BREAKING NEWS

১৪ মাঘ  ১৪২৮  শুক্রবার ২৮ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

সিরিয়ায় কুর্দ মিলিশিয়ার বিরুদ্ধে অভিযান শুরু করল তুরস্কের ফৌজ

Published by: Monishankar Choudhury |    Posted: October 10, 2019 11:04 am|    Updated: October 10, 2019 11:04 am

Turkey launches military offensive in Syria against SDF

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: আশঙ্কা সত্যি করে উত্তরপূর্ব সিরিয়ায় কুর্দ মিলিশিয়ার বিরুদ্ধে অভিযান শুরু করল তুরস্ক। সিরিয়ার বিদ্রোহী সেনাও এই অভিযানে শামিল হয়েছে। এদিকে সিরিয়া-তুরস্ক সীমান্তে বড়সড় বিস্ফোরণ ঘটেছে। কে বা কারা ওই বিস্ফোরণ ঘটিয়েছে, তা অবশ্য জানা যায়নি।

[আরও পড়ুন: মার্কিন বিমান হানায় খতম ভারতীয় উপমহাদেশের আল কায়দা প্রধান]

জানা গিয়েছে, মার্কিন মদতপুষ্ট কুর্দিশ বাহিনী ‘সিরিয়ান ডেমোক্রেটিক ফোর্সেস’-এর (এসডিএফ) উপর হামলা চালাচ্ছে তুরস্কের সেনা। কয়েকদিন আগেই, তুরস্ক সীমান্তের কাছে উত্তরপূর্ব সিরিয়া থেকে মার্কিন ফৌজ প্রত্যাহারের কথা ঘোষণা করেছিলেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। তারপর থেকেই বাড়ছিল তুরস্কের হামলার আশঙ্কা। উল্লেখ্য, সিরিয়ায় ইসলামিক স্টেটের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে আমেরিকাকে মদত দিচ্ছে এসডিএফ। রুশ সমর্থিত প্রেসিডেন্ট আসাদের সরকারের বিরুদ্ধে লড়াই করেছে এই মিলিশিয়া। এদিকে এরদোগানের অভিযোগ, তুরস্কে বিচ্ছিন্নতাবাদীদের মদত দিচ্ছে এসডিএফ। ‘কুর্দিস্তান’ গঠনে কুর্দ জঙ্গিদের হাতিয়ার দিচ্ছে এসডিএফ। সব মিলিয়ে মার্কিন সেনা পিছু হঠলে এরদোগান, আসাদ ও রাশিয়ার সেনার বিপক্ষে একা মাঠে নামতে হবে এসডিএফকে।

এদিকে, পরিবর্তিত পরিস্থিতিতে এসডিএফ জানিয়েছে, আপাতত ইসলামিক স্টেটের বিরুদ্ধে লড়াই বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে তারা। সমস্ত শক্তি দিয়ে আপাতত তুরস্কের আক্রমণ প্রতিহত করাই এখন তাদের কাছে জরুরি। এদিকে তুরস্কের বিদেশমন্ত্রী মেভলাট কাভুসগলু সাফ বলেছেন, ‘সিরিয়ার মাটিতে জঙ্গিদের শেষ না করা পর্যন্ত থামবে না কুর্দিশ বাহিনী। ‘

উল্লেখ্য, গত বছরের শেষের দিকে পশ্চিম এশিয়ায় নয়া সমীকরণ তৈরি করে সিরিয়া থেকে সেনা প্রত্যাহারের কথা ঘোষণা করে আমেরিকা। মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প দাবি করেন, সন্ত্রাস জর্জরিত দেশটিতে পরাজয় হয়েছে আন্তর্জাতিক জঙ্গি সংগঠন ইসলামিক স্টেটের। তাই সে দেশে মোতায়েন মার্কিন সৈন্যদের ফেরত নিয়ে আসা হবে। আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিশেষজ্ঞদের মতে আমেরিকার প্রস্থানে সিরিয়ায় আরও প্রভাবশালী হয়ে উঠবে রাশিয়া ও ইরান। আরও প্রভাবশালী হয়ে উঠবেন সিরিয়ান প্রেসিডেন্ট বাশার-আল-আসাদ।

[আরও পড়ুন: চিনে উইঘুর মুসলিমদের উপর অকথ্য অত্যাচার, কড়া পদক্ষেপ আমেরিকার]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে