BREAKING NEWS

১০ মাঘ  ১৪২৮  সোমবার ২৪ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

অবশেষে হোয়াইট হাউসে থাকতে আসছেন মেলানিয়া, ব্যারন

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: June 11, 2017 9:53 am|    Updated: June 11, 2017 9:53 am

US President Donald Trump wife Melania Trump likeley to shift to White House

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: প্রেসিডেন্ট। ফার্স্ট লেডি। একসঙ্গেই এদেরকে দেখতে অভ্যস্ত মার্কিন নাগরিকরা। তবে সেই ট্র্যাডিশন ভেঙেছেন নতুন ফার্স্ট লেডি। ছেলের ব্যারনের পড়াশোনার জন্য ওয়াশিংটন থেকে তিনশো কিলোমিটার দূরে নিউইয়র্ক থাকেন মেলানিয়া। স্বামী-স্ত্রীর তথাকথিত এই দূরত্ব নিয়ে নানারকম মুখরোচক গল্প চলে আমেরিকায়। সদ্য বিদেশ সফরে যাওয়া ডোনাল্ড ট্রাম্পের হাত ধরা নিয়ে মেলানিয়ার আড়ষ্টতা সেই জল্পনায় আরও হাওয়া দেয়। তৃতীয় স্ত্রীর সঙ্গে ট্রাম্পের তেমন বনিবনা হচ্ছে না। এমন প্রশ্ন জোরদার হয়। আপাতত সেই জল্পনায় দাঁড়ি পড়তে চলেছে। আগামী সপ্তাহেই নাকি ছেলেকে নিয়ে হোয়াইট হাউসে যাচ্ছেন মেলানিয়া।

[প্যালেস্তিনীয় শিশুকে স্তন্যপান, মানবিকতার নজির ইজরায়েলি নার্সের]

দেশটার নাম আমেরিকা। সেখানকার প্রেসিডেন্টের নিরাপত্তা তাই খানিকটা বাড়াবাড়ি রকমের। তার পরিবারের ক্ষেত্রেও তাই। মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের স্ত্রী, ছেলে প্রথম থেকেই হোয়াইট হাউসে থাকেন না। তাদের ঠিকানা নিউইয়র্কের ট্রাম্প টাওয়ার। ফার্স্ট লেডি ও তাঁর ছেলের নিরাপত্তার জন্য নিউইয়র্ক শহরকে ঢেলে সাজানো হয়েছে। এর জন্য প্রতিদিন প্রায় দেড় লক্ষ মার্কিন ডলার খরচ হয় প্রশাসনের। যা নিয়ে শুরু থেকেই সরব নিউইয়র্কের করদাতারা। শুধু নিরাপত্তার বাজনা নয়, কেন ট্রাম্পকে ছেড়ে নিউইয়র্কে থাকেন মেলানিয়া তা নিয়ে কৌতুহলের শেষ নেই। হোয়াইট হাউসে পাঁচ মাস কাটিয়ে দিলেও স্ত্রী, পুত্রের সঙ্গ পাননি ডোনাল্ড ট্রাম্প। তবে উইকএন্ডে ফ্লোরিডার নিজস্ব রিসর্টে গিয়ে দু’দিনের জন্য ট্রাম্প ফ্যামিলি ম্যান হয়ে যেতেন। এভাবে ট্রাম্পের শিকাগো, নিউইয়র্ক, ফ্লোরিডা সফর নিয়ে নানা প্রশ্ন তুলেছে বিরোধীরা। স্ত্রীর সঙ্গে তাঁর সম্পর্কের অবনতি হয়েছে। এমন প্রশ্নও উঠতে থাকে। সম্প্রতি মধ্য প্রাচ্য এবং ইউরোপ সফরে গিয়েছিলেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। বিদেশ সফরে  এবারই প্রথমবার তাঁর সঙ্গে ছিলেন মেলানিয়া। কিন্তু একাধিক জায়গায় প্রেসিডেন্ট ও ফার্স্ট লেডির হাত ধরা নিয়ে আড়ষ্টতার ছবি বুঝিয়ে দিয়েছিল সম্পর্কের কোথাও বোধহয় টোল খেয়েছে। ট্রাম্প ও মেলানিয়াকে ঘিরে পাহাড়প্রমাণ প্রশ্ন, কৌতুহলের জবাব এবার মিটতে চলেছে। একটি মার্কিন সংবাদমাধ্যমের দাবি, আগামী সপ্তাহেই হোয়াইট হাউসে ছেলে ব্যারনকে নিয়ে যাচ্ছেন মেলানিয়া। এবার পাকাপাকিভাবে থাকবেন। কবে মেলানিয়া যাবেন তার অবশ্য দিনক্ষণ জানা যায়নি। আরও একটি সংবাদমাধ্যমের খবর, আগামী বছরের ১৪ জানুয়ারি ট্রাম্প ৭১ বছরে পড়বেন। ওই দিন জন্মদিনের উপহার হিসাবে স্ত্রী, পুত্র যাবেন সাদা বাড়িতে।

[পুরুষ যাত্রীদের বদভ্যাস বাগে আনতে আজব ফরমান এই শহরে]

প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রাশিয়ার সঙ্গে তাঁর কী ভূমিকা ছিল এই নিয়ে তদন্তে কার্যত নাজেহাল ডোনাল্ড ট্রাম্প। বিশেষজ্ঞদের বক্তব্য, এই পরিস্থিতিতে স্ত্রী, পুত্রকে পাশে পেয়ে অনেক প্রশ্ন থেকে তিনি নিষ্কৃতি  পাবেন। এবছরই স্কুলের পড়াশোনা শেষ হচ্ছে ১১ বছরের ব্যারনের। এবার তাই ঝাড়া হাত-পা অবস্থায় ছেলেকে নিয়ে হোয়াইট হাউসে যাচ্ছেন ৪৭ বছরের মেলানিয়া। ওবামা পত্নী মিশেল আট বছরে খুবই সক্রিয় ছিলেন। শিক্ষা এবং মহিলাদের অধিকার নিয়ে তাঁর ভূমিকা আমেরিকায় এখনও আলোচনা হয়। সেই নিরিখে মেলানিয়া একেবারেই লো-প্রোফাইল। গত মাসে মধ্য প্রাচ্য এবং ইউরোপ সফরে তিনি প্রথমবার স্বামীর সঙ্গে ছিলেন। যা নিয়ে কম বিতর্ক হয়নি। স্ত্রীর সঙ্গে কি ট্রাম্পের দুর্দিন কাটবে। এর উত্তর খুঁজছেন প্রেসিডেন্টের অনুগামীরা।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে