BREAKING NEWS

১৪ কার্তিক  ১৪২৭  শনিবার ৩১ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

করোনা আক্রান্ত হয়েও হয়নি সুমতি, ভারচুয়াল প্রেসিডেন্সিয়াল ডিবেটে ‘না’ ট্রাম্পের

Published by: Monishankar Choudhury |    Posted: October 9, 2020 8:38 am|    Updated: October 9, 2020 8:38 am

An Images

ফাইল ফটো

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: খোদ করোনা ভাইরাসের খপ্পরে পড়েও সুমতি হয়নি মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের (Donald Trump)। পুরোপুরি সুস্থ হয়ে ওঠার আগেই হাসপাতাল থেকে একপ্রকার জোর করেই চলে এসেছেন তিনি। যা নিয়ে রীতিমতো উত্তাল মার্কিন রাজনীতি। এহেন পরিস্থিতিতে এবারভারচুয়াল প্রেসিডেন্সিয়াল ডিবেটে অংশ না নেওয়ার কোথা ঘোষণা করেছেন রিপাবলিকান প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্প।

[আরও পড়ুন: যুদ্ধের মাঝে জীবনের জয়গান, আর্মেনিয়ায় একটি ব্যতিক্রমী ভারতীয় রেস্তরাঁর গল্প]

সংবাদ সংস্থা এএনআই সূত্রে খবর, বৃহস্পতিবার ট্রাম্প সাফ জানিয়ে দেন কোনও ভারচুয়াল বিতর্ক সভায় তিনি অংশ নেবেন না। প্রেসিডেন্ট পদপ্রার্থীদের মধ্যে আগামী বিতর্ক সভা অনুষ্ঠিত হবে অক্টোবরের ১৫ তারিখ মায়ামি শহরে। তবে করোনা পরিস্থিতির কথা মাথায় রেখে প্রার্থীদের স্বাস্থ্যরক্ষায় রীতিমতো উদ্বিগ্ন ডিবেট কমিশন। এদিকে নূন্যতম ১০ দিন হাসপাতালের আইসোলেশনে থাকার পরিবর্তে ৩ দিনেই ছুটি নিয়ে নেন ট্রাম্প। পরবর্তী প্রেসিডেন্সিয়াল ডিবেটে অংশগ্রহণ করতেও উদগ্রীব হয়ে ওঠেন তিনি। এহেন পরিস্থিতিতে পরবর্তী বিতর্ক সভার ভবিষ্যত নিয়ে চিন্তায় ঘুম উড়তে দেখা যায় মার্কিন ডিবেট কমিশনের। তারপরই পরবর্তী বিতর্ক সভা ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে করার কথা জানায় ডিবেট কমিশন। আর এই সিদ্ধান্তেই বেঁকে বসেন আসন্ন নির্বাচনে রিপাবলিকান শিবির থেকে প্রেসিডেন্ট পদপ্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্প।

সংবাদমাধ্যমে এই প্রসঙ্গে বিদায়ী মার্কিন প্রেসিডেন্ট সাফ জানান, “ভারচুয়াল ডিবেট আমার কাছে কোনওভাবেই গ্রহণযোগ্য নয়। আমি ভারচুয়াল বিতর্ক সভায় অংশগ্রহণ করছি না।” যদিও করোনা ছুতোয় ডেমোক্র্যাটিক প্রার্থী জো বিডেন যে কোনও ভাবেই পার পাবেন না এদিন সেই হুঁশিয়ারিও দিতে দেখা যায় ট্রাম্পকে। অন্যদিকে বাইডেনের বক্তব্য, “আমি চাই ট্রাম্প পুরোপুরি সুস্থ হয়েই ফের বিতর্কে অংশগ্রহণ করুন। তবে এই ক্ষেত্রে সমস্ত করোনা প্রোটোকল অনুসরণ করা না হলে ডিবেট চালানো কার্যত অসম্ভব।”

[আরও পড়ুন: দ্রুত আসছে করোনার ভ্যাকসিন! সদস্য দেশগুলিকে টিকা বিতরণের প্রস্তুতি নিতে বলল WHO]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement