BREAKING NEWS

১০ কার্তিক  ১৪২৮  বৃহস্পতিবার ২৮ অক্টোবর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

ফের মধ্যপ্রাচ্যে যুদ্ধের দামামা! সৌদি আরবে মিসাইল হামলা চালাল ইয়েমেন

Published by: Paramita Paul |    Posted: September 5, 2021 10:41 am|    Updated: September 5, 2021 11:45 am

Saudi Arabia intercepts Ballistic Missile attack from Yemen | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ফের মধ্যপ্রাচ্যে যুদ্ধের দামামা! শনিবার রাতে সৌদি আরবে (Saudi Arabia) মিসাইল ছুঁড়ল ইয়েমেনের হুতি গোষ্ঠী। যদিও সৌদির প্রতিরক্ষা বিভাগের তৎপরতায় লক্ষ্যে পৌঁছনোর আগেই ধ্বংস করে দেওয়া হয় ক্ষেপনাস্ত্রটি। তবে তার নষ্ট হওয়া অংশের ঘায়ে গুরুতর জখম হয়েছে দুই শিশু। ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে একাধিক বাড়ি। হামলার পালটা জবাব দেওয়ার হুঁশিয়ারি দিয়ে রেখেছে সৌদি সরকারও। সবমিলিয়ে ফের মধ্যপ্রাচ্যে (Middle East) যুদ্ধের মেঘ দেখা যাচ্ছে বলে মনে করছে ওয়াকিবহাল মহল।

সৌদি সরকার পরিচালিত সংবাদমাধ্যমের দাবি, শনিবার রাতে ইয়েমেন (Yemen) থেকে ব্যালিস্টিক মিসাইলটি ছোঁড়া হয়। তবে দাম্মাম শহরের আকাশেই ধ্বংস করে দেওয়া হয় মিসাইলটি। মিসাইল (Missile) থেকে ধারালো যন্ত্রাংশ শহরাঞ্চলে ছড়িয়ে পড়ে। যার আঘাতে জখম হয়েছে দুই শিশু। ১৬টি বাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। যদিও হামলার দায় স্বীকার করেনি ইরানের মদতপুষ্ট হুতি গোষ্ঠী।

[আরও পড়ুন: ফের পঞ্জশিরে বেকায়দায় Taliban, মাসুদ বাহিনীর পালটা মারে এক রাতেই খতম ৭০০ জেহাদি]

এদিন রাতে সৌদির দক্ষিণপ্রান্তে অবস্থিত জাঝান এবং নজরানে মিসাইল হামলার ছক কষেছিল হুতি গোষ্ঠী। কিন্তু সেই হামলার ছকও বানচাল করে দেয় সৌদির সেনা। এমনকী, বিস্ফোরক ভরতি তিনটি ড্রোনও নষ্ট করে তারা। সবমিলিয়ে সৌদির বিভিন্ন প্রান্তে বড়সড় নাশকতার ছক কষেছিল ইয়েমেনে আন্দোলনরত হুতি (Houthi) গোষ্ঠী। যার মূল লক্ষ্য ছিল সৌদি তেল উৎপাদক ক্ষেত্রগুলি। ২০১৯ সালের মতো এবারও তেল উৎপাদনক্ষেত্রে হামলা চালিয়ে উৎপাদন বন্ধের ছক কষেছিল তারা। তবে সেনার তৎপরতায় সেই হামলা এড়ানো সম্ভব হয়েছে। এ প্রসঙ্গে সৌদির প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের জারি করা বিবৃতি অনুযায়ী, সীমান্তের ওপার থেকে এ ধরনের হামলা রুখতে যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। দেশের জমি, মানুষ ও সম্পদরক্ষায় বদ্ধপরিকর সরকার। এ ধরনের হামলার জবাব দেওয়া হবে।

[আরও পড়ুন: নজরে তালিবান! এবার কাজাখস্তানের মাটিতে শক্তিপ্রদর্শন ভারতীয় ফৌজের]

এ প্রসঙ্গে বলে রাখা দরকার ২০১৫ সাল থেকেই ইয়েমেনে রয়েছে সৌদি আরব নেতৃত্বাধীন জোটবাহিনী। যারা ক্ষমতাচ্যুত প্রেসিডেন্ট আব্দ-রব্বু মনসুর হুতির সমর্থনে লড়াই চালাচ্ছে। অন্যদিকে রয়েছে ইরানের মদতপুষ্ট হুতি গোষ্ঠী। ইয়েমেনের যুদ্ধের ঝাঁজ মাঝেমধ্যে এসে পড়ে সৌদি আরবের বিভিন্ন শহরে।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement