৪ ভাদ্র  ১৪২৬  বৃহস্পতিবার ২২ আগস্ট ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কাশ্মীর বিবাদ নিয়ে নীতি পালটায়নি আমেরিকা। দোনামোনাভাব কাটিয়ে শুক্রবার সাফ জানাল ওয়াশিংটন। কাশ্মীর সমস্যা ভারত ও পাকিস্তানের দ্বিপাক্ষিক আলোচনার বিষয়। শুক্রবার এমনটাই জানিয়েছেন মার্কিন স্বরাষ্ট্রদপ্তরের মুখপাত্র মর্গান অরটাগাস।

[আরও পড়ুন: কাশ্মীর নিয়ে পাকিস্তানকে ধমক তালিবানের! পাক ষড়যন্ত্রে জল ঢালল আফগানরা]

আগেই কাশ্মীর ইস্যুতে মধ্যস্থতা করার পাক দাবি উড়িয়ে দিয়েছে রাষ্ট্রসংঘ। ইসলামাবাদের পাশে দাঁড়ায়নি সংযুক্ত আরব অমিরশাহীর মতো ইসলামিক দেশগুলিও। আফগানিস্তান গোড়া থেকেই রাওয়ালপিণ্ডির উপর খড়গহস্ত। বিশ্বস্ত বন্ধু ভারতের পাশে দাঁড়িয়ে বিতর্ক থেকে নিজেদের দূরে রেখেছে রাশিয়া। একমাত্র ভরসার জায়গা ছিল আমেরিকা। পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের ওয়াশিংটন সফরের পর দু’দেশের সম্পর্কে ফের ‘উষ্ণতা’ আসে। কাশ্মীর নিয়ে মধ্যস্থতার বিতর্কিত বার্তাও দেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পও। ফলে স্বাভাবিকভাবেই কাশ্মীর ইস্যুতে নয়াদিল্লির বিরুদ্ধে ওয়াশিংটনকে হাতিয়ার করার পরিকল্পনা ছিল ইসলামাবাদের। তবে ৩৭০ ধারা রদ করে ও জম্মু-কাশ্মীরকে দু’টি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে ভাগ করে সেই জল্পনায় জল ঢেলে দিয়েছে মোদি সরকার।

কাশ্মীরে মানবাধিকার লংঘন করছে ভারত বলে আগেই অভিযোগ জানিয়েছেন পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। সেই বিষয়ে প্রশ্ন করা হলে, মার্কিন স্বরাষ্ট্রদপ্তরের মুখপাত্র মর্গান অরটাগাস বলেন, ‘কাশ্মীর নিয়ে আমাদের ঘোষিত নীতির বাইরে গিয়ে আমি কোনও মন্তব্য করব না। আমরা দু’পক্ষের সঙ্গেই আলোচনা চালাচ্ছি এবং পরিস্থিতির উপর নজর রাখছি।’ কুটনীতিকদের মতে, অত্যন্ত কৌশলে কাশ্মীর নিয়ে পাকিস্তানের সমস্ত অভিযোগ উড়িয়ে দিয়েছে আমেরিকা। ফলে আপাতত আমেরিকার কাছ থেকেও খালি হাতে ফিরতে হয়েছে পাকিস্তানকে।     

এদিকে, আন্তর্জাতিক মঞ্চে কার্যত একঘরে হয়ে ফুঁসছে পাকিস্তান। গত বুধবার, ভারতের সঙ্গে যাবতীয় বাণিজ্যিক চুক্তি স্থগিত রাখার কথা ঘোষণা করে দেশটি। এছাড়াও একাধিক দ্বিপাক্ষিক চুক্তি খতিয়ে দেখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে পাক সরকার। দ্বিপাক্ষিক কূটনৈতিক আদানপ্রদানও আগের তুলনায় কমানো হবে বলে ঘোষণা করা হয়েছে।  গতকাল থেকে বাতিল করা হয়েছে সমঝোতা এক্সপ্রেসও। বলিউডের সিনেমা প্রদর্শনের উপরও নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে ইসলামাবাদ।     

[আরও পড়ুন: কুলভূষণের সঙ্গে একান্ত সাক্ষাৎ নয়, দিল্লির দাবি উড়িয়ে জানাল পাকিস্তান]

                

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং