৃথিবী হয়ে উঠবে প্লাস্টিকমুক্ত৷ নাইরোবির এই আলোচনায় বিভিন্ন বেসরকারি সংস্থার তরফে তথ্য দিয়ে জানানা হয়, সারা বছরে তাঁরা কত প্লাস্টিক ব্যবহর করে৷ বিশ্বখ্যাত পানীয় সংস্থার একটি ব্র্যান্ড জানিয়েছে, বছরের তাঁরা অন্তত ৩ মিলিয়ন টন প্লাস্টিক ব্যবহার করে৷ অর্থাৎ প্রায় ৩০ লক্ষ টন৷ এর ফলে সবচেয়ে বেশি দূষিত হয় প্রশান্ত মহাসাগরীয় সমুদ্র উপকূল৷ প্রশস্ত জায়গা হওয়ায় পর্যটকরা নানা প্লাস্টিকের জিনিসপত্র ছড়িয়ে ছিটিয়ে ফেলে যান৷ এভাবেই ছড়িয়ে পড়ছে প্লাস্টিক দূষণ৷ বিশ্বের উচ্চতম শৃঙ্গে প্লাস্টিকের যথেচ্ছ ব্যবহার নিয়ে আগেই সতর্ক করা হয়েছিল৷ শৃঙ্গ অভিযানের নামে এভারেস্টে উঠে অভিযাত্রীরা অনেক সময়েই ভুলে যান ওই জায়গার পরিচ্ছন্নতার কথা৷ তা নিয়ে বিতর্কও কম হয়নি৷

 

plastic-on-mountain

ভারতের বিরুদ্ধে তালিবানকে অস্ত্র করতে চাইছে আইএসআই!  

নাইরোবির সম্মেলনে বিভিন্ন দেশ থেকে প্রায় ৪৭০০ জন পরিবেশ মন্ত্রী, বিজ্ঞানী এবং বাণিজ্য জগতের প্রতিনিধিরা৷ সকলেই প্লাস্টিকের ব্যবহার কমানো নিয়ে একমত হয়েছেন৷ রাষ্ট্রসংঘের নির্দেশ মেনে যে যার মতো করে পরিবেশ সুরক্ষার জন্য কাজ করবে৷ কিন্তু লক্ষ্যমাত্রা ২০৩০৷ তার মধ্যেই কাজের প্রভাব হাতেনাতে পেশ করতে হবে৷ এছাড়া এই ৫ দিনের সম্মেলনে আরও দুটি বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়৷ প্লাস্টিক ব্যবহার কমানোর পাশাপাশি খাবার নষ্ট করাও রুখতে হবে৷ আর কোথাও কোনওরকম উন্নয়নমূলক কাজের পরিকল্পনা করা হলে, তা ওই দেশের প্রাচীন জনজাতির সঙ্গে আলোচনা সাপেক্ষেই করতে হবে৷  

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে