BREAKING NEWS

১২ কার্তিক  ১৪২৭  শুক্রবার ৩০ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

ভোটগ্রহণে কারচুপির অভিযোগ, নজর রাখতে ময়দানে ‘ট্রাম্প আর্মি’

Published by: Monishankar Choudhury |    Posted: October 14, 2020 1:20 pm|    Updated: October 14, 2020 1:24 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: প্রেসিডেন্ট নির্বাচন নিয়ে সরগরম মার্কিন মুলুক। রাজনীতির রণাঙ্গনে একে অপরের বিরুদ্ধে তোপ দাগছেন রিপাবলিকান প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্প ও ডেমোক্র্যাট প্রার্থী জো বিডেন। এহেন পরিস্থিতিতে মেল-ইন-ব্যালটে কারচুপির অভিযোগে শুরু হয়েছে বিতর্ক। ফলে নির্ণায়ক স্টেট বা প্রদেশগুলিতে কাজে নেমে পড়েছে ‘ট্রাম্প আর্মি’।

[আরও পড়ুন: মুখ থুবড়ে পড়ল গবেষণা! ৪৮ দিনের মধ্যে দ্বিতীয়বার করোনা আক্রান্ত মার্কিন যুবক]

জানা গিয়েছে, উইসকনসিন, পেনসিলভেনিয়া ও ফ্লোরিডার মতো অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ স্টেটগুলিতে মেল-ইন-ব্যালটে ‘কারচুপি’ রুখতে হাজার হাজার ট্রাম্প সমর্থক কাজে নেমে পড়েছেন। ওই ‘poll watchers’ বা ‘নির্বাচনী প্রহরী’দের গোটা ভোটগ্রহণ প্রক্রিয়ায় নজর রাখার আবেদন জানিয়েছেন বিদায়ী প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প (Donald Trump)। মোবাইল ক্যামেরা নিয়ে প্রস্তুত ওই কর্মীরা কোনও কারচুপি হলেই সেই ঘটনা ক্যামেরবন্দি করে ফেলবেন।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে বিদেশি হস্তক্ষেপ, বিশেষ করে রাশিয়ার প্রভাব ফেলা নিয়ে বিতর্ক রয়েছে। এর মধ্যে করোনা আবহে মেল-ইন-ব্যালট প্রক্রিয়ার স্বচ্ছতা ও ভোট সঠিক প্রার্থীর খাতায় জমা হচ্ছে কি না, তা নিয়ে মার্কিনীদের মনে সংশয় রয়েছে। এহেন পরিস্থিতিতে প্রেসিডেন্সিয়াল নির্বাচনের শুরু থেকেই মেল-ইন-ব্যালটের বিরোধিতা করেছেন ট্রাম্প। কারচুপির আশঙ্কা-সহ একাধিক অভিযোগ তুলেছেন তিনি। বাবার সুরেই মেল-ইন-ব্যালটে কারচুপির আশঙ্কা করছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প জুনিয়র। তাঁর দাবি, ডেমোক্র্যাটরা হাজার হাজার ভুয়ো ব্যালট জমা দেওয়ার চেষ্টা করছে। বিদায়ী প্রেসিডেন্টের দাবিতে সুর মিলিয়েছেন রিপাবলিকানরাও। তাই ‘জালিয়াতি’ রুখতে তৈরি করা হয়েছে এই ‘ট্রাম্প আর্মি’।

রিপাবলিকান শিবিরের কথায়, এই নির্বাচনে ব্যাটেলগ্রাউন্ড স্টেটগুলি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। করোনা আতঙ্কে ওই প্রদেশগুলিতে মেল-ইন-ব্যালটে ভোট দেওয়ার প্রবণতা বেশি। তাই এই প্রক্রিয়ায় কোনও অনিয়ম হচ্ছে কি না, তা খুঁটিয়ে দেখবে ‘ট্রাম্প আর্মি’। কোনও অনিয়ম দেখলেই তার ছবি ও ভিডিও তুলে রাখবে তারা। নির্বাচনী ফল সংক্রান্ত জটিলতা হলে এই সমস্ত তথ্যপ্রমাণ সামনে আনা হবে। তবে এখনও পর্যন্ত কতজন স্বেচ্ছাসেবক নিয়োগ করা হয়েছে, সে বিষয়ে কিছু জানায়নি রিপাবলিকান শিবির।

[আরও পড়ুন: মুখ থুবড়ে পড়ল গবেষণা! ৪৮ দিনের মধ্যে দ্বিতীয়বার করোনা আক্রান্ত মার্কিন যুবক]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement