৭  আশ্বিন  ১৪২৯  মঙ্গলবার ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

মাসুদ আজহারের বিষয় নিয়ে চিনের সঙ্গে কথা বলেছি, স্বীকারোক্তি পাক বিদেশমন্ত্রীর

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: March 23, 2019 4:34 pm|    Updated: March 23, 2019 4:34 pm

Mr Qureshi discussed the issue of JeM chief Azhar with China,

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: জঙ্গি সংগঠন জইশ-ই-মহম্মদের প্রধান মাসুদ আজহারকে যে পাকিস্তানের পক্ষ থেকে সবরকম সাহায্য করা হচ্ছে তা আবার প্রমাণ হয়ে গেল। সম্প্রতি রাষ্ট্রসংঘের নিরাপত্তা পরিষদে মাসুদকে আন্তর্জাতিক সন্ত্রাসবাদী ঘোষণা করার বিষয়ে ফ্রান্সের প্রস্তাবে ভেটো প্রয়োগ করেছে চিন। তারপরই চিনের বিদেশমন্ত্রী ওয়াং ই-এর সঙ্গে তার বিষয়ে কথা হয়েছে বলে স্বীকার করলেন পাকিস্তানের বিদেশমন্ত্রী শাহ মেহমুদ কুরেশি।

বৃহস্পতিবার দু’দেশের মধ্যে হওয়া প্রথম কৌশলগত দ্বিপাক্ষিক বৈঠক সেরে বেজিং থেকে ইসলামাবাদ ফেরেন কুরেশি। তারপর বৈঠক প্রসঙ্গে বলেন, “সমস্ত বিষয় নিয়েই আমাদের মধ্যে কথা হয়েছে। কিছু বিষয়ে ওরা আমাদের পরামর্শ দিয়েছে। আর কিছু বিষয়ে আমাদের কথা শুনে ওরা নিজেদের নীতি পরিবর্তন করেছে।”

[বিধ্বস্ত খিলাফত, ৪ বছরের যুদ্ধে শেষে পরাস্ত ইসলামিক স্টেট]

মাসুদ আজহারকে নিয়েও যে ওই বৈঠকে তাঁদের কথা হয়েছে সেকথা খোলাখুলি স্বীকার করে নেন কুরেশি। বলেন, “আপনারা সবাই জানেন এই বিষয়ে আরও তথ্য সংগ্রহ করার জন্য নিরাপত্তা পরিষদে চিন যে পদক্ষেপ নিয়েছে তাতে তাদের উপর প্রচণ্ড চাপ তৈরি হয়েছে। তাই এই বিষয়ে আমেরিকা, চিন ও ইংল্যান্ড কী ভাবছে তা নিয়ে আলোচনা করেছি আমরা। আজহারের বিষয়ে পুরো বিশ্ব কী চাইছে তাও আমরা জানি। পাশাপাশি এটাও জানি যে আমাদের কী করতে হবে, এই বিষয়ে আমাদের স্বার্থ কী আছে এবং আমাদের নীতি কী হওয়া উচিত। আসলে বিষয়টিকে আরও বৃহত্তর দৃষ্টিভঙ্গিতে দেখতে হবে। আমাদের মনে হয় বিষয়টিকে আর্থিক দুর্নীতির মামলা হিসেবে দেখা উচিত।”

[মোদিতেই ভরসা বিজেপির, দেশজুড়ে ১৬২টি সভা প্রধানমন্ত্রীর]

মাসুদের বিষয় নিয়ে ভারত যে ডসিয়ের দিয়েছে সেটা তাঁরা খতিয়ে দেখছে বলে জানান কুরেশি। বলেন, “এই বিষয়ে আমরা খুব সিরিয়াস এবং ডসিয়েরটি খতিয়ে দেখা হচ্ছে। কোনও কিছু খুঁজে পেলে সংবাদমাধ্যম ও গোটা বিশ্বকে অবশ্যই জানানো হবে।”

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে