২২ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  বৃহস্পতিবার ৯ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

Taliban capture Afghanistan: নতুন সরকার ‘ইসলামিক এমিরেট অফ আফগানিস্তান’ তৈরির পথে তালিবান

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: August 16, 2021 9:16 am|    Updated: August 23, 2021 9:35 pm

Taliban to declare new govt 'Islamic Emirate of Afghanistan', say sources | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মাত্র দেড় মাসের মধ্যে আমূল পরিবর্তন। বদলে গেল সরকার, পালটে গেল তার নামও। তালিবানদের (Taliban) দখলে আসার পর আফগানিস্তানের (Afghanistan) নতুন সরকারের নাম হতে চলেছে ‘ইসলামিক এমিরেট অফ আফগানিস্তান’। দ্রুতই এই নতুন সরকার গঠনের কথা ঘোষণা করতে চলেছে জঙ্গিগোষ্ঠী। কাবুলের প্রেসিডেন্ট ভবন দখল করে বসার পর এমনই খবর জানিয়েছে তালিবানদের একাংশ। সূত্রের খবর, প্রশাসনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে, এমন এক গোষ্ঠীর মাধ্যমেই মিলেছে ‘ইসলামিক এমিরেট অফ আফগানিস্তান’ প্রতিষ্ঠার খবর। এদিকে, ভারতের মতো তালিবানের এই ক্ষমতা দখলকে মান্যতা দিতে নারাজ ব্রিটেন (UK), রাশিয়াও (Russia)। আজই জরুরি ভিত্তিতে আফগানিস্তান নিয়ে বৈঠকে বসছে রাষ্ট্রসংঘের নিরাপত্তা পরিষদ (UNSC)।

রবিবার দুপুরে কাবুল (Kabul) কবজায় আনার পরই প্রেসিডেন্ট ভবনে ঢুকে পড়েছিল তালিবান জঙ্গিরা। তার আগেই অবশ্য প্রেসিডেন্ট ভবন ছেড়ে, ইস্তফা দিয়ে পালিয়েছিলেন বিদায়ী প্রেসিডেন্ট আশরাফ ঘানি। তিনি সম্ভবত এই মুহূর্তে তাজিকিস্তানের আশ্রয়। আমেরিকার সঙ্গে আলোচনার মাধ্যমে নিরাপত্তার পথ খুঁজছেন বলে সূত্রের খবর। ঘনিষ্ঠ মহলে ঘানি নাকি জানিয়েছেন, দেশকে রক্তবন্যার হাত থেকে বাঁচাতেই তাঁর পদত্যাগের সিদ্ধান্ত। তাঁর সরকার ভেঙে চুরমার। ক্ষমতার মসনদে বসে পড়া তালিবানদের হুঁশিয়ারি, সরকারি আধিকারিক, কর্তাদের সেই ২০ বছর আগের মতো মাথা নিচু করে দেশে থাকতে হবে।  তালিবানদের শাসন চলবে দেশজুড়ে। কোনওরকম দুর্নীতি, ঘুষের থেকে দূরে থাকতে হবে। ক্ষমতাসীন তালিবানের কথামতো চলতে হবে। প্রেসিডেন্ট ভবনে ঘাঁটি গেড়ে বসে এসব বার্তাই দিচ্ছে জঙ্গিগোষ্ঠী।

[আরও পড়ুন: Afghanistan: ভারতের উপর চাপ বাড়িয়ে তালিবানদের মান্যতা দেওয়ার পথে চিন?]

এদিকে, তালিবান আফগানিস্তানের দখল নেওয়ার পর ভারতের আফগান দূতাবাসের মুখপাত্র আবদুল হক আজাদ অভিযোগ করেছেন, তাঁর টুইটার (Twitter) অ্যকাউন্ট আর ব্যবহার করা যাচ্ছে না। অ্যাকাউন্টটি হ্যাক হয়েছে বলে আশঙ্কা তাঁর।

এই পরিস্থিতিতে আফগানিস্তান থেকে বিভিন্ন দেশের দূতাবাসের কর্মী, নাগরিকদের ফেরাতে তৎপর। ভারত থেকে এয়ার ইন্ডিয়ার বিমানটি ১২৯ জন যাত্রীকে নিয়ে রবিবার সন্ধেবেলা কাবুল থেকে ফেরার পর ভারত-আফগানিস্তানের মধ্যে বিমান যোগাযোগ সম্পূর্ণ বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে সুরক্ষার স্বার্থে। তবে সেনাবাহিনীর বিমান C-17Globemasterকে প্রস্তুত করা হয়েছে যাতে যে কোনও মুহূর্তে আফগানিস্তান থেকে আটকে থাকা ভারতীয়দের নিয়ে দেশে ফিরতে পারে।

[আরও পড়ুন: Pakistan: গ্রেনেড হামলা, ভয়াবহ বিস্ফোরণে কেঁপে উঠল করাচি, মৃত অন্তত ১৩]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে