BREAKING NEWS

১৮ অগ্রহায়ণ  ১৪২৯  সোমবার ৫ ডিসেম্বর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

নাভালনিকে বিষ দেয় রুশ গুপ্তচর সংস্থা FSB! প্রকাশ্যে বিস্ফোরক তথ্য

Published by: Monishankar Choudhury |    Posted: December 28, 2020 5:31 pm|    Updated: December 28, 2020 5:31 pm

Top associate of Russia’s Navalny released from detention | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: অবশেষে ক্রেমলিনের সমালোচক অ্যালেক্সেই নাভালনির ঘনিষ্ট সহযোগী লিউভব সুবলকে মুক্তি দিল রুশ পুলিশ। তাঁর বিরুদ্ধে এক নিরাপত্তা আধিকারিকের বাড়িতে অবৈধভাবে প্রবেশের অভিযোগ ছিল। তাৎপর্যপূর্ণভাবে, ওই নিরাপত্তা আধিকারিকের কাছ থেকে নাভালনিকে বিষ দেওয়ার চক্রান্তের বিষয়ে অনেক কিছু জানতে পারা গিয়েছে বলে দাবি করে বিরোধী শিবির।

[আরও পড়ুন: মার্কিন চাপে সুরবদল, ড্যানিয়েল পার্লের হত্যাকারীদের মুক্তি দিচ্ছে না পাকিস্তান]

রুশ সংবাদমাধ্যম সূত্রে খবর, গত শুক্রবার সুবলকে আটক করে পুলিশ। তারপর রবিবার তাঁকে মুক্তি দেওয়া হয়। অভিযোগ, সম্পূর্ণ বেআইনিভাবে রুশ গোয়েন্দা আধিকারিক কন্সটানটিন কুদরিয়াভসেভয়ের মস্কোর বাড়িতে হানা দেন নাভালনির ‘অ্যান্টি করাপশন ফাউন্ডেশন’-এর অন্যতম শীর্ষ সদস্যা সুবল। তারপরই তাঁকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করে পুলিশ। উল্লেখ্য, ক্রেমলিনের তীব্র বিরোধী নাভালনি সোমবার একটি ফোন রেকর্ডিং প্রকাশ্যে এনে দাবি করেছেন। কারা এবং কীভাবে তাঁর উপর সোভিয়েত জমানার নার্ভ এজেন্ট প্রয়োগ করা হয় সেই চক্রান্তের কথা ভুল করে ফাঁস করে দিয়েছেন রুশ গুপ্তচর সংস্থা FSB-এর অফিসার কন্সটানটিন কুদরিয়াভসেভ। বলাবাহুল্য, নিজের পরিচয় গোপন করে এক রুশ শীর্ষকর্তার পরিচয় দিয়ে কুদরিয়াভসেভকে ফোন করেছিলেন নাভালনি। বর্তমানে জার্মানি থাকা নাভালনি অভিযোগ করেন, নার্ভ এজেন্ট নভিচক ব্যবহারের প্রমাণ লোপাট করতে তাঁর অন্তর্বাসটিকে তদতন্তকারীদের হাত থেকে সরিয়ে ফেলেছিলেন কুদরিয়াভসেভ।

উল্লেখ্য, আগস্টের ২০ তারিখ সাইবেরিয়ার টমস্ক থেকে বিমানে মস্কো ফিরছিলেন নাভালনি ( Alexei Navalny)। মাঝ আকাশে আচমকাই অসুস্থ হয়ে পড়েন তিনি। উপায় না দেখে ওমস্ক শহরে বিমানের জরুরি অবতরণ করিয়ে শুরু হয় চিকিৎসা। নাভালনি ঘনিষ্ঠদের প্রাথমিক ধারণা, টমস্ক বিমানবন্দরে তাঁর চায়ে বিষ মেশানো হয়েছে। চিকিৎসকরা জানান, নাভালনির স্নায়ুতন্ত্র ক্রমশ দুর্বল হয়ে পড়ছিল। কোমায় আচ্ছন্ন হন তিনি। সেটা বিষের প্রভাবে বলেই ধারণা করা হচ্ছিল। এরপর নাভালনির শারীরিক অবস্থার দ্রুত অবনতি হতে থাকায় জার্মানির বার্লিনে উড়িয়ে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানকার চিকিৎসকরা পরীক্ষানিরীক্ষার পর বিষ প্রয়োগের ব্যাপারটি নিশ্চিত করেন। তারপর সুইডেন ও ফ্রান্সের গবেষণাগারও সাফ জানায়, প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের কট্টর বিরোধী নাভালনির উপর সোভিয়েত জমানার ভয়াবহ নার্ভ এজেন্ট নভিচক প্রয়োগ করা হয়েছিল।

[আরও পড়ুন: বালুচিস্তানের চেকপোস্টে জঙ্গি হামলা, মৃত কমপক্ষে ৭ জন পাকিস্তানি সেনা]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে