১৫ অগ্রহায়ণ  ১৪২৭  শনিবার ৫ ডিসেম্বর ২০২০ 

Advertisement

স্বদেশীদের সুযোগ, H1B চাকরির ক্ষেত্রে ব্যবসায়িক ভিসায় রাশ টানতে চলেছে আমেরিকা

Published by: Monishankar Choudhury |    Posted: October 27, 2020 1:22 pm|    Updated: October 27, 2020 1:22 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের আবহে বড় সিদ্ধান্তের পথে ট্রাম্প প্রশাসন। মার্কিন নাগরিকদের চাকরির বাজারকে সুরক্ষিত করতে ভিসা নীতিতে আরও বিধিনিষেধ জারি করতে চলেছে ওয়াশিংটন। এবার H1B ভিসার আওতায় চাকরির জন্য দক্ষ বিদেশী কর্মীদের যাতে ব্যবসায়িক ভিসা (B1) না দেওয়া হয়, তার আরজি জানাল মার্কিন বিদেশ দপ্তর।

[আরও পড়ুন: সরাসরি মার্কিন স্যাটেলাইট থেকে ছবি পাবে ভারত! প্রতিরক্ষা ক্ষেত্রে ঐতিহাসিক চুক্তি দু’দেশের]

ভিসা সংক্রান্ত মার্কিন বিদেশ দপ্তরের এই প্রস্তাব চালু হলে বহু ভারতীয় বিপাকে পড়বেন। কারণ এবার ভিসা নিয়ে সব ধরণের অস্পষ্টতা দূর হবে। আর আইনের ফাঁক গলে মার্কিন সংস্থাগুলি বিদেশিদের কম মজুরিতে কাজ করিয়ে নিতে পারবে না। ৩ নভেম্বর মার্কিন সাধারণ নির্বাচনের দু’সপ্তাহ আগে বিদেশ দপ্তরের এই প্রস্তাব ঘিরে তাই অসুবিধায় পড়েছে তথ্যপ্রযুক্তি সংস্থাগুলি। H1B’র বদলে অনেক সংস্থাই সাময়িকভাবে নবনিযুক্ত কর্মীদের থাকার জন্য B-1 ভিসার ব্যবস্থা করত। প্রযুক্তিকর্মীরা বিদেশ থেকে কোনও কাজ সারতেন। এরপর আমেরিকায় সাময়িক ভিসা নিয়ে সেখানে কাজটি শেষ করতেন। এর ফলে বহু ভারতীয় কাজ পেতেন। আর মার্কিন সংস্থাগুলি অপেক্ষাকৃত কম খরচে কাজ করিয়ে নিতে পারত। ওয়াকিবহাল মহলে মতে, এবার সংস্থাগুলি বিদেশি কর্মীদের দিয়ে কাজ করাতে উৎসাহ হারাবে। ফলে সেই জায়গায় মার্কিনীরা কাজের সুযোগ পাবেন।

উল্লেখ্য, আমেরিকায় রাষ্ট্রপতি নির্বাচনকে মাথায় রেখে ভূমিপুত্রদের চাকরির অধিকার সুরক্ষিত করতে গত জুনে এই ভিসা বাতিল করার সিদ্ধান্ত নেয় ট্রাম্প প্রশাসন। তারপরই সরকারি নির্দেশিকায় স্বাক্ষর করেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প (Donald Trump)। ফলে ভিসা সম্পর্কিত নয়া নিয়ম বলবৎ হয় ২৪ জুন থেকেই। নয়া নিয়ম অনুযায়ী, মার্কিন তথ্যপ্রযুক্তি সংস্থাগুলি ভারতীয় ও চিনা চাকুরিপ্রার্থীদের আর নিয়োগ করতে পারবে না। যাঁরা ইতিমধ্যেই কর্মরত তাঁদের চাকরিও প্রশ্নের মুখে। প্রতি বছর মার্কিন সংস্থাগুলি দশ হাজারেরও বেশি ভারতীয় তথ্যপ্রযুক্তি কর্মীদের নিয়োগ করে। বেশ কিছুদিন আগেই মার্কিন প্রেসিডেন্ট ইঙ্গিত দিয়ে রেখেছিলেন লকডাউনের জেরে যেসব আমেরিকাবাসী চাকরি হারিয়েছেন, তাঁদের কথা ভেবে সাময়িকভাবে H-1B ভিসা বাতিল করতে পারেন তিনি। তারপর থেকেই আশঙ্কায় দিন কাটছিল আমেরিকায় চাকরিজীবী ভারতীয়দের। আশঙ্কা সত্যি করে গত ২৩ জুন ট্রাম্প প্রশাসন ঘোষণা করে, আগামী ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত আমেরিকা কোনও বিদেশিকে H-1B, H-2B এবং L ভিসা দেবে না। আগামিদিনে শুধুমাত্র অতি দক্ষ এবং খুব বেশি বেতনের কর্মীদেরই আমেরিকায় ওয়ার্ক ভিসা দেওয়া হবে বলে জানানো হয়। তবে ভবিষ্যতে যাতে আমেরিকায় কম মাইনের চাকরিতে বিদেশিরা কাজ করতে না পারেন, সেদিকে সতর্ক নজর রাখতেই প্রশাসনের এই সিদ্ধান্ত বলে অনুমান অনেকের।

[আরও পড়ুন: ৯ সন্তান নিয়ে লালুকে খোঁচা নীতীশের! ‘প্রধানমন্ত্রীরও তো ৬-৭ ভাইবোন’, জবাব তেজস্বীর]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement