BREAKING NEWS

২ আশ্বিন  ১৪২৭  রবিবার ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

কীভাবে ছড়াল করোনা? চিনে গিয়ে উৎস খুঁজতে চায় WHO

Published by: Sucheta Chakrabarty |    Posted: May 7, 2020 7:36 pm|    Updated: May 7, 2020 8:13 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: করোনা রুখতে প্রয়োজন প্রতিষেধক বা ভ্যাকসিন। যত দ্রুত সম্ভব তা প্রস্তুত করতে হবে। তাই চিনে গিয়ে করোনা সংক্রান্ত বিস্তারিত তথ্য খুঁজে পেতে চান হু (WHO) এর বিশেষজ্ঞরা।

কীভাবে ছড়াল করোনা ভাইরাস? এই প্রশ্ন মানুষকে ভাবিয়েছে লকডাউনের প্রথম পর্ব থেকে। এমনকি লকডাউনের প্রভাব কী হতে পারে বা কোয়ারেন্টাইন কী এই শব্দগুলোর সঙ্গে পরিচিত হওয়ার আগেই করোনা ভাইরাসের ছড়িয়ে পড়া নিয়ে প্রশ্ন জেগেছে বিশ্ববাসীর মনে। তবে করোনা ভাইরাসকে কাবু করতে তার প্রতিষেধক প্রস্তুত করতে গেলে যেতে হবে রোগের আঁতুরঘরে, এমনটাই মনে করছেন বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা হু-এর বিশেষজ্ঞরা। প্রাতীন প্রবাদ, সমস্যার সমাধান করতে গেলে তার শিকড় খুঁজে বার করা প্রয়োজন। সেই আপ্তবাক্যকেই সম্বল করে চিনে করোনার আতুরঘরে গিয়ে করোনা নামক ধাঁধাঁর সমাধান খুঁজে বার করতে চান তাঁরা। বিশেজ্ঞদের একটি দল খতিয়ে দেখতে চান, “কোন পথে মানব শরীরে করোনা ভাইরাস প্রবেশ করল?” WHO-এর মহামারী বিশেষজ্ঞ ডঃ মারিয়া ভ্যান জানান, “ইতিমধ্যেই এ বিষয়ে চিনে WHO-এর শাখায় কর্মরত আধিকারিকদের সঙ্গে তাঁদের আলোচনা হয়েছে। কারণ জানিয়ে সেখানে পর্যবেক্ষণের প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে চিনকেও। তবে এখনও পর্যন্ত এ বিষয়ে কোনও প্রতিক্রিয়া দেয়নি চিনা বিদেশমন্ত্রক।” এর আগেও পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণের জন্য চিনে গিয়েছিলেন WHO-এর আধিকারিকেরা। তখনই জানা গিয়েছিল যে, অন্য কোনও প্রাণীর শরীর থেকেই করোনাভাইরাস মানুষের শরীরে ঢুকেছে। কিন্তু ঠিক কোন প্রাণীর থেকে? বা কী ভাবে তা মানুষের শরীরে ঢুকল? সে বিষয়টি এখনও পরিষ্কার নয় WHO-এর কাছে। আর যতক্ষণ তা স্পষ্ট নয় ততক্ষণ তার প্রতিষেধক খুঁজে বের করা সম্ভব নয় বলেই দাবি হু-এর বিশেষজ্ঞদের।

[আরও পড়ুন:করোনার আঁধারেও আলো, সুস্থ কন্যাসন্তানের মা হলেন সাংসদ অপরূপা পোদ্দার]

এর আগেই মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প দাবি করেছেন, “চিনের থেকেই ছড়িয়েছে করোনাভাইরাস।” এই মহামারির জন্য সরাসরি চিনকেই দায়ি করেছেন ট্রাম্প। যদিও এই দাবির পক্ষে কোনও প্রমাণ দিতে পারেননি তিনি। তাই করোনার প্রতিষেধক তৈরির আগে ঠিক কোন প্রাণীর থেকে বা কী ভাবে তা মানুষের শরীরে ঢুকল, তা খতিয়ে দেখতে চিনে যেতে চান WHO-এর বিশেষজ্ঞদের একটি দল।

[আরও পড়ুন:মদের পর পানমশলা, নিষেধাজ্ঞা তুলে বিক্রিতে সায় যোগী সরকারের]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement