BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  রবিবার ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

মার্কিন সেনাকে নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্যের জের, চিনের রাষ্ট্রদূতকে তলব করল আমেরিকা

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: March 14, 2020 8:09 pm|    Updated: March 14, 2020 8:09 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ইউহানে করোনা এনেছে মার্কিন সেনা (US Army)। গত বৃহস্পতিবার টুইট করে চাঞ্চল্যকর এই অভিযোগ জানিয়েছিলেন চিনের বিদেশ মন্ত্রকের মুখপাত্র ঝাও লিজিয়ান। এরপর শুক্রবারই আমেরিকায় নিযুক্ত চিনের রাষ্ট্রদূত সুই তিয়ানকাইকে তবল করল মার্কিন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক। চিনের বিদেশ মন্ত্রকের ওই মুখপাত্র কেন এই ধরনের বিতর্কিত মন্তব্য করলেন তা কারণ জানতে চাইছে তারা। এর পিছনে শি জিনপিংয়ের নির্দেশ আছে কিনা তাও জানতে চায় তারা।

শুক্রবার এই বিষয়ে পূর্ব এশিয়ার দায়িত্বপ্রাপ্ত মার্কিন আধিকারিক ডেভিড স্টিলওয়েল বলেন, ‘সারা বিশ্ব যখন এই মহামারি থেকে মুক্তি পাওয়ার উপায় খুঁজছে। সবাই যখন বিষয়টি নিয়ে প্রচণ্ড আতঙ্কিত। এবং এই মারণ ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার জন্য চিনের তীব্র সমালোচনা করছে। ঠিক তখনই বিশ্বের নজর অন্যদিকে ঘোরানোর জন্য এই ধরনের ভিত্তিহীন অভিযোগ করছে তারা। ভয়াবহ এই পরিস্থিতিতে এই ধরনের উসকানি ও ষড়যন্ত্রমূলক মন্তব্য করা খুবই মারাত্মক। আমরা চিনকে স্পষ্ট জানিয়ে দিতে চাই যে এই ধরনের মন্তব্য আমরা কখনই বরদাস্ত করব না। এই ধরনের মন্তব্য করা থেকে বিরত থাকলে চিনের নাগরিকদেরও ভাল হবে।’

[আরও পড়ুন: বাঙালি যুবকের হাত ধরে করোনা প্রতিরোধে বিশ্বকে পথ দেখাচ্ছে কানাডার গবেষকরা ]

 

কিছুদিন আগে জল্পনাটি উসকে দিয়েছিল রাশিয়ার একটি সংবাদমাধ্যমে। তাদের একটি অনুষ্ঠানে দাবি করা হয়েছিল যে চিনে করোনা ভাইরাসের প্রবেশ ঘটেছে আমেরিকার জন্যই। ডোনাল্ড ট্রাম্পই এই মারণ ভাইরাস সেখানে ঢোকানোর নেপথ্যে থাকতে পারে বলে অভিযোগ করা হয়েছিল। এরপরই এই বিষয়টি নিয়ে বিতর্ক শুরু হয় বিশ্বজুড়ে। তীব্র প্রতিবাদ জানানো হয় আমেরিকার তরফেও। যদিও চিনের তরফে তখন এই বিষয়ে কোনও মন্তব্য করা হয়নি।

কিন্তু, বৃহস্পতিবার সেই একই অভিযোগ একটু চড়া সুরে জানানো হয় চিনের তরফে। বৃহস্পতিবার রাতে টুইট করে চিনের বিদেশ মন্ত্রকের মুখপাত্র দাবি করেন, সম্ভবত আমেরিকার সেনাই হুবেই প্রদেশের ইউহান শহরে করোনা ভাইরাস ঢুকিয়েছে। যদিও এই অভিযোগের স্বপক্ষে কোনও প্রমাণ দেখাতে পারেননি তিনি।

[আরও পড়ুন: বেঁচে থাকার গানই ভরসা, মৃত্যুপুরী ইটালিতে সমবেত সংগীত উজ্জীবিত রাখছে বাসিন্দাদের]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement