BREAKING NEWS

১৬ অগ্রহায়ণ  ১৪২৯  শনিবার ৩ ডিসেম্বর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

থামছে না আজারবাইজান-আর্মেনিয়ার যুদ্ধ, শান্তি ফেরাতে মধ্যস্থতার প্রস্তাব সুইজারল্যান্ডের

Published by: Monishankar Choudhury |    Posted: September 29, 2020 9:25 am|    Updated: September 29, 2020 9:25 am

Switzerland ready to host high-level meetings between Armenia, Azerbaijan | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: আন্তর্জাতিক মঞ্চের চাপ বাড়লেও আজারবাইজান ও আর্মেনিয়ার মধ্যে কিছুতেই থামছে না যুদ্ধ। এই সংঘর্ষে এপর্যন্ত মৃত্যু হয়েছে প্রায় ১০০ জনের। বিতর্কিত নাগর্নো-কারাবাখ অঞ্চলে তুমুল গোলাবর্ষণ চলছে। এহেন পরিস্থিতিতে শান্তি ফেরাতে এবার মধ্যস্থতার প্রস্তাব দিয়েছে সুইজারল্যান্ড।

[আরও পড়ুন: টিকটক নিয়ে বড় ধাক্কা ট্রাম্পের, অ্যাপ ডাউনলোডে তাঁর নিষেধাজ্ঞায় স্থগিতাদেশ আদালতের]

সোমবার জারি করা এক বিবৃতিতে সুইস বিদেশমন্ত্রকের বক্তব্য, “আমরা দুই পক্ষকেই মনে করিয়ে দিতে চাই যে আন্তর্জাতিক আইন মতে সাধারণ মানুষকে নিরাপত্তা দিতে তারা দায়বদ্ধ। এই সংঘর্ষে ইতি টানতে এখনই আলোচনায় বসুক উভয়পক্ষ। আমরা দুই দেশের কাছে আবেদন জানাচ্ছি তারা যেন বিতর্কিত নাগর্নো-কারাবাখ অঞ্চলে সামরিক অভিযান না চালায়।”

আর্মেনিয়ার প্রতিরক্ষামন্ত্রকের মুখপাত্র আর্টসরুন হভানিসিয়ান জানান, সোমবার বিকেল থেকেই কারবাখের দক্ষিণ ও উত্তর-পূর্ব সেক্টরে প্রবল অভিযান শুরু করেছে আজারবাইজানের সেনাবাহিনী। কারবাখের প্রতিরক্ষামন্ত্রক জানিয়েছে, সোমবারের সংঘর্ষে ২৬ জন বিদ্রোহীর মৃত্যু হয়েছে। সব মিলিয়ে সংঘর্ষে এখনও পর্যন্ত ৮৪ জন বিদ্রোহী সেনার মৃত্যু হয়েছে। এদিকে, আজারবাইজানের ৯ জওয়ান ও আর্মেনিয়ার ২ সৈনিকের মৃত্যু হয়েছে বলেও খবর। সব মিলিয়ে রবিবার থেকে চলা তুমুল লড়াইয়ে এপর্যন্ত প্রাণ হারিয়েছেন শতাধিক মানুষ।

উল্লেখ্য, এই লড়াইয়ে বারবার আজারবাইজানের (Azerbaijan) পক্ষে দাঁড়িয়েছে তুরস্ক। রুশ মদতপুষ্ট আর্মেনিয়া অভিযোগ জানিয়েছে, সিরিয়া থেকে ৪ হাজার তুর্কি মিলিশিয়া কারাবাখ অঞ্চলের লড়াইয়ে শামিল হয়েছে। নাগর্নো-কারাবাখ অঞ্চলটি আজারবেইজানের ভৌগলিক সীমানার মধ্যে হলেও সেটির দখল রয়েছে আর্মেনিয়ান বিরোধীদের হাতে। অভিযোগ, আজারবাইজানের সরকারি বাহিনীর বিরুদ্ধে লড়াই চালাতে ওই বিদ্রোহীদের মদত দিচ্ছে আর্মেনিয়া (Armenia)। রবিবার আজারবাইজানের চারটি সামরিক হেলিকপ্টার গুলি করে নামিয়ে দেওয়ার পাশাপাশি ১০টি ট্যাংক ও ১৫ টি ড্রোনে আঘাত হানা হয়েছে বলে দাবি করেছে আর্মেনিয়ার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক৷ এর আগে আজারবাইজান সেখানে নিরীহ নাগরিকদের উপরে বোমাবর্ষণ করেছে বলেও উল্লেখ করা হয়৷

[আরও পড়ুন: করোনা LIVE UPDATE: মহামারীর কোপে গত ৫ দশকে পূর্ব এশিয়ায় আর্থিক বৃদ্ধি সর্বনিম্ন, উদ্বেগ বিশ্ব ব্যাংকের]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে