Advertisement
Advertisement
Human Rights

বাইডেনের দিল্লি সফরের আগেই মানবাধিকার খোঁচা আমেরিকার

কী বলছে আমেরিকা?

US will raised concern about India's human rights। Sangbad Pratidin
Published by: Suchinta Pal Chowdhury
  • Posted:August 8, 2023 11:41 am
  • Updated:August 8, 2023 11:41 am

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মণিপুর থেকে হরিয়ানা। ভারতে সাম্প্রদায়িক সংঘাত ও মানবাধিকার লঙ্ঘন নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে আমেরিকা। এবার ফের দিল্লিকে মানবাধিকার খোঁচা দিল মার্কিন বিদেশ দপ্তর।  

সোমবার সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে মার্কিন বিদেশ দপ্তরের মুখপাত্র ম্যাথিউ মিলার বলেন, “যে দেশগুলির সঙ্গে আমাদের সম্পর্ক রয়েছে তাদের সঙ্গে মানবাধিকার প্রসঙ্গে আমরা বরাবরই আলোচনা করি। অতীতেও ভারতের সঙ্গে আমাদের মানবাধিকার প্রসঙ্গে কথা হয়েছে। আগামী দিনেও এনিয়ে কথা হবে।”

Advertisement

ভারতে খ্রিস্টানদের উপর নির্যাতনের অভিযোগ নিয়ে প্রশ্ন করা হয় মিলারকে। নয়াদিল্লিতে আসন্ন জি-২০ সম্মেলনে অংশ নিতে প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের ভারত সফরে এই নিয়ে প্রশ্ন তোলা হবে কি না, তা জানতে চাওয়া হয়। তখন মিলার পরিষ্কার বলেন, “শুধু ভারত নয়, বিশ্বের যে কোনও দেশে খ্রিস্টান বা যে কোনও সম্প্রদায়ের উপর অত্যাচারের বিরোধিতা করবে আমেরিকা।” 

Advertisement

উল্লেখ্য, আগামী ৯ ও ১০ সেপ্টেম্বর দিল্লিতে বসতে চলেছে জি-২০ শীর্ষ সম্মেলন। এই সম্মেলনে যোগ দিতে ভারতে আসার কথা আমেরিকার প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের। চিনের দাদাগিরি রুখতে একজোট হয়েছে আমেরিকা ও ভারত। তাই মোদি ও বাইডেন মুখোমুখি হয়ে চিনকে কী বার্তা দেন সে দিকে তাকিয়ে রয়েছে ওয়াকিবহাল মহল। এহেন পরিস্থিতিতে, আরও একটি বিষয়ে নজর থাকবে বিশ্লেষকদের। যা হল ভারতে ঘটে চলা বিভিন্ন ঘটনায় মানবাধিকার প্রসঙ্গে আমেরিকা কোনও প্রশ্ন তোলে কি না। কারণ মার্কিন মুলুকে ভারতের মানবাধিকার নিয়ে নানা প্রশ্ন উঠেছিল গত জুন মাসে মোদির আমেরিকা সফরে। সে সময় মার্কিন সেনেট ও কংগ্রেসের সদস্যদের ৭৫ জন মিলে ভারতের গণতন্ত্র, ধর্মীয় স্বাধীনতা নিয়ে প্রশ্ন তুলে বাইডেনকে চিঠি দিয়েছিলেন। যদিও বাইডেন বলেছিলেন, “ভারত ও আমেরিকার একটাই বৈশিষ্ট্য- ধর্মীয় বৈচিত্র্য।” 

[আরও পড়ুন: দশ পেরলেই বন্ধ স্কুলের দরজা! মেয়েদের জন্য ফতোয়া তালিবানের]

সম্প্রতি মণিপুরের জাতি দাঙ্গায় উত্তাল হয়েছে দেশ। পীড়িতদের নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছিল মার্কিন প্রশাসন। মণিপুরে দ্রুত শান্তি ফেরানোর পক্ষেও সওয়াল করা হয়েছিল। এর মাঝখানেই হরিয়ানার নুহতে সাম্প্রদায়িক দাঙ্গার ঘটনায় নতুন করে বিতর্ক শুরু হয়েছে। ফের ভারতের বর্তমান পরিস্থিতি নিয়ে মুখ খোলে আমেরিকাও। মার্কিন বিদেশ দপ্তরের মুখপাত্র ম্যাথু মিলার শান্তি ফেরানোর বার্তা দিয়েছিলেন।

[আরও পড়ুন: ঘুরতে ঘুরতে থমকে গেল দুবাইয়ের গগনচুম্বী চক্রযান, কারণ নিয়ে শুরু গুঞ্জন]

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ