৪ ভাদ্র  ১৪২৬  বৃহস্পতিবার ২২ আগস্ট ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: স্বাধীন বাংলাদেশ গড়ে তুলতে ইন্দিরা গান্ধীর পাশে দাঁড়িয়েছিল সোভিয়েত ইউনিয়ন। সেই ধারা বজায় রেখে এবার কাশ্মীরের পুনর্জন্মে নরেন্দ্র মোদির পাশে দাঁড়াল বন্ধু রাশিয়া। সংবিধান মেনেই জম্মু ও কাশ্মীর সংক্রান্ত ৩৭০ ধারা রদ করেছে ভারত। শুক্রবার, এমনটাই মন্তব্য করল রুশ বিদেশমন্ত্রক।  এদিকে, আজ রাষ্ট্রসংঘের নিরাপত্তা পরিষদে কাশ্মীর ইস্যু তুলে ধরার পাকিস্তানের চেষ্টা বিফল হয়ে যায়। ৩৭০ ধারা রদ নিয়ে কোনও মন্তব্য করতে চায়নি নিরাপত্তা পরিষদ।

[আরও পড়ুন: কাশ্মীর নীতি পালটায়নি, পাকিস্তানকে ধাক্কা দিয়ে ঘোষণা আমেরিকার]

সোমবার ৩৭০ ধারা রদ হওয়ার পর এই বিষয়ে উচ্চবাচ্য করেনি রাশিয়া। যদিও প্রথামাফিক মস্কো যে নয়াদিল্লির পাশে দাঁড়াবে তা জানাই ছিল। সেই মতো গতকাল পাকিস্তানকে আরও কোণঠাসা করে ভারতের পক্ষেই মত দিল রাশিয়া। রুশ বিদেশমন্ত্রকের বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ‘৩৭০ ধারা রদ ও জম্মু-কাশ্মীর পুনর্গঠন বিল পাশ সংবিধান মেনেই করেছে ভারত। আমরা আশা করছি ভারত ও পাকিস্তান সংযম বজায় রাখবে। কাশ্মীর পদক্ষেপ নিয়ে দু’দেশের মধ্যে পরিস্থিতির চূড়ান্ত অবনতি হবে না বলেই আমরা আশা করছি। শিমলা চুক্তি ও লাহোর ডিক্লারেশন মেনেই আলোচনার সমস্যার সমাধান করুক দুই দেশ।’

প্রয়াত প্রধানমন্ত্রী লালবাহাদুর শাস্ত্রীর আমল থেকেই তৎকালীন সোভিয়েত ইউনিয়নের সঙ্গে সম্পর্ক মজবুত হয় ভারতের। ইন্দিরা গান্ধীর আমলে তা আরও মজবুত হয়। ১৯৭১-এর যুদ্ধের সময় ভারত মহাসাগরে মার্কিন নৌবহরের সামনে প্রাচীর হয়ে দাঁড়ায় সোভিয়েত নৌবাহিনী। বিফলে যায় মার্কিন প্রেসিডেন্ট  রিচার্ড নিক্সনের চাল। বাকিটা ইতিহাস। সোভিয়েতের পতন হলেও রাশিয়ার সঙ্গে সেই সম্পর্ক আজও মজবুত। তারই প্রমাণ মিলল এবার।

উল্লেখ্য, আগেই কাশ্মীর ইস্যুতে হস্তক্ষেপের পাক দাবি উড়িয়ে দিয়েছে রাষ্ট্রসংঘ।  শিমলা চুক্তির কথা স্মরণ করিয়ে দুই দশকে সংযম দেখানোর আরজি জানিয়েছেন রাষ্ট্রসংঘের মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেস। ভারতের পাশে দাঁড়িয়েছে সংযুক্ত আরব আমিরশাহী, শ্রীলঙ্কা, মালদ্বীপ-সহ একাধিক দেশ। ইসলামাবাদকে হতাশ করে আমেরিকা সাফ জানিয়েছে কাশ্মীরি নীতিতে কোনও বদল আনা হয়নি। অর্থাৎ এই বিষয়ে হস্তক্ষেপ করবে না ওয়াশিংটন। তুরস্ক, সৌদি আরবও পাকিস্তানকে ভরসা দেয়নি।       

[আরও পড়ুন: কাশ্মীর নিয়ে পাকিস্তানকে ধমক তালিবানের! পাক ষড়যন্ত্রে জল ঢালল আফগানরা]

          

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং