২৩  শ্রাবণ  ১৪২৯  বৃহস্পতিবার ১১ আগস্ট ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

পুতিনের বিরুদ্ধে ‘যুদ্ধ’ করলেও রাশিয়ান স্যালাডেই মজে ন্যাটো কর্তারা

Published by: Anwesha Adhikary |    Posted: June 29, 2022 7:19 pm|    Updated: June 29, 2022 7:19 pm

Russian Salad at NATO summit menu, stirred controversy | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ইউক্রেনে হামলা চালানোর পরে একরাশ নিষেধাজ্ঞা চাপানো হয়েছে রাশিয়ার উপরে। রুশ তেল থেকে শুরু করে সোনা- বাদ পড়েনি কিছুই। আন্তর্জাতিক বাজারে কী করে রাশিয়াকে আরও কোণঠাসা করা যায়, মূলত সেই বিষয়ে আলোচনা করতেই বৈঠকে বসেছেন ন্যাটো (NATO) কর্তারা। কিন্তু সেখানে আজব কাণ্ড! রাশিয়ান স্যালাড নামের পদ চেটেপুটে খেলেন প্রবল রুশ বিরোধী দেশগুলির মন্ত্রীরা। সঙ্গে আরও জানা গিয়েছে, টেবিলে সাজানোর এক ঘণ্টার মধ্যেই শেষ হয়ে গিয়েছে এই পদ।

স্পেনের মাদ্রিদের একটি হোটেলে বসেছে ন্যাটো বৈঠক (NATO Summit)। প্রথম দিনের খাদ্য তালিকা দেখে তো রাষ্ট্রনেতাদের চক্ষু চড়কগাছ! দিব্যি জ্বলজ্বল করছে একটি নাম, ‘রাশিয়ান স্যালাড’ (Russian Salad)। দেখে সামান্য অপ্রস্তুত হয়ে পড়েছিলেন নানা দেশের আধিকারিকরা। কিন্তু তারপরে তো রুশ খাবারের স্বাদে মজে গেলেন সকলেই। বৈঠকে উপস্থিত সাংবাদিকদের তরফে জানা গিয়েছে, মাত্র এক ঘণ্টার মধ্যেই শেষ হয়ে গিয়েছে রাশিয়ান স্যালাড। 

[আরও পড়ুন: BRICS সামিটে পাকিস্তানের উপস্থিতি আটকে দিল ভারত, ঠেকাতে পারল না চিনও]

কীভাবে তৈরি হয় এই রাশিয়ন স্যালাড? মূলত কড়াইশুঁটি, আলু এবং গাজর দিয়ে বানানো হয় এই পদ। সামান্য ভাপিয়ে নিয়ে মেয়োনিজ মাখানো হয় সবজিতে। এই খাবারে প্রচুর ক্যালরি রয়েছে। ইনাকি লোপেজ নামে এক স্পেনীয় সাংবাদিক বলেছেন, “ন্যাটো বৈঠকে রাশিয়ান স্যালাড? আমি তো বেশ অবাক হয়ে গিয়েছি এমন খাবার দেখে।” তবে এই কথা জানাজানি হতেই সামাল দেওয়ার চেষ্টা শুরু হয়। কোনওমতে স্যালাডে টমেটো যোগ করে নতুন নামকরণ করা হয় ওই পদের। তখন নাম দেওয়া হয়, ‘ইউক্রেনিয়ান স্যালাড’।

রাশিয়ার বিরুদ্ধে যুদ্ধে (Russia-Ukraine War) সরাসরিভাবে অংশ নেয়নি ন্যাটো। কিন্তু ইউক্রেনকে অস্ত্র, অর্থ এবং অন্যান্য রসদ জুগিয়ে সাহায্য করছে তারা। বিশেষজ্ঞদের মতে, পরোক্ষে রাশিয়ার সঙ্গে যুদ্ধ করছে ন্যাটোই। মঙ্গলবার থেকে শুরু হয়েছে ন্যাটো বৈঠক। রাশিয়ার বিরুদ্ধে আরও কঠোর পদক্ষেপ করা হবে এই বৈঠকে, এমনটাই মত বিশেষজ্ঞদের। সেই সঙ্গে সুইডেন ও ফিনল্যান্ড নতুন সদস্য হিসাবে যোগ দিতে চেয়ে আবেদন করেছে। তাদের সসদ্যপদ গ্রহণের কাজও হবে। কিন্তু যে দেশের বিরুদ্ধে এত লড়াই, সেই দেশের খাবার দিয়েই তো পেট ভরালেন বিরোধীরা!

[আরও পড়ুন: সমাজকর্মী তিস্তার গ্রেপ্তারির প্রতিবাদে সরব রাষ্ট্রসংঘ, কড়া প্রতিক্রিয়া ভারতের]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে